Advertisement

বিনোদন

তাঁর শিকড় গেঁথে আছে পাকিস্তানে, এই দাবি করে সকলের রোষের মুখে সোনম কপূর

Parama SenParama Sen  |  Aug 19, 2019
তাঁর শিকড় গেঁথে আছে পাকিস্তানে, এই দাবি করে সকলের রোষের মুখে সোনম কপূর

Advertisement

একথা শুনে অবাক লাগছে? ভাবছেন, এই ভরা ৩৭০ ধারার বাজারে সোনম কপূর (Sonam Kapoor) এসব বলতে শুরু করলেন কেন? তা এত অবাক লাগার তো কিচ্ছুটি নেই। উনি হলেন গিয়ে স্বয়ং সোনম কপূর, হাবিজাবি বলা এবং উৎপটাং মন্তব্য করা ওঁর পুরনো অভ্যেস এবং জন্মগত অধিকার! তিনি যুদ্ধের বাজারে এরকম বাক্যি দেবেন না তো কি আমি-আপনি দেব? যত্তসব!

ঘটনাটা একটু খুলে বলি। সেই যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কাশ্মীর (Kashmir) থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দিলেন, তারপর থেকেই এটা ভারী ট্রেন্ডিং টপিক। ট্রেন্ডিং জানেন না? আপনি মশাই এই সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে এক্কেবারে অচল, বলতে বাধ্য হচ্ছি! ট্রেন্ডিং মানে, যেটা নিয়ে ঝাঁঝালো বক্তব্য পেশ করলেই আপনি শিরোনামে, আপনার প্রোফাইলে গুচ্ছ লোক ভিড় করবে, আপনি রাতারাতি চুনোপুঁটি থেকে রাঘববোয়ালে কনভার্ট করবেন। এবার বক্তব্যটি খাসা না ধসা, সেটি শুনে লোকের পিত্তি জ্বলল নাকি শান্তি হল, ওসব ভাবতে যাবেন না। এমন একটা গুছিয়ে কথা কইবেন যেন আপনাকে নিয়ে পাড়ার রামুদার চায়ের দোকান থেকে শুরু করে খাস দিল্লি পর্যন্ত একটা হিল্লোল উঠে যায়! এই যে কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা উঠে গেল, তা নিয়েও সেলেব্রিটিরা অহরহ বক্তব্য (comment) রাখছেন, কেন? কারণ, ওটি হল এক্কেবারে গরমাগরম ট্রেন্ডিং টপিক। তাই আপনি কাশ্মীরে যান ছাই না যান, সেখানকার লোকের দুঃখে আপনার প্রাণ কাঁদুক ছাই না কাঁদুক, মন্তব্য আপনাকে করতেই হবে।

মিডিয়াও এই ঘোলা জলে কপাকপ মাছ ধরছে! ব্রেকিং নিউজের টার্গেট তাদেরও আছে কিনা! তা কেমন করে? ধরুন, কেউ এসেছেন সিনেমার নতুন লুক লঞ্চে, তাঁকে জিজ্ঞেস করা হবে কাশ্মীর নিয়ে আপনি ঠিক কী ভাবছেন! যেন তাঁর ভাবাতে কিছু যায়-আসে! কিংবা কেউ অনাথ শিশুদের আদর করতে গিয়েছেন, মিডিয়া সেখানেও বুম বাগিয়ে বলল, আচ্ছা ৩৭০ নম্বরটা তো গেল, এবার নেক্সট কোনটা যাবে বলে আপনার মনে হয়! লাও ঠেলা! এসবের মাঝখানে সেলেব্রিটিরা একটুআধটু ছড়াবেন না, তা তো হতে পারে না! ফলে যা হওয়ার তাই হচ্ছে! তাঁরা বেবাক ছড়াচ্ছেন! যেমন ছড়িয়েছেন সোনম!

তাঁকেও কোনও একটি অনুষ্ঠানে ৩৭০ ধারা নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল। তিনি প্রথমটায় ভারী বুদ্ধির পরিচয় দিয়ে বলেছিলেন যে, আমার এই বিষয়ে কোনও বক্তব্য নেই, কারণ, ব্যাপারটা ভারী কঠিন। কিন্তু ওই যে, তিনি তো সোনম, বেশি কথা বলা তাঁর বরাবরের অভ্যেস! এর আগে ঐশ্বর্যকে আন্টি বলে ফেলেছিলেন, বলিউডের অর্ধেক লোক ফ্যাশন জানে না বলেছিলেন…এবারও শেষমেশ বলেই ফেলেছেন যে, তিনি তো হাফ সিন্ধি আর হাফ পেশওয়ারি (পেশওয়ার, যেটি এখন পাকিস্তানে), তাঁর তো শিকড় ওই দেশেতেই গাঁথা…তাই…

ব্যস, আর যায় কোথায়! এক্কেবারে ফুটন্ত তৈলে নিক্ষিপ্ত বার্তাকুর ন্যায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হইয়া জ্বলিতে শুরু করিয়াছে এই বাক্যখানি! নেটিজেনরা বিস্তর বকুনিও (trolled) দিয়েছেন সোনমকে। অবশ্য তিনি হলেন গিয়ে অনিল কপূরের মেয়ে। ওসবে থোড়াই ডরান। তিনি নেটিজেনদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ভাইসকল, তোমাদের কি নিজেদের কোনও কাজ নেই? যাও, মন দিয়ে সেই কাজ করো দিকি! তা না, খালি আমি কী বললাম, সেদিকে নজর! ফালতু আমার কথাকে টুইস্ট কোরো না! 

তা আপনি অমন কথা বলেন কেন শুনি, যেটা চাইলেই টুইস্ট করে ভাইরাল করে দেওয়া যায়? হুঁঃ! 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!