Advertisement

লাইফস্টাইল

পাকা পেয়ারা খান না? তা হলে ফেলে না দিয়ে বানিয়ে ফেলুন চাটনি (guava chutney)

Upasana SarkarUpasana Sarkar  |  Jan 30, 2019
পাকা পেয়ারা খান না? তা হলে ফেলে না দিয়ে বানিয়ে ফেলুন চাটনি (guava chutney)

Advertisement

ফল খেতে সে রকম ভাল না লাগলেও আমি পেয়ারাটা (guava) খুবই পছন্দ করি। বছরের যে-কোনও সময় বেশ ডাঁসা পেয়ারা তার সঙ্গে বিটনুন বা ঝালনুন! আর কারেন্ট নুন হলে তো কথাই নেই। জাস্ট জমে যায় বিকেলবেলাটা। তবে  ডাঁসা পেয়ারা নিয়ে আমার এমন হ্যাংলামি থাকলেও পাকা পেয়ারাটা (guava) একেবারে দু’চোখের বিষ। আসলে ওই গন্ধটাই সহ্য করতে পারি না। আর পেয়ারাগুলো (guava) নরম হয়ে যায় বলে খেতে কেমন একটা লাগে। তবে বাজার থেকে পেয়ারা বাড়িতে এনে বেশি দিন রেখে দিলে সেগুলো পেকে যায়। কাজেই আমার আর খাওয়া হয় না। পরে সেগুলোর জায়গা হয় ডাস্টবিনে। আর এ রকম মাঝেমধ্যেই হয়ে থাকে বলে আমার মা খুব রেগে যান। কারণ খাওয়ার জিনিস ফেলাটা উনি খুব একটা পছন্দ করেন না। অনেক বুঝিয়েও যখন কাজ হল না, তখন আমাকে শায়েস্তা করার জন্য মা অন্য রাস্তা বার করলেন। এ-দিক সে-দিক খুঁজে কোথা থেকে যেন পেয়ারার চাটনি (guava chutney) বানানোর রেসিপি (recipe) পেলেন। প্রথমে তো বলেনইনি যে কীসের চাটনি। আমি খেয়ে প্রশংসা করার পরে বিড়াল ঝোলা থেকে বেরোল! আমি তো শুনে খানিক অবাক যে পাকা পেয়ারার চাটনিও (guava chutney) হয়! ব্যস! এর পর পেয়ারা পেকে গেলেও কোনও চাপ নেই। চাটনি (guava chutney) বানিয়ে দিব্যি পকোড়ার সঙ্গে, স্যান্ডউইচের সঙ্গে চলে যায়। আর খেয়ে তো আমিও খুশ! ও দিকে মাতৃদেবীও খুশ! শুনেছি, আমার মতো অনেকের ক্ষেত্রেই এটা হয়। তাই আপনারাও পাকা পেয়ারা (guava) ফেলে না দিয়ে খুব টক-ঝাল চাটনি (guava chutney) বানাতে পারেন। পেয়ারা এমনিতেই শরীরের জন্য তো ভালই, ফলে এই চাটনি (guava chutney) আপনার শরীরও ভাল রাখবে আর স্বাদবদলও এনে দেবে। এই ধরুন অফিস থেকে ফিরে মুড়ি-চানাচুর রোজ চিবোতে ভাল লাগে না। মাঝেমধ্যে চপ-কাটলেট-শিঙাড়া চলতেই পারে। তার সঙ্গে স্পাইসি, ট্যাঙ্গি (spicy-tangy) পেয়ারার চাটনি (guava chutney) ট্রাই করুন। মন ভরে যাবে আপনার! শুধু ধনেপাতা কিংবা পুদিনা পাতার চাটনি তো সব সময়ই খান। এ বার চেখে দেখুন পেয়ারা-ধনেপাতা-পুদিনার চাটনিও (spicy-tangy)। আর রেসিপি (recipe)! চিন্তা করছেন কেন? আমরা তো আছি নাকি! একেবারে মায়ের রান্নার খাতা থেকে নেওয়া রেসিপি (recipe) তুলে দিলাম আপনাদের জন্য!

উপকরণ

২৫০ গ্রাম পাকা পেয়ারা (guava)

দেড় টেবিল চামচ লেবুর রস

দেড় টেবিল চামচ কুচোনো লঙ্কা (আপনি কেমন ঝাল খান, তার উপর নির্ভর করে)

আধ টেবিল চামচ কুচোনো আদা

দেড় চা চামচ লঙ্কাগুঁড়ো

আড়াই টেবিল চামচ কুচোনো ধনেপাতা

৩-৪টে পুদিনা পাতা

স্বাদ অনুযায়ী নুন

guava chutney

প্রণালী

১। প্রথমে একটা বড় কাচের বাটি নিয়ে তাতে ছোট ছোট টুকরো করে কাটা পাকা পেয়ারা রাখুন। বীজ ছাড়িয়ে নিতেই পারেন। সেটা পুরোপুরি আপনার পছন্দের উপর নির্ভর করবে। আমার মা পেয়ারার বীজ ছাড়িয়েই চাটনিটা বানান।

২। এ বার মিক্সারের মধ্যে টুকরো করা পেয়ারা ও বাকি উপকরণ সব একসঙ্গে দিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। দেখবেন যেন, সব উপকরণগুলো একদম মিহি পেস্টে পরিণত হয়। ওই পেস্ট একেবারে মসৃণ হয়ে গেলে নামিয়ে একটি বাটিতে রাখুন।

ব্যস! তৈরি টক-ঝাল (spicy-tangy) পেয়ারার চাটনি (guava chutney)। এ বার আর কী! সন্ধের স্ন্যাক্সের সঙ্গে পরিবেশন করুন। ভাতের শেষ পাতেও ট্রাই করতে পারেন।

ছবি সৌজন্যে: ইউটিউব, পিন্টরেস্ট

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি এবং বাংলাতেও!