logo
Logo
User
home / লাইফস্টাইল
করোনা রোগীর কাছে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন, এইভাবে সাবধানতা মেনে চলুন

করোনা রোগীর কাছে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন, এইভাবে সাবধানতা মেনে চলুন

করোনা সংক্রমণের এই কঠিন সময়ে আমাদের খেয়াল রাখা উচিত যে, শারীরিক দূরত্ব যেন কোনওভাবেই না সামাজিক দূরত্ব হয়ে ওঠে। এই কঠিন সময়ে যদি আমরা একে অপরের পাশে না থাকি, তবে সমস্যা বাড়বে। কমবে না। অর্থাৎ, কোনও পরিবারের প্রত্যেক সদস্যই যদি করোনায় সংক্রমিত হন, তবে সেই পরিবারের কাছে খাবার ও মুদিখানার সামগ্রী কিংবা ওষুধ পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব নিতে হবে অন্যদের। এই সময় দেখা যাচ্ছে, অনেকে মুখ ফিরিয়ে থাকলেও অনেকেই আবার স্বেচ্ছায় এই দায়িত্ব নিচ্ছেন। করোনা রোগীর বাড়ি রান্না করা খাবার কিংবা শুকনো খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন (take precautions) । একে অন্যের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন বলেই হয়তো কঠিন অসুখকে সহজেই প্রতিরোধ করা সম্ভব হচ্ছে। আপনিও কি এরকম কোনও দায়িত্ব নিয়েছেন? করোনা রোগীকে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন কিংবা অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন। কিন্তু আপনার নিজের খেয়াল রাখতে হবে আপনাকেই।

কী কী সাবধানতা (take precautions) মেনে চলবেন

মাস্ক ও গ্লভস অবশ্যই পরবেন (take precautions)

আপনি করোনা রোগীর বাড়ি খাবার পৌঁছে দিতে যাওয়ার সময় মাস্ক পরে (take precautions) থাকবেন। প্রয়োজনে দুটো মাস্ক পরবেন। এই সময়ে আপনি ডিসপোসেবল মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। মাস্ক পরে আপনি তাঁদের বাড়িতে খাবার পৌঁছে দিয়ে সেই মাস্ক বদলে ফেলুন ও অন্য মাস্ক পরে নিন। এরই সঙ্গে গ্লভস পরতে ভুলবেন না। কারণ আমাদের প্রত্যেকের পক্ষে পিপিই কিট পরা সম্ভব নয়, আর তা জোগাড় করাও সম্ভব নয় তাই এই মাস্ক ও গ্লভসের ক্ষেত্রেই সচেতন হতে হবে আমাদের। গ্লভস পরে খাবার পৌঁছে দেওয়ার পরে গ্লভসের উপর স্যানিটাইজার লাগিয়ে নেবেন। এরপর গ্লভস খুলে (take precautions) ফেলে আবার হাত স্যানিটাইজ করে নেবেন।

গ্লভস পরবেন

হাত স্যানিটাইজ করে নেবেন

তাঁদের বাড়িতে খাবার পৌঁছে দেওয়ার পর কোনোভাবেই নাকে, চোখে ও মুখে হাত দেবেন না। তাঁদের বাড়ি থেকে বেরিয়ে আগে হাত স্যানিটাইজ করবেন। আপনার হাতের যে অংশটুকু খোলা ছিল, সেই অংশটুকু ভাল ভাবে স্যানিটাইজ করে নিন। হ্যান্ড স্য়ানিটাইজার ব্যবহার করুন (delivering food to a covid positive) ।

পোশাক বদলে নেবেন

করোনা রোগীর বাড়ি থেকে বাড়ি ফেরার পর সেই পোশাক পরে ঘরে ঢুকে যাবেন না। খুব ভাল হয় যদি আপনার বাড়িতে বারান্দা থাকে, সেখানেই একটি বালতি রাখার ব্যবস্থা করুন। বালতিতে আপনার পোশাক খুলে রাখুন। এরপর হাত ও পা ভাল করে সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন। তারপর ঘরে ঢুকুন। দিনের বেলা হলে আপনি স্নান করেও নিতে পারেন। রাতের বেলায় অনেকেই স্নান করতে পারেন না, তাঁরা এই পদ্ধতি মেনে চলুন। আর স্নান করার হলে অবশ্যই শ্যাম্পু করে স্নান করে নেবেন (take precautions) । এতে আপনার শরীর পরিষ্কার হবে এবং আপনি সুস্থ থাকবেন।

পরিবারের অন্য সদস্যের থেকে দূরত্ব বজায় রাখুন (take precautions)

আপনি যেহেতু একজন করোনা আক্রান্তের বাড়িতে যাচ্ছেন, তাই সমস্ত নিয়ম মানলেও কোনও না কোনওভাবে আপনার করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা থেকেই যায়। সেইদিকটা খেয়াল রাখবেন। এই সময়টা আপনি পরিবারের অন্য সদস্যদের থেকে দূরত্ব বজায় রাখুন। যাতে আপনি আক্রান্ত হলেও কোনওভাবেই আপনার থেকে তাঁরা আক্রান্ত না হন (delivering food to a covid positive) ।

মাস্ক পরবেন

উপসর্গ এলেই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন (take precautions)

জ্বর, সর্দি-কাশি বা মাথা ব্যথার মতো কোনও উপসর্গ দেখা দিলেই নিজেকে প্রথমেই আইসোলেট করে ফেলুন। এরপর চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে নেবেন। সেই অনুযায়ী চলবেন। আপনি সুস্থ থাকলে অনেকেই সাহায্য পাবেন। তাই আপনার সুস্থ হয়ে ওঠা খুবই জরুরি।

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজিহিন্দিমারাঠি আর বাংলাতেও!       

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

05 Jan 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text