home / বলিউড ও বিনোদন
বলিউডের এই সিনেমাগুলো অন্যভাবে শেষ হলে আরও ভাল হত!

বলিউডের এই সিনেমাগুলো অন্যভাবে শেষ হলে আরও ভাল হত!

আমাদের জীবনে প্রেম বা রোম্যান্সের পরিভাষা তৈরি করার ক্ষেত্রে বলিউডের অনেক বড় ভুমিকা রয়েছে। না এখনকার কথা বলছি না। আমি বলছি সেই সময়ের কথা যখন ওয়েব সিরিজ বলে কোনও বস্তু ছিল না। জীবনের অনেকটাই আমরা দেখতাম রঙিন চশমা পরে। নায়ক এবং নায়িকারা সোশ্যাল মিডিয়ায় এত বেশি অ্যাক্টিভ ছিলেন না। তাঁদের হাড়ির খবরও এত সহজে সাধারণ মানুষের কাছে এসে পৌছত না। (these bollywood movies could have ended in a better way)

সেই সময়ে বলিউডে বেশিরভাগ সিনেমাই হত রোম্যান্সে ভরা। তখন সিনেমাগুলো দেখতে ভাল লাগলেও, এখন যখন আবার সেই রোম্যান্টিক সিনেমাগুলো আবার দেখতে বসি, তখন মনে হয়, নাহঃ! এই সিনেমার নায়ক নায়িকার মিলটা না হলেই ভাল হত। রীল এবং রিয়েল লাইফের তফাৎ যেন বড্ড বেশি চোখে লাগে। সেরকমই কয়েকটি ‘জনপ্রিয়’ জুটির সম্পর্কে আজ আলোচনা করব, যাদের সিনেমার শেষে মিল না হলেও কোনও সমস্যা ছিল না

বনরাজ-নন্দিনী: হম দিল দে চুকে সনম

নব্বইয়ের দশকের অন্যতম সেরা একটি ছবি। আমার মনে হয় মৈত্রেয়ী দেবীর ন’হন্যতে বইটি পাঠক যতটা পছন্দ করেছেন, একইভাবে সঞ্জয় লীলা বনশালীর হম দিল দে চুকে সনম ছবিটি-ও দর্শক পছন্দ করেছেন। তবে ছবিতে নন্দিনীর চরিত্রটি যেভাবে দেখানো হয়েছে, তাতে অনেকেরই মনে হতে পারে যে নন্দিনী একজন শিশুসুলভ এবং স্বার্থপর মহিলা। সিনেমার প্রথম অংশে বনরাজের ভালবাসা না বুঝে সমীরের জন্য সুদূর ইতালি পর্যন্ত চলে গেল নন্দিনী আর শেষ অংশে আবার বনরাজের কাছে ফেরার জন্য সমীরের থেকে দূরে চলে গেল! না মানে, দাবীটা কী??? আমাদের মতে, সমীর এবং বনরাজ – দু’জনেই নন্দিনীর থেকে আরও ভাল কাউকে ডিজারভ করে, জীবনসঙ্গী হিসেবে। (these bollywood movies could have ended in a better way)

মীরা-গৌতম: ককটেল

ককটেল ছবিটি যারা যারা দেখেছেন, তাঁরা কেউই বোধয় গৌতমের চরিত্রটিকে এত্তটুকুও পছন্দ করেন নি। না, আমরা মেয়েরা কোনও ‘ম্যান-বেবি’-কে নিয়ে সারা জীবন চলতে পারব না। গৌতম আসলে এমন একজন মানুষ যে কোনও জীবনসঙ্গীই ডিজারভ করে না। ছবির শেষে যদি মীরা ও ভেরোনিকা দু’জনেই গৌতমের সঙ্গে কোনও সম্পর্ক না রেখে নিজের জীবনে এগিয়ে যেত, বা অন্য যে-কোনও ভাবে যদি ছবিটি শেষ করা হত, তাহলে মনে হয় দর্শক অনেক বেশি খুশি হত

রব্বী-রুমি: মনমরজিয়াঁ

রব্বী এমন একজন পুরুষ, যাকে মোটামুটি সব ভারতীয় মেয়েরাই জীবনসঙ্গী হিসেবে চায়। বুঝলেন না? একজন দায়িত্ববান, ধৈর্যশীল, আন্ডারস্ট্যান্ডিং জীবনসঙ্গী তো আপনিও নিশ্চয়ই চান? রব্বী ঠিক সেরকমই একজন। তবে মনমরজিয়াঁ ছবির শেষে রব্বীর উচিত হয়নি তার স্ত্রীয়ের সঙ্গে থাকা। যে স্ত্রী এত ভাল একজন স্বামী থাকতেও তার প্রাক্তন বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে সম্পর্ক রাখে এবং ধরা পড়ার পরেও তার মধ্যে কোনও অনুশোচনা কাজ করে না, সরি, কিন্তু বলতে বাধ্য হচ্ছি; এই সম্পর্ক বেশিদিন চলবে না। (these bollywood movies could have ended in a better way)

নয়না-বানি: ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি

আমার মনে হয়, একা আমি না, আমার মত অনেকেরই মনে হয় যে নয়নার উচিতই হয়নি সিনেমার শেষ দৃশ্যে বানির প্রেমের প্রস্তাব মেনে নেওয়া। বানি এমন একটি চরিত্র যে শুধুমাত্র নিজের কথাই ভাবে। না, মানে নিজের ইচ্ছেকে প্রায়োরিটি দেওয়া ভাল, কিন্তু তার জন্য অন্য কেউ যদি কষ্ট পায়, তাহলে সেটা খুব একটা ভাল ব্যাপার কি?

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!       বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

30 Oct 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text