রিলেশনশিপ

পুরুষ সম্পর্কে এই বিষয়গুলি জেনে রাখলে আপনার রিলেশনশিপ ভাল থাকবে

Swaralipi BhattacharyyaSwaralipi Bhattacharyya  |  Aug 11, 2020
পুরুষ সম্পর্কে এই বিষয়গুলি জেনে রাখলে আপনার রিলেশনশিপ ভাল থাকবে

হেলদি রিলেশনশিপ। অনেকে মনে করেন, কথাটা যেন সোনার পাথরবাটি। সম্পর্কে (relationship) সমস্যা থাকবেই। যে কোনও সম্পর্কেই থাকে। বাবা, মায়ের সঙ্গে সন্তানের সম্পর্ক, বন্ধুত্বের সম্পর্ক, স্নেহের সম্পর্ক, প্রফেশনাল সম্পর্ক- সমস্যা সবেতেই থাকে। তাই দাম্পত্যে সমস্যা থাকলে, তা নিয়ে আলাদা করে টেনশনে কোনও কারণ নেই। বরং সেই সমস্যাকে দূরে সরিয়ে রেখে কীভাবে সুস্থ থাকা যায়, সে চেষ্টাই করা উচিত।

অনেকে বলেন, দাম্পত্য সম্পর্কে মহিলাদের দায়িত্ব অনেক বেশি। সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা, সম্পর্ককে সজীব রাখার ক্ষেত্রে নাকি মহিলারাই (woman) চালিকাশক্তি! না, এই যুক্তি আমাদের ঠিক বলে মনে হয় না। সম্পর্ক ভাল রাখতে গেলে দায়িত্ব দু-তরফেরই। কিন্তু আপনি যদি আপনার পার্টনার সম্পর্কে কয়েকটি বিষয় জেনে নেন, তাহলে সমস্যার মোকাবিলা করাটা সহজ।

পুরুষদের (men) মধ্যে সাধারণ কিছু বৈশিষ্ট্য থাকে। আপনার পার্টনারের মধ্যেও তার কয়েকটি থাকা অসম্ভব নয়। শুধু সেইগুলো জেনে নিতে পারলে, দেখবেন অনেক সমস্যা এড়িয়ে চলা যায়। অথবা সমস্যা হলেও তার সমাধানের রাস্তা আপনার জানা। প্রত্যেক মেয়ে শুধু পুরুষের সেই বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে অবগত থাকলেও সম্পর্ক অনেকটা সহজ হয়ে যায়।

সহজ সম্পর্ক পেতে এফর্ট দিতে হবে দুজনকেই। ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

১) আমাদের সমাজ এখনও পিতৃতান্ত্রিক। তার উপর নিউক্লিয়ার ফ্যামিলি কনসেপ্টও নতুন নয়। ফলে ছোট থেকেই ছেলেরা আলাদা ট্রিটমেন্ট পেয়ে অভ্যস্ত বেশিরভাগ পরিবারে। ব্যতিক্রম অবশ্যই রয়েছে। কিন্তু ছেলেদের এখনও মেয়েদের তুলনায় বহু পরিবারে আদর-যত্ন বেশিই হয়। এটা অস্বীকার করার উপায় নেই। তার উপর একমাত্র সন্তান হলে, ছোট থেকেই সব কিছু পেয়ে সে অভ্যস্ত। আপনার সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রেও যদি আপনার পার্টনার বেশি ডিমান্ডিং হন, বা তার সব কিছুতেই উদ্দেশ্য খোঁজেন তাহলে বুঝবেন, এর ীজ অনেক গভীর। ঝগড়া বা মনোমালিন্য তৈরি না করে ঠাণ্ডা মাথায় সমাধান করুন।

২) মেয়েরা যত সহজে নিজের দুর্বলতা প্রকাশ করতে পারে, নিজের দুর্বলতার কথা বলে, ছেলেরা কিন্তু নিজের দুর্বলতা সেভাবে প্রকাশ করে না। এরও মূল আমাদের সামাজিক চিন্তাভাবনার স্তর। ছেলেরা এখনও প্রকাশ্যে কাঁদতে পারে না অনেক সময়। কারণ সামাজিক গঠন ছেলেদের নিজেকে দুর্বল ভাবতে শেখায়নি। তার মানে এটা নয়, ছেলেদের দুর্বলতা বা কষ্ট নেই। আপনার পার্টনারও ব্যতিক্রম নন। তিনি হয়তো প্রকাশ করতে পারছেন না। সেক্ষেত্রে আপনাকেই ধৈর্য্য ধরে সমস্যা মেটাতে হবে।

৩) পুরুষ সব সময় জিতবে, জিততে চাইবে। ভারতীয় সমাজ এখনও এভাবেই ভাবতে বাধ্য করে। পুরুষ কখনও হারে না। হারতে পারে না। ফলে সম্পর্কে যে কোনও ইস্যুতে যদি মহিলা জিতে যায়, তাহলে অধিকাংশ পুরুষের ইগোতে লাগে। অন্তত পুরুষকে যদি এটা বোঝাতে পারেন, যে সেই জয়ী, তাহলে এমনিতেই মিটে যায় বহু সমস্যা।

প্রত্যেক সম্পর্ক ইউনিক। প্রত্যেক সম্পর্ক স্পেশ্যাল। আপনার পার্টনার এমন না হতেই পারেন। এটা কোনও ধ্রুব সত্যি নয়। তবে এক কোনওটা আবার মিলেও যেতে পারে। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!