Advertisement

নাইটলাইফ এবং ফুড

ফ্রান্স থেকে বেলজিয়াম: রিমঝিম বর্ষায় রেঁধে ফেলুন ইউরোপীয় স্টাইলের খিচুড়ি

Doyel BanerjeeDoyel Banerjee  |  Jul 31, 2019
ফ্রান্স থেকে বেলজিয়াম:  রিমঝিম বর্ষায় রেঁধে ফেলুন ইউরোপীয় স্টাইলের খিচুড়ি

Advertisement

বাঙালিরা ভাবেন, খিচুড়ি (khichdi) বুঝি শুধু তাঁরা একলাই রাঁধতে পারে? না, ভারতের অন্যান্য প্রদেশেও খিচুড়ি বা খিচড়া আছে। খাঁটি ইংরিজিতেও হচপচ (hochpoch) বলে একটা কথা আছে, সেটাও ভুলে গেলে চলবে না। এই এলুম, এই আসছি, না যাও আসব না করতে করতে ঝপাং করে বর্ষা (monsoon) এসে গেছে। আর বর্ষাকালে খিচুড়ির সঙ্গে ডিম ভাজা, ইলিশ মাছ ভাজা আর বেগুন ভাজা সাজিয়ে যদি কেউ আপনার সামনে ধরে…আহা মরে যাই, মরে যাই ব্যাপার এক্কেবারে! এখন কথা হচ্ছে গিয়ে এই বর্ষায় যদি খাস বিলিতি কায়দায় বা ইউরোপীয় স্টাইলে একটু খিচুড়ি রেঁধে খাওয়া যায় তাহলে মন্দ কী? তবে ইউরোপের হচপচ আর আমাদের খিচুড়ির কিছু তফাৎ আছে। আমরা খিচুড়ির ইংরিজি শব্দ হচপচ বললেও আছে। ওটাকে আমরা হচপচ বলি, কারণ সব একসঙ্গে মিশিয়ে রান্না হয়।  সাহেবরা অত গুরুপাক খাওয়া পছন্দ করে না। তাঁদের হচপচ মানে হল গিয়ে ওই নানা রকম সবজি আর মাংসের একটা ঘ্যাঁট গোছের!আমরা বুদ্ধি করে ওর মধ্যে চাল আর ডাল মিশিয়ে দিয়েছি। আর তার মধ্যেই একটু সোয়াদের সন্ধান করে আমরা কয়েকটা রেসিপিও খুঁজে এনেছি। দেখুন খেয়ে, কেমন লাগে! 

ডাচ বা হল্যান্ডের খিচুড়ি

pixabay

উপকরণ

এমনিতে খিচুড়ি রাঁধতে গেলে যা যা লাগে অর্থাৎ চাল, ডাল, তেল, নুন, আলু, অন্যান্য সবজি, তেজপাতা, হলুদ সবই লাগবে। ডাচরা হচপচে মাংস দেয়। সে চাইলে আপনিও পাঁঠার মাংসের কিমা দিতে পারেন। বাড়তি লাগবে ভুট্টা সেদ্ধ। এটা ডাচরা দেয়। সঙ্গে দেয় বড় মরিচের দানা। কারণ ডাচ খিচুড়িতে লঙ্কা গুঁড়ো ব্যবহার হবে না। মরিচের ঝালেই স্বাদ আসবে। 

পদ্ধতি

যেভাবে এর আগে খিচুড়ি করেছেন, মূল পদ্ধতি সেভাবেই হবে। অর্থাৎ সমান ডাল আর সমান চাল নিয়ে খিচুড়ি বসিয়ে দিন। তাতে আলু, গাজর ও বিনস দিয়ে দিন। খিচুড়ি যখন ফুটছে ভুট্টা সেদ্ধ মাখন দিয়ে নেড়ে ফুটন্ত খিচুড়ির মধ্যে দিয়ে দিন। পরে আর উপরে ঘি ছড়াবেন না। গতাহলে মাখনের স্বাদ বোঝা যাবে না। এবার খিচুড়ি নামানোর আগে মরিচের দানা সামান্য গুড়িয়ে উপরে ছড়িয়ে দিন। আপনার ডাচ খিচুড়ি রেডি। 

ফ্রান্সের হশেপট বা হটস্পট রেসিপি

pixabay

ফরাসিতে হশেপট কথাটার অর্থ হল জোরে জোরে ঝাঁকানো বা নাড়া। অর্থাৎ এই রান্নায় খুব করে হাতা চালিয়ে হাতাহাতি করতে হয়। এটা আসলে এক ধরনের স্ট্যু। নানা রকম সবজি দিয়ে এটা করা হয়। মাংসও দেওয়া হয়, তবে সেটা কম। এখন ফরাসি রান্না হল ওখানকার ভাষার মতোই সূক্ষ্ম এবং শৌখিন। আপনি কী খেলেন বোঝার আগেই সেটা দাঁতের ফাঁক দিয়ে আর জিভের ফোকর দিয়ে টুক করে গলে যাবে। 

উপকরণ

খিচুড়ির জন্য যা যা লাগবে নিয়ে নিন। তবে সবজিগুলো চিকেন স্টক দিয়ে নেড়ে নিন। এতে চিকেন না দিলেও চিকেনের স্বাদ আসবে। মনে রাখবেন এই জাতীয় খিচুড়ি হবে খুব পাতলা। সবজি থাকলেও তার পরিমাণ এত বেশি হবে না যাতে এই খাবার ভারি হয়ে যায়। 

পদ্ধতি

চাল ডাল মিশিয়ে খিচুড়ি যেভাবে করে সেইভাবেই করুন। এর মধ্যে চিকেন স্টকে ভাজা বা সেদ্ধ করা সবজি দিয়ে দিন। ফরাসিরাও খিচুড়িতে বা তাঁদের হশেপটে ঝাল দেন না। তাঁরা খিচুড়ি নামানোর আগে সর্ষের ফোড়ন দেন। সর্ষের একটা আলাদা ঝাঁঝ আছে, তাতেই স্বাদ আসে। 

বেলজিয়ামের খিচুড়ি বা ফ্লেমিশ হশেপট

বেলজিয়াম আর ফ্রান্সের দূরত্ব বেশি নয়। তাই রসগোল্লা নিয়ে যেমন উড়িষ্যা আর পশ্চিমবঙ্গ ঝগড়া করে এই হশেপটে নিয়েও তাই। বেলজিয়ামের লোকেরা বলে এটা আমাদের খাবার। নাক লম্বা ফরাসিরা বলে মোটেও না, এটা আমরা খাই। সে তাঁরা লড়াই করুক কে যাক।মোদ্দা কথা হল ফ্রান্স আর বেলজিয়ামের হশেপটে একই রকম খেতে হয় শুধু এই পদটি একটু ভারি হয়। অর্থাৎ একগাদা সবজি আগে থেকে সেদ্ধ করে চটকে সেটা খিচুড়িতে দিতে হবে। এটাই তফাৎ ব্যাস! 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!