home / রূপচর্চা ও বিউটি টিপস
স্কিন কেয়ারে এই পাঁচটি ভুল ধারনা থেকে নিজেকে মুক্তি দিন

স্কিন কেয়ারে এই পাঁচটি ভুল ধারনা থেকে নিজেকে মুক্তি দিন

মসৃণ, উজ্জ্বল, দাগ-ছোপহীন এবং তুলতুলে ত্বক পেতে কে না চায়, কিন্তু সব সময়ে যে সেটা সম্ভব হয়ে ওঠে না। ছোটবেলা থেকেই ত্বকের যত্ন এবং চুলের পরিচর্যা সম্বন্ধে নানা উপদেশ আমরা শুনে আসছি। এই ধ্যান ধারণাগুলির (time to break these 5 skin care myths) বীজ আমাদের মধ্যে আমাদের মা বপন করেছেন, মা-এর মধ্যে তাঁর মা, তাঁর মা-এর মধ্যে তাঁর মা… এভাবেই বংশ পরম্পরায় ব্যাপারটি এগিয়েছে। কিন্তু এই উপদেশগুলির মধ্যে ঠিক কতটা সত্যতা রয়েছে একবার যাচাই করে নিলে কেমন হয়?

ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে জল পান করা মাস্ট

এই ধারণাটি আপনি বহু বিউটিশিয়ানের কাছেও শুনে থাকবেন, বেশি করে জল খান ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকবে এবং ত্বকের কোনও সমস্যা হবে না। এটা সত্যি যে জল শরীরের টক্সিন বার করে দেয় ফলে ত্বকেরও নানা সমস্যা অনেকটাই কম দেখা যায়; কিন্তু তাঁর মানে এটা নয় যে আপনি দিন-রাত শুধুই জল খেতে থাকলেন! আর ত্বক ময়শ্চারাইজ করার জন্য বাপু আপনাকে ময়শ্চারাইজার বা লোশন কিছু একটা লাগাতেই হবে!

দাম বেশি হলেই প্রোডাক্টটি সেরা

এটি আদ্যন্ত একটি ভুল (time to break these 5 skin care myths) ধারণা! এক একটি প্রোডাক্ট এক এক ধরনের ত্বকের জন্য ভাল বা খারাপ। মনে করুন, আপনার ত্বক সংবেদনশীল এবং আপনি এমন একটি দামি প্রোডাক্ট ব্যবহার করলেন যাতে আপনার ত্বকের সংবেদনশীলতা আরও বেড়ে গেল, তা হলে কি আপনি সেই প্রোডাক্টটিকে ভাল বলবেন? আপনার ত্বকের ধরন অনুযায়ী প্রডাক্ট বাছুন। যদি কোনও নির্দিষ্ট উপাদান থেকে আপনার অ্যালার্জি হয়, তা হলে চেষ্টা করবেন এমন প্রোডাক্ট কিনতে, যেটিতে সেই উপাদানটি নেই।

ব্রণ কমাতে বার বার মুখ ধুতেই হবে

আরও একটা ভুল ধারণা! আপনার যদি অ্যাকনে বা ব্রণর সমস্যা থাকে সেক্ষেত্রে আপনি দিনে দু’তিন বার মুখ ধুতেই পারেন। কিন্তু তার বেশি মুখ ধুলে কিন্তু আপনার অ্যাকনে বা ব্রন-র সমস্যা বাড়বে বই কমবে না! কারণটা বুঝিয়ে বলি, যতবার আপনি মুখ ধোবেন, ততবারই আপনার ত্বকের প্রাকৃতিক তৈলাক্তভাব কমতে শুরু করে এবং আপনার ত্বকের ভিতরের তৈলগ্রন্থি থেকে তেল নিঃসৃত হতে থাকে। ফলে আপনার ত্বক আরও বেশি তেলতেলে হয়ে যায় যা অ্যাকনে এবং ব্রণ বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট।

বাইরের খাবার খেলেই অ্যাকনে হবে

এই কথাটিও আমি আমার কৈশোরে অনেকের কাছে শুনেছি। প্রথমদিকে ভয়ে ফুচকা, চুরমুর, চিপস, ভাজাভুজি কিছুই খেতাম না, কিন্তু বিশ্বাস করুন, পরে লোভ সামলাতে না পেরে এত খেয়েছি, কিন্তু কোনওদিন ব্রণ তো দূরের কথা, একটা ফুসকুড়িও বেরোয়নি! আপনার ত্বক যদি তৈলাক্ত হয় এবং শরীরের ভিতরে টক্সিন থাকে, তা হলে আপনি জাঙ্ক ফুড খান বা না খান, ব্রণ বেরোতেই পারে!

বাইরে না বেরোলে সানস্ক্রিন লাগানোর দরকার নেই

সত্যি? মানে, আপনার বাড়িতে বা যে ঘরে আবার যাতায়াত, সেখানে যদি সূর্যের আলো প্রবেশ না করে বা আপনি যদি অসূর্যমপশ্যা হন, তাহলে আপনি স্কিন কেয়ার রেজিমে (time to break these 5 skin care myths) সানস্ক্রিন স্কিপ করে যেতে পারেন। অন্যথায় নয়! দিনের বেলা আপনি বাড়ি থেকে বেরন বা না বেরন, চড়া রোদে হাঁটুন বা মেঘলা দিনে ছাদে ঘুরুন, ময়শ্চারাইজার লাগানোর আগে সানস্ক্রিন লাগানো মাস্ট।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!          

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

11 Mar 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text