home / পেরেন্টিং টিপস
হঠাত করে আপনার সদ্যজাতটি কেঁদে উঠলে মা হিসেবে আপনার প্রাথমিক কর্তব্য কী হওয়া উচিত

হঠাত করে আপনার সদ্যজাতটি কেঁদে উঠলে মা হিসেবে আপনার প্রাথমিক কর্তব্য কী হওয়া উচিত

মা হওয়ার অনুভূতি এমনই এক অনুভূতি, যা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। বলা হয়, সেদিনই একজন মায়ের জন্ম হয়ে যায় যেদিন নিজের শরীরের মধ্যে তিনি আরও একটি প্রাণের অস্তিত্ব বুঝতে পারেন। আর সন্তানও ভূমিষ্ঠ হওয়ার আগেই মায়ের সঙ্গে তার এক আত্মিক বন্ধন তৈরি হয়ে যায়। তার পরেও অনেক সময়েই সদ্যজাতকে সামলাতে নতুন মা হিমশিম খেয়ে যান। তার কারণ হল, হঠাত করে খুদেটির কেঁদে ওঠা। (tips for new moms to stop the newborn crying)

অনেক নতুন মা-ই হয়ত এই ঘটনার সঙ্গে সহমত পোষন করবেন। এমন অনেক সময়েই হয় যে আপনি হয়ত সবে একটু ঘুমিয়েছেন আপনার শিশুকে ঘুম পাড়িয়ে, হঠাত চিল চিৎকার করে আপনার পুঁচকেটি কেঁদে উঠল। আপনিও আধা-ঘুম আধা-জাগা অবস্থায় তাকে খাওয়াতে বসলেন। সে খেয়ে দেয়ে আবার হয়ত ঘুমিয়ে পড়ল। তবে এমনও অনেক সময়ে হয় যে খিদের জন্য না, অন্য নানা কারণে হঠাত করে শিশু কাঁদতে শুরু করে আর কিছুতেই তাকে থামানো হয় না।

হিসু-পটি বা খিদে পাওয়া বাদেও অনেক কারণ থাকতে পারে, যার জন্য সদ্যজাতরা মাঝেমধ্যেই কেঁদে ওঠে। আসলে একটি শিশু যেহেতু বলে নিজের সমস্যা ব্যক্ত করতে পারে না, কাজেই সে চিৎকার করে কেঁদেই মা বা অন্য সদস্যদের জানান দেয় যে সে কোনও সমস্যায় পড়েছে। অনেক সময়ে শরীরে কোনও অস্বস্তি আবার কোনও সময়ে হয়ত ভয় পেয়ে শিশু কাঁদে। এমন অবস্থায় শিশুর কান্না থামাতে মায়ের ভুমিকা কিন্তু অনেকটাই। (tips for new moms to stop the newborn crying)

অনেক সময়েই যারা নতুন মা হয়েছেন, তাঁরা সদ্যজাতকে কোলে নিতে ভয় পান; আবার অনেক সময়ে দেখা যায় বাচ্চা কাঁদছে বলে মা-ও প্রচন্ড পাজল্ড হয়ে গিয়ে পরিস্থিতি আরও বিগড়ে যায়। সবার প্রথমে মায়ের উচিত ভয় না পেয়ে এবং মাথা ঠান্ডা রেখে ঠিক কী কারণে তাঁর সন্তান কাঁদছে, সেটি খুঁজে বার করার চেষ্টা করা। জানি, কাজটা মোটেও সহজ না। তবে মা হতে গেলে কিছুটা কঠিন পরিস্থিতির সম্মুখীন তো হতেই হবে!

হঠাত করে সদ্যজাত কাঁদতে শুরু করলে মায়ের প্রাথমিক কর্তব্য কী কী হওয়া উচিত

১। সবার আগে আপনার সন্তানকে কোলে নিন এবং বুকের কাছে জড়িয়ে ধরুন। অনেক সময়ে বাচ্চারা ঘুমের মধ্যে ভয় পেয়ে যায় এবং চিৎকার করে কাঁদতে থাকে। কাজেই মায়ের প্রাথমিক কর্তব্য হল তাকে আস্বস্ত্ব করা যে সে সুরক্ষিত।

২। যদি তাতেও কান্না না থামে, সেক্ষেত্রে দেখুন যে সে হিসু বা পটি করে ফেলেছে কিনা। অনেক সময়েই এই সব করে ফেলে শিশু এবং অস্বস্ত্বি হয় বলে কাঁদে। যদি সেরকম কিছু হয়, তাহলে তার ন্যাপি ও পোশাক বদলে দিন। পারলে একটু পাউডার লাগিয়ে দিন। দেখবেন কান্না থেমে যাবে। (tips for new moms to stop the newborn crying)

৩। যদি উপরোক্ত কোনও ঘটনাই না ঘটে সেক্ষেত্রে শিশুর অবস্থান একটু পরিবর্তন করুন। যদি শিশু শোওয়া অবস্থায় থাকে তাহলে তাকে আলতো করে বসানোর চেষ্টা করুন। যদি আপনার খুদেটি এতটাই ছোট হয় যে বস্তে পারে না, তাহলে তাকে বুকে জড়িয়ে একটু হাঁটাহাঁটি করুন। আলতো করে মাথায় হাত বুলিয়ে ঘুম পাড়ানোর চেষ্টা করুন।

৪। শিশুকে স্পর্শ করুন। আমরা ভাবি ওরা ছোট, কিছু বোঝে না; কিন্তু প্রতিটি শিশুই আলাদা আলাদা স্পর্শ বোঝে। সারা দিনে শিশুকে অজস্রবার স্পর্শ করুন। এতে ও আপনার ছোঁয়া চিনবে। যদি অজানা কারণে কাঁদে, তাহলে আপনি স্পর্শ করলে আপনার ছোঁয়া চিনে আপনার সন্তান সুরক্ষিত বোধ করবে এবং শান্ত হবে।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

21 Oct 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text