home / Jewellery
ইয়ে তেরি চাঁদবালিয়াঁ… কেনার আগে এই টিপসগুলো পড়ে নিন

ইয়ে তেরি চাঁদবালিয়াঁ… কেনার আগে এই টিপসগুলো পড়ে নিন

নিজামদের আমল থেকে হায়দরাবাদে শুরু হয় মুক্তোর চাষ এবং তার হাত ধরে আসে মুক্তোবসানো গয়নার চল। হায়দরাবাদি চাঁদবালির (tips to buy various chandbaliyaan) বৈশিষ্টই হল মুক্তোর ঝালর! দুলটি যে ধাতুরই তৈরি হোক না কেন, তার নীচে মুক্তোর ঝালর থাকবেই। অনেক রকম ডিজাইনে তৈরি করা হত এই দুল, যার মধ্যে উল্লেখ্য হল, পাতা, ড্যাঙ্গল, স্পাইক, ফিলিগ্রি, ড্রপ, ঝুমর ইত্যাদি। তবে সবকটির তলাতেই দেওয়া থাকত মুক্তোর ঝালর। ইদানীং সেই ট্র্যাডিশনাল ডিজাইনে বৈচিত্র্য এসেছে, মুক্তোর ঝালরের পরিবর্তে বসানো হচ্ছে নানা সেমি প্রেশাস স্টোনের ঝালর। কিন্তু দুলের সৌন্দর্য আছে একই রকম! 

চাঁদবালির রকমফের

লং চাঁদবালি: প্রায় কাঁধ পর্যন্ত ঝোলানো এই চাঁদবালির বাহারই আলাদা! সনাতনী কাজের এই ধরনের দুলে সাধারণতই এখনও মুক্তো বা সেমি প্রেশাস স্টোনের ঝালর দেওয়া থাকে। তবে এই চাঁদবালির শেপ একটু আলাদা, লম্বাটে গোছের হয়।

ওভারসাইজড চাঁদবালি: ইয়া ব্বড়, গোল আকারের সনাতনী চাঁদবালি (tips to buy various chandbaliyaan), যা এককালে ছিল নিজামদের হারেমের একচেটিয়া ডিজাইন। আগে সোনা ছাড়া এই ধরনের চাঁদবালি তৈরিই করা হত না। কারণ, এত সূক্ষ্ম কারুকাজ এতে ফুটিয়ে তোলা যেত না। এখন অবশ্য ফাইবারের কাজেরও পাওয়া যায় এই দুল।

অক্সিডাইজড চাঁদবালি: যুগের এবং প্রয়োজনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চাঁদবালিও এখন তৈরি হচ্ছে সিলভার, সিলভার অ্যালয়, জার্মান সিলভার এবং অক্সিডাইজড-এ। আধুনিকাদের মধ্যে যথেষ্ট জনপ্রিয়ও হয়েছে তা। এই ধরনের চাঁদবালি নামী ডিজাইনার থেকে শুরু করে অনামী ফুটপাথের জাঙ্ক জুয়েলারির শপ, সকলেই তৈরি করেন ও স্টকে রাখেন!

ছোট্ট চাঁদবালি: এই দুল হচ্ছে সাবেকি চাঁদবালির সর্বাধুনিক সংস্করণ। ছোট্টর উপর চাঁদবালি এমন সুন্দরভাবে তৈরি করা হয়, যা পকেটসই, ওজনসই এবং সব সাজের সঙ্গে মানানসইও বটে!

চাঁদবালি কেনার আগে মনে রাখুন

  • কেনার আগে দেখে নিন, আপনি ঠিক কোন ঝুলের চাঁদবালির সঙ্গে কমফর্টেবল। ওভারসাইজড চাঁদবালি থেকে শুরু করে ছোট্ট চাঁদবালি, নানা সাইজে পাওয়া যায় এই দুলটি। আপনার সংগ্রহের অন্য ঝোলা দুল দিয়ে সাইজটা আন্দাজ করে নিন।
  • অন্য দুলের সাইজের চেয়ে চাঁদবালি একটু ছোট কিনবেন। কারণ, এর ডিজাইন অনেকটা ছড়ানো।
  • কোন পোশাকের সঙ্গে এবং কোন অনুষ্ঠানে চাঁদবালি পরবেন (tips to buy various chandbaliyaan), তার উপর নির্ভর করে দুলটির ডিজাইন বাছুন। যদি কোনও অফিসের অনুষ্ঠানে বা কলেজে পরে যান, তা হলে অক্সিডাইজডের চাঁদবালি কিনুন, যেটা একটু ছোট সাইজের, বেশি কারুকাজ না করা। বিয়ে বা অন্য কোনও জমকালো অনুষ্ঠানে পরার জন্য বড় সাইজের সোনালি ও ট্র্যাডিশনাল কাজের চাঁদবালি কিনতে পারেন।
  • যে চাঁদবালিতে কারুকাজ যত বেশি হবে, তার দাম তত বেশি হবে। বেশি দামের দু-একটা না কিনে মাঝারি দামের নানা ডিজাইনের চাঁদবালি কেনাই ভাল।
  • এই দুল (tips to buy various chandbaliyaan) সাধারণতই খুব ভারী হয়। তাই কেনার আগে কানে পরে দেখে নিন, তার ভার সহ্য করতে পারছেন কিনা। তবেই কিনুন।
  • অনলাইনে কিনলে, মেটেরিয়াল দেখে নেবেন। জার্মান সিলভার, রুপো বা সিলভার অ্যালয় দিয়ে তৈরি হলে বেশি বড় কিনবেন না। কারণ, তা ভারী হবেই। বরং ফাইবারের তৈরি চাঁদবালি কিনুন স্বচ্ছন্দে। তা সহজেই ক্যারি করতে পারবেন।

মূল ছবি সৌজন্য: ইনস্টাগ্রাম
ছবি সৌজন্য: অ্যামাজন ইন্ডিয়া
POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        
বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

07 Jul 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text