home / Perfumes
নিজের জন্য সঠিক ডিওডোরেন্ট বেছে নেবেন কীভাবে?

নিজের জন্য সঠিক ডিওডোরেন্ট বেছে নেবেন কীভাবে?

সময়টা শীতকাল হোক বা গ্রীষ্ম অথবা বর্ষা – সারাদিন সৌরভে মেতে থাকতে আমাদের সবারই ভাল লাগে। বাড়ি থেকে বেরনোর আগে, স্নানের পরে, এমনকি রাতে শুতে যাওয়ার আগেও অনেকেই পারফিউম বা ডিওডোরেন্ট মাখেন। তবে পারফিউম আর ডিওডোরেন্টের মধ্যে কিন্তু বিস্তর ফারাক! আসল ফারাকটা হল পারফিউম পোশাকের উপরে অথবা শরীরের পালস পয়েন্টগুলোতে লাগানো হয় আর ডিওডোরেন্ট শরীরেই লাগাতে হয়, তবে যেখানে বেশি ঘাম হয় সেখানে। (tips to choose the perfect deodorant for you)

বাজারে নানা রকমের নানা দামের নানা সুগন্ধের ডিওডোরেন্ট পাওয়া যায়, তবে কোন ডিওডোরেন্টটা আপনার জন্য সঠিক, সে বিষয়ে ভালভাবে জেনে তবেই কিন্তু এই সুগন্ধি কেনাটা ভাল। কোনও ডিওডোরেন্ট শুধুই সুগন্ধের জন্য ব্যবহার করা হয়, আবার কোনোটিতে রয়েছে অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল প্রপারটিস তো কোনওটি ত্বকের কোনও ক্ষতি না করেই সারাদিন সৌরভে মাতিয়ে রাখে।

ভাল ডিওডোরেন্ট চেনার উপায়

বাজারে নানা ব্র্যান্ডের নানা সুগন্ধের এবং নানা দামের ডিওডোরেন্ট পাওয়া যায়। কোন ডিওডোরেন্টটি আপনি কিনবেন তা ভেবে অনেকসময়েই নানা কনফিউশনও তৈরি হয়। কোনও একটা ডিওডোরেন্টের গন্ধ হয়ত খুব সুন্দর, কিন্তু তা আপনার ত্বকের জন্য ঠিক না; আবার কোনও ডিওডোরেন্ট হয়ত ঘাম কম হতে সাহায্য করে কিন্তু গন্ধটা ঠিক আপনার ভাল লাগলো না। ডিওডোরেন্ট কেনার আগে বেশ কয়েকটি বিষয় মাথায় রেখে যদি কেনেন, তাহলে আপনারই সুবিধে – (tips to choose the perfect deodorant for you)

মেয়েদের জন্য পারফিউম বা ডিওডোরেন্ট কেনার সময়ে মোটামুটি সবাই যে বিষয়টি প্রথমেই দেখে তা হল সুগন্ধ। কেউ খুব মিষ্টি গন্ধ পছন্দ করেন আবার কেউ পছন্দ করেন উগ্র গন্ধ। আপনি যে-রকম সুগন্ধ পছন্দ করেন সেরকম ডিওডোরেন্ট কিনুন।

তবে সবসময়ে যে নিজের পছন্দমতো সুগন্ধের ডিওডোরেন্ট আপনি ব্যবহার করতে পারবেন তা তো নাও হতে পারে। যদি আপনি এমন কোথাও কাজ করেন যেখানে অতিরিক্ত উগ্র সুগন্ধি মেখে আপনি অফিস যেতে পারবেন না, তাহলে তো উগ্র গন্ধের ডিওডোরেন্ট কেনার কোনও মানেই হয় না। আমাদের মতে সব সময়ে এমন সুগন্ধ বাছা উচিত যা আপনি সকালে বা বিকেলে অথবা মোটামুটি সব জায়গাতেই লাগিয়ে যেতে পারেন।

ডিওডোরেন্ট ব্যবহার করার মূল উদ্দেশ্যটি কী সে বিশয়টি মাথায় রেখেও কিন্তু প্রোডাক্ট বাছা উচিত। যদি আপনার খুব বেশি ঘাম হয় তাহলে অ্যান্টিপার্সপের‍্যান্ট ডিওডোরেন্ট বাছুন। এতে অ্যালুমিনিয়াম সল্ট থাকে যা শরীরের থেকে ঘাম শুষে নেয়। আবার যদি আপনার ত্বক খুব বেশি সংবেদনশীল হয় সেক্ষেত্রে বেশি কেমিক্যালযুক্ত ডিওডোরেন্ট না বেছে প্রাকৃতিক উপাদানে সমৃদ্ধ ডিওডোরেন্ট রোল-অন ব্যবহার করতে পারেন।

ডিওডোরেন্ট কেনার আগে সব সময়ে দেখে নেবেন যে কী কী উপকরণ দিয়ে প্রোডাক্টটি তৈরি করা হয়েছে। যদি কোনও একটি উপকরণেও আপনার অ্যালার্জি থাকে, তাহলে সেই ডিওডোরেন্টটি না কেনাই ভাল। (tips to choose the perfect deodorant for you)

ডিওডোরেন্ট লাগানোর সঠিক সময় কোনটি?

ডিওডোরেন্টের মূল কাজ হলো আপনার শরীরের থেকে ঘামের দুর্গন্ধ দূর করা এবং সারাদিন আপনাকে তরতাজা রাখা। তাই স্নান করার ঠিক পরেই ডিও লাগান। কখন ঘাম হবে, কখন তার থেকে দুর্গন্ধ বেরোবে, তার পর আপনি ডিওডোরেন্ট লাগাবেন – না প্লিস তার জন্য অপেক্ষা করবেন না।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

07 Oct 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text