home / ডি আই ওয়াই লাইফ হ্যাকস
রান্নায় ভুল করে বেশি নুন দিয়ে ফেলেছেন? সামাল দিতে এই উপায়গুলো মেনে চলুন

রান্নায় ভুল করে বেশি নুন দিয়ে ফেলেছেন? সামাল দিতে এই উপায়গুলো মেনে চলুন

হতেই পারে, ভুল মানুষ মাত্রে হতেই পারে। রোজকার ডাল-ভাত রান্না করতে-করতে মনের ভুলে আপনি রান্নায় একটু নুন (salt) বেশি দিতেই পারেন। তবে নুন হচ্ছে এমন একটি বস্তু যা কম হলে আপনি দিয়ে খেতে পারবেন, কিন্তু বেশি (excess) হয়ে গেলেই নুনে পোড়া হয়ে যায়। নুন বেশি দিলে রান্না (curry) পোড়ে না। পোড়ে আপনার মুখ। কত সাধ করে যত্ন করে রেঁধে সেই রান্না পরিবেশন করেন আপনি। সেটা যদি বেশি নুনের জন্য কেউ মুখেই তুলতে না পারে, তা হলে একটু তো কষ্ট হবেই। তবে চিন্তার কোনও কারণ নেই। সমস্যা হলে তার সমাধানও আছে। রান্নায় যদি হঠাৎ করে নুন বেশি হয়ে যায়, তা হলে কী করবেন সেটা বলে দিচ্ছি আমরা। 

১) কাঁচা আলু

pixabay

রান্না নামানোর আগে একটু চেখে যদি দেখেন তাতে নুন বেশি হয়ে গেছে, ঝটপট একটা আলু ধুয়ে খোসা ছাড়িয়ে রান্নায় দিয়ে দিন। এই বাড়তি আলু অতিরিক্ত নুন শুষে নেবে। মোটামুটি কুড়ি মিনিট মতো এই আলু রাখলেই হবে। তারপর প্রয়োজন হলে তুলে দেবেন, না হলে রেখে দেবেন। 

২) ময়দার বল

ছোট-ছোট আটা বা ময়দার বল তৈরি করে রান্নায় দিয়ে দিন। এই বলগুলো নুন শুষে নেবে। রান্না নামানোর আগে এই বলগুলো তুলে নিতে ভুলবেন না। 

৩) তাজা ক্রিম

এটা সব সময় যদিও হাতের কাছে থাকে না। তবু যদি ফ্রেশ ক্রিম বাড়িতে থাকে, তা হলে সেটা রান্নায় অল্প একটু মিশিয়ে দিন। এতে তরকারির গ্রেভি বা ঝোল ঘন হয়ে যাবে এবং বাড়তি নুনের স্বাদে সমতা আসবে এবং আপনি খাওয়ার সময় বুঝতে পারবেন না। 

৪) সেদ্ধ আলু

তরকারিতে যদি ইতিমধ্যেই আলু থাকে, তা হলে নুন বেশি হলে সেদ্ধ আলু দেওয়া সবচেয়ে ভাল। কারণ, বাড়তি আলু দিলে তরকারির পরিমাণ বেড়ে যাবে আর বেশি নুন তার মধ্যে মিশে যাবে। 

৫) টক দই

বাড়িতে আর কিছু থাক বা না থাক, টক দই থাকেই। অনেক গৃহিণীই রান্নায় দই ব্যবহার করেন। রান্না চেখে যদি বোঝেন নুন বেশি, তা হলে এক চা চামচ দই তাতে দিয়ে দিন। টক দইয়ের প্রভাবে বাড়তি নুনের প্রভাব কম হয়ে যাবে। 

৬) দুধ

pixabay

ফ্রেশ বা তাজা ক্রিম এবং টক দই দিয়ে যে নুনের পরিমাণ রান্নায় কম করা যায়, সেটা আগেই বলেছি। আর এই দুটো উপাদান দেখেই আপনি বুঝতে পেরেছেন যে, এটা যে জিনিস দিয়ে তৈরি হয় অর্থাৎ দুধ সেটা রান্নায় দিলেও নুন কমে। তাই নুন বেশি হলে অল্প একটু দুধ দিয়ে দিন। এতে নুন ব্যালেন্স হয়ে যাবে আর রান্নার স্বাদও বাড়বে।

৭) কাঁচা বা ভাজা পেঁয়াজ

pixabay

একটা কাঁচা পেঁয়াজ আন্দাজমতো কুচিয়ে রান্নায় দিয়ে দিন। হাতে সময় থাকলে আলাদা করে ভেজেও দিতে পারেন। এতে রান্নায় স্মোকি ফ্লেভার আসবে আর স্বাদও বাড়বে। নুনের পরিমাণও যে কমে আসবে সেটা বলাই বাহুল্য। 

৮) চিনি আর ভিনিগার

এটা একটা দারুণ টোটকা। অনেকটা বিষে বিষক্ষয়ের মতো! নোনতা স্বাদকে কাবু করতে এক চামচ চিনি আর এক চামচ ভিনিগার দিয়ে দিন। ভিনিগারের টক আর চিনির মিষ্টি স্বাদ নুনের স্বাদ কম করে দেবে। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!

27 Aug 2019
good points

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text