home / Diet
নিরামিষী? প্রোটিনের জন্য এই পাঁচটি খাবার খেতেই হবে

নিরামিষী? প্রোটিনের জন্য এই পাঁচটি খাবার খেতেই হবে

অফিসেই হোক কিংবা বন্ধুদের সাথেই হোক, কোনও পার্টিতে রিদ্ধিমা কিছুতেই যেতে চায়না। তার কারণ আর কিছুই না, রিদ্ধিমা নিরামিষ খায় আর ওর আশেপাশের লোকজন সেটা নিয়েই ওর সাথে মজা করে। ফলে বেচারির খাবার ইচ্ছেটাই চলে যায়। শুধু যে বাইরের লোক তা নয়, বাড়িতেও ওকে বারবার একটাই কথা শুনতে হয় যে নিরামিষ খেয়ে কি আর শরীরে পর্যাপ্ত পরিমানে প্রোটিন যায়? কিন্তু কে বোঝাবে বলুন যে শুধু অ্যানিমাল প্রোটিন না, গাছপালা থেকেও কিন্তু আমাদের শরীর যথেষ্ট পরিমানে protein পায়। এখানে বেশ কতগুলো এমন খাবারের হদিশ দিচ্ছি যা আপনার শরীরে প্রোটিনের অফুরন্ত যোগান দিয়ে যায়, আপনি যদি নিরামিষাশীও হন তাহলেও –

পিনাট বাটার

ওমেগা ৬, ফ্যাটি অ্যাসিড এবং ফাইবারে ভরপুর হল কাঠবাদাম এবং তা থেকে তৈরি পিনাট বাটার। প্রাকৃতিক উপায়ে শরীরে প্রোটিনে যোগানের জন্য কিন্তু একমুঠো বাদাম আপনি চিবোতেই পারেন। বিকেলের দিকে যখন একটু খিদে পায় তখন চপ-সিঙ্গারা না খেয়ে একটু বাদাম খেতে পারেন। এতে পেট ভরার সাথে সাথে এনার্জিও পাবেন। তবে হ্যাঁ, ১০ থেকে ২০ গ্রাম, তার বেশি বাদাম খেলে কিন্তু শরীরে ফ্যাট জমতে পারে।

কাঠ বাদাম

রোজ সকালে উঠে ৩ থেকে ৪টি ভেজানো আমন্ড খান, দেখবেন সারাদিন কেমন এনার্জি পান! তবে আপনি যদি আমন্ড দিয়েই ব্রেকফাস্ট সারতে চান তাহলে আগের দিন রাতে ১০টা আমন্ড ভিজিয়ে রেখে পরদিন সকালে খালি পেটে সেগুলি খেয়ে নিন। এতে কিন্তু আপনার অতিরিক্ত ওজনও কমবে। আর যেহেতু আমন্ড ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ই এবং ম্যাগ্নেশিয়ামে ভরপুর, কাজের ‘অ্যাকশন প্যাকড’ দিনের জন্য যতটা প্রোটিন এবং এনার্জির প্রয়োজন তা আপনি এর থেকেই পেয়ে যাবেন।

পেস্তা

অ্যামিনো অ্যাসিড, ওমেগা ৩ এবং ওমেগা ৬-এ সমৃদ্ধ পেস্তা শুধুমাত্র নিরামিষাশীদের জন্য না, যারা ভেগান তাঁদের জন্যও খুব ভালো একটি প্রোটিন সোর্স। আপনি চাইলে আমন্ডের বদলে সকালে উঠে কয়েকটা (খুব বেশি হলে ২০ টা) পেস্তা খেতে পারেন আবার সন্ধেবেলা খিদে পেলে ২০টা পেস্তা খেতে পারেন। এতে আপনার শরীরে এনার্জি তো থাকবেই তার সাথে হাই প্রোটিনের জন্য শরীরে ফ্যাটঅ জমবে না এবং ওজন বাড়বে না।

পনির

পনির খেতে ভালোবাসেননা এমন মানুষ খুব কমই আছে, হয়তো বা নেইও! যারা vegetarians তাঁদের মধ্যে অনেকেই কিন্তু শরীরে প্রোটিনের যোগানের জন্য পনিরের ওপরে নির্ভরশীল। পনির যে শুধু খেতেই সুস্বাদু তা নয়, পনির কিন্তু অতিরিক্ত ওজন কমাতেও সাহায্য করে, তবে হ্যাঁ সেক্ষেত্রে পরিমিত পরিমানে পনির খেতে হবে। মনে রাখবেন যেহেতু পনির একটা ভারী খাবার সেজন্য চেষ্টা করবেন দুপুরের খাবারে পনির খেতে, রাত্রে খেলে কিন্তু হজমে সমস্যা হতে পারে। 

টক দই

প্রতিদিনের খাবারে টক দই রাখুন। আমাদের শরীরে নানা হরমোন রিলিজ করে যার থেকে কিন্তু আমাদের ওজন বাড়ে এবং অল্পেতেই আমরা ক্লান্ত হয়ে পড়ি। সেরকমই একটা হরমোন হল কোরটিসল যা বেশি নিঃসৃত হলে আমাদের ওজন খুব বেড়ে যেতে পারে। টক দই যেহেতু প্রোটিনের একটা ভালো সোর্স এবং এই হরমোন তৈরি হতে দেয় না, কাজেই আপনার শরীরে অতিরিক্ত ওজনও বাড়ে না আবার প্রোটিনের ঘাটতিও হয় না।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

23 May 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text