লাইফস্টাইল

বাঙালি ছেলেরা কে কেমন জেনে নাও তাদের Zodiac Sign দেখে!

popadminpopadmin  |  Apr 12, 2019
বাঙালি ছেলেরা কে কেমন জেনে নাও তাদের Zodiac Sign দেখে!

সত্যিই কি এমনটা সম্ভব? হ্যাঁ সম্ভব। ! জ্যোতিষশাস্ত্র (astrology) অনুসারে প্রতিটি মানুষের চরিত্রের (characteristics) খুঁটিনাটি সম্পর্কে জেনে ফেলা সম্ভব, যদি তাদের জন্ম তারিখ (sun signs) জেনে নেওয়া যায়! বর্তমান যা পরিস্থিতি তাতে কোন ছেলের উপর ভরসা করা যায়, আর কাদের ধারে কাছেও ঘেঁষা উচিত নয়, সে সম্পর্কে জেনে নিলে বিশ্বাসভঙ্গের যন্ত্রণা যে আর পেতে হয় না, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না (Types of Bengali Boys according to Zodiac signs)!

রাশি এবং ছেলেদের চরিত্র:

বিশেষজ্ঞদের মতে আমাদের জীবনের প্রতিটা ছোট-বড় ঘটনার সঙ্গেই গ্রহ-নক্ষত্রের অবস্থান এবং রাশির (zodiac sign) একটা যোগ রয়েছে। তাই তো রাশি বিশ্লেষণ করে কোনও মানুষের পছন্দ-অপছন্দ সম্পর্কে যেমন জেনে ফেলা সম্ভব, তেমনি যে কোনও মানুষের চরিত্র সম্পর্কেও একটা ধারণা করে ফেলা যায়। আর অপেক্ষা কেন, চলুন রাশি অনুসারে কোন ছেলের চরিত্র কেমন, জেনে ফেলার চেষ্টা করা যাক…

১. মেষরাশি:

B-1
সবেতেই এরা সেরা, এমন ভাবনাকে আঁকড়ে ধরেই এরা বেঁচে থাকেন। তাই তো ভুল হোক কী ঠিক, কোনও ক্ষেত্রেই কারও সামনে মাথা নোয়ানো এদের ধাতে নেই। শুধু তাই নয়, নিজের মতো থাকতে এবং নিজের ভাবনাকে প্রাধান্য দিতেই মেষরাশির জাতকেরা বেশি পছন্দ করেন।

২. বৃষরাশি:

এরা মাটির মানুষ হন। শুধু তাই নয়, অন্যকে সাহায্য করার জন্য এরা মুখিয়ে থাকেন। এদের উপর চোখ বন্ধ করে ভরসা করতে পারেন। তবে এদের চরিত্রের দুটি খারাপ দিকও রয়েছে। এক তো এরা খুব একগুঁয়ে স্বভাবের হন, আর অন্যের উপর খুব বেশি মাত্রায় নির্ভরশীল হন (best zodiac sign for male)।

৩. মকররাশি:

B-3
এই রাশির ছেলেরা যে কোনও ক্ষেত্রেই খুব খুঁতখুঁতে হন। তাই তো সহজে এদের মন জয় করা সম্ভব নয়। তবে একবার কাউকে যদি এরা নিজের মনে করে ফেলেন, তাহলে তার জন্য যে কোনও মূল্য দিতে প্রস্তুত থাকেন। শুধু তাই নয়, এই রাশির মানুষরা বেজায় ভরসাযোগ্যও হন! সেই সঙ্গে এরা ধৈর্যশীলও বটে। সব মিলিয়ে মানুষ হিসেবে এরা বেশ ভালোই হন। তাই তো এমন মানুষের সঙ্গ পেলে নিজেকে ভাগ্যবান হিসেবে দাবী করতেই পারেন।

৪. তুলারাশি:

এরা বেজায় রোমান্টিক মানসিকতার হন। শুধু তাই নয়, নতুন নতুন মানুষের সঙ্গে মেলামেশা করতে এবং সবাই মিলে পার্টি করতে এরা সদা প্রস্তুত থাকেন। তবে তুলারাশির জাতক-জাতিকারা একসঙ্গে একাধিক মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক রাখতেও পিছপা হন না। তাই তো এদের উপর কতটা ভরসা রাখা যেতে পারে, তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়।

৫. বৃশ্চিকরাশি:

B-5
এরা অল্পতে একেবারেই খুশি হন না। তাই তো কেরিয়ার হোক কী জীবন, সবক্ষেত্রেই আরও বেশি করে কীভাবে সব কিছু পাওয়া যায়, সেই চিন্তায় এরা সারাক্ষণ মগ্ন থাকেন। শুধু তাই নয়, এরা কোনও মানুষের সম্পর্কে এ-টু-জেড না জেনে একেবারেই নিজের মনের কথা বলতে চান না। তাই তো এই রাশির জাতকেরা কী ভাবছে, কীই বা করতে চলেছে, সে সম্পর্কে আগে থেকে কারও পক্ষেই জেনে ওঠা সম্ভব হয় না। তবে এখানেই শেষ নয়, বৃশ্চিক রাশির ছেলেরা বেশ সাহসী হন। তাই তো যে কোনও বাধা পেরিয়ে জীবনের পথে এগিয়ে যেতে এরা দুবারও ভাবেন না।

৬. মিথুনরাশি:

এরা বেজায় অ্যাডভেঞ্চার প্রেমী হন। তবে অল্পতেই এদের মন কোনও কিছু থেকে উঠে যায়। তাই এরা কোন সময় কোন জিনিসটা পছন্দ করবেন, সে সম্পর্কে জেনে ওঠা বেজায় কঠিন কাজ। ধরুন মিথুনরাশির কোনও ছেলের আজ চকলেট আইসক্রিম খেতে পছন্দ করেন। তাই বলে কালও যে তার পছন্দটা একই থাকবে, এমনটা নাও হতে পারে। তাই তো এদের উপর চোখ বুজে ভরসা না করাই ভালো।

৭. কর্কটরাশি:

B-7
এরা খুব সরল মনের হন। সেই সঙ্গে এরা বেজায় ভরসাযোগ্যও বটে। তাই তো এমন মানুষের উপর বিশ্বাস রাখা যেতেই পারে। তবে এরা অল্পতেই দুঃখ পেয়ে যান। শুধু তাই নয়, একবার কোনও মানুষকে এরা ভালোবেসে ফেললে মন প্রাণ দিয়ে সেই সম্পর্কে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। আর সবথেকে বড় কথা হল এদের কাছে পরিবারই সব কিছু।

৮. কন্যারাশি:

এদের মনে যা, তাই মুখে। অর্থাৎ ঘুরিয়ে পেঁচিয়ে কথা বলতে এরা একেবারেই পছন্দ করেন না। তাই তো এমন মানুষের উপর ভরসা রাখা যেতেই পারে। তবে এরা যেহেতু সত্যি কথা মুখের উপরে বলে দেন, তাই এই একটা বিষয়ে নিজেকে সব সময় প্রস্তুত রাখতে হবে কিন্তু!

৯. ধনুরাশি:

B-9
মানুষ হিসেবে এরা বেশ ভালোই হয়। তবে খারাপ দিকটা হল এই রাশির জাতকেরা নিজেকে সেরা ভাবতে খুব পছন্দ করেন। সেই সঙ্গে বেশ বদরাগীও হন। এক কথায় এমন মানুষকে সামলানো একটু কঠিন কাজ !

১০. মীনরাশি:

এরা মাটির মানুষ হন। শুধু তাই নয়, ছোট ছোট বিষয়েই এরা এতটাই খুশি হয়ে যান যে দুঃখে সহজে এদের ধার কাছে ঘেঁষতে পারে না। তাই মনকে নিমেষে যদি চাঙ্গা করতে হয়, তাহলে মীনরাশির কোনও জাতকের সঙ্গে কিছু সময় গল্প করুন, দেখবেন ফল পাবেই পাবেন! তবে এদের চরিত্রের একটাই খারাপ দিক রয়েছে, আর তা হল এমন মানুষেরা নিজেদের জীবন নিয়ে বা কেরিয়ার নিয়ে খুব একটা সিরিয়াস হন না। ফলে কর্মক্ষেত্রে উন্নতি লাভ করতে এদের অনেক সময় লেগে যায়।

১১. কুম্ভরাশি:

B-11
যে কোনও মানুষকে সাহায্য করতে এরা সদা প্রস্তুত থাকেন। শুধু তাই নয়, এদের কমিউনিকেশন স্কিল এতটাই ভালো হয় যে সামাজিক এবং কর্মজীবনে এরা বেশ সম্মানের অধিকারী হন। তবে এদের চরিত্রের একটাই খারাপ দিক রয়েছে, তা হল একটা জিনিসে মন দিয়ে এরা বেশি দিন করতে চান না। আর এই কারণে সম্পর্ক হোক কী কর্মজীবন, সবেতেই নানাবিধ বাধা আসার আশঙ্কা থাকে।

১২. সিংহরাশি:

এরা টার্গেট সেট করে সেই লক্ষ্যের দিকে কীভাবে এগিয়ে যাওয়া যায়, সেই নিয়েই সারাক্ষণ ভাবেন। এদের কাছে সফলতাই শেষ কথা। শুধু তাই নয়, লাইম লাইটে থাকতে এরা বেজায় পছন্দ করেন। শুধু তাই নয়, এরা অন্যের কথা শুনতে একেবারেই পছন্দ করে না। আর যে মানুষ শুধু নিজেকে নিয়েই সারাক্ষণ ভাবেন, তার সঙ্গে কোনও সম্পর্কে জড়ানোটা যে একেবারেই উচিত নয়, তা কি বলার অপেক্ষা রাখে।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!