home / বলিউড ও বিনোদন
বলিউডের এই কাল্পনিক চরিত্ররা বোকামিতে স্বর্ণপদক পেয়েছে!

বলিউডের এই কাল্পনিক চরিত্ররা বোকামিতে স্বর্ণপদক পেয়েছে!

মানুষের ধর্মই হল ভুলে যাওয়া। আর মানুষ সবচেয়ে বেশি ভুলে যায় অতীত। কারণ অতীত তাঁকে ঘাড় ধরে দেখিয়ে দেয় যে এখন তুমি হনু হয়েছ বটে কিন্তু আগে তুমি এইটা ছিলে। আর সেটা মেনে নিতে খুব কষ্ট হয়। বলিউডের ক্ষেত্রেও ঠিক তাই হয়েছে। এখন কত অন্যরকমের ছবি হচ্ছে, কনটেন্ট নিয়ে কত গবেষণা হচ্ছে, স্টার নয় গল্পই শেষ কথা বলছে হ্যান-ত্যান এই সব। আমরা তুলে ধরছি সেই আগের বলিউডের  ছবির কথা। সেই সব ছবির কথা হয়তো এখন আর আপনার মনে নেই। সেই সব ছবির নায়ক সবেতেই প্রথম হয়, নায়িকা বাজারে যায় মাথা নিচু করে, নায়িকার বাবা হন চূড়ান্ত আদর্শবাদী আর নায়কের মা কেঁদেই আকুল হয়ে যান! সত্যি, এরকম দিনও বলিউডে এসেছে। আমরা তাই খুঁজে পেতে নিয়ে এসেছি এমন কয়েকটি চরিত্র যাঁরা বোকামিতে (way too much dumb characters in Bollywood films) যাকে বলে ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট হয়েছেন।

ম্যাডাম তানি – রব নে বনা দি জোড়ি

বোকাবিবি

অনুষ্কা শর্মা আকা তানি

বোকামির বিবরণ

সারাক্ষণ আমসির মতো মুখ করে থাকা। কেন? না তাঁর বর পছন্দ হয়নি। ভাল কথা। যেই নাচের প্রতিযোগিতা হল, অমনই মনে এক টন দুঃখ নিয়েও দাঁত কেলিয়ে ধেই নেত্য করতে চলে গেল। বর গোঁফ কেটে এসে প্রেমিক হয়ে গেল। আর উনি চিনতেই পারলেন না! বোকা না ন্যাকা, না তানির চোখে ছানি কে জানে বাবা!

বীরভদ্র বাবু – খুশি

বোকাবাবু

অমরীশ পুরী আকা বীরভদ্র

বোকামির বিবরণ

সাইকো, পুরো সাইকো বাবা! একে তো এই সিনেমাটা দেখলে করিনার গায়ে জলবিছুটি ঘষে দিতে ইচ্ছে করে। উনোর মধ্যে ধুনো দিতে হাজির তাঁর বাবা বীরভদ্র (way too much dumb characters in Bollywood films)। নাম সার্থক করে তিনি একটু বেশিই ভদ্র। মানে মেয়েকে একটু বেশিই ভালবাসেন। ডাক্তার পরীক্ষা করার জন্য রক্ত নিলে বলেন, রক্ত ফেরত দিতে! বিশ্বপাকা মেয়ে যখন বাবার সই জাল করে তখন তিনি ভুঁড়ি ভাসিয়ে হেসে-হেসে বলেন দুষ্টু চোর কোথাকার!

এ সি পি জয় দীক্ষিত – ধুম ফ্র্যাঞ্চাইজি

বোকাবাবু

অভিষেক বচ্চন আকা পুলিশ অফিসার জয় দীক্ষিত

বোকামির বিবরণ

কোনও চোর ধরতে পারে না। গোমড়া মুখে ঘুরে বেড়ায় যেন সব জানে! কেন বাপু, পুলিশরা কি হাসে না? দেখে মনে হয় এসিপি প্রদ্যুম্নের নাতজামাই! এ কি পুলিশ না ফুলিশ!

প্রতিটি চরিত্র – ম্যায় প্রেম কি দিওয়ানি হু

বোকাবাবু ও বোকাবিবি

সবাই! হ্যাঁ, ঠিক পড়েছেন।

বোকামির বিবরণ

পরিচালক বোধ হয় আগেই সবাইকে শাসিয়ে রেখেছিলেন যে ওভার অ্যাকটিং না করলে প্রযোজককে বলে টাকা আটকে দেব! তাই সবাই প্রাণপণে অতি অভিনয় করে গিয়েছেন। করিনা যে বাবলি আর হাবলি সেটা বোঝাতে নাচন কোঁদন আর মুখভঙ্গি করে গেছেন। হৃতিক রোশন আমি যে আমি নই সেটা প্রমাণ করেছেন! আর অভিষেক যে কি করেছেন, সেটা উনি নিজেও জানেন না। (way too much dumb characters in Bollywood films) আর সব্বাইকে ছক্কা মেরে বেরিয়ে গেছেন করিনার মা হিমানী শিবপুরী আকা সুশিলা। যিনি মন ভাঙা মেয়েকে জিগ্যেস করেছেন, ‘তোরা কি শুধু প্রেমই করেছিস নাকি ইয়েও করেছিস?” মেয়ে ইয়ে করেনি শুনে মায়ের নিশ্চিন্ত হয়ে প্রশ্ন ‘তা হলে প্রবলেমটা কী?”

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!   

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

24 Feb 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text