home / বিবাহ
বিয়ের কার্ড ছাপানোর আগে এই কয়েকটি টিপস খেয়াল রাখুন

বিয়ের কার্ড ছাপানোর আগে এই কয়েকটি টিপস খেয়াল রাখুন

এক সময় পরিবারে বিবাহের আনন্দ যেরকম ছিল, আজ কোনও পরিবারের কাছে বিবাহ অনুষ্ঠানের সংজ্ঞাই বদলে গিয়েছে। এখন বিবাহ মানে কোনও যুগলের কাছে অনেক বেশি তাঁদের সম্পর্কের উদযাপন। কয়েকটা মুহূর্ত সুন্দর করে গুছিয়ে রাখা। তাই বিয়ের অনেক আগে থেকেই প্ল্য়ানিং শুরু হয়ে যায়। পুরনো সময়ের মতো একমাসের মধ্য়েই বিয়ের প্রস্তুতি হয় না। তাই বিয়ের কার্ড (wedding invitation card) নিয়েও অনেক প্ল্য়ানিং থাকে। তবে হিন্দু ধর্ম অনুযায়ী বিবাহ এক শুভ বিষয়। বিয়ের কার্ড (wedding invitation card) হল সেই শুভারম্ভ। তাই বিয়ের কার্ড তৈরি করার সময় কার্ডের সৌন্দর্যে তো গুরুত্ব দেবেনই, সঙ্গে কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখবেন। বিয়ের কার্ড নিয়ে বেশ কয়েকটি পরামর্শ রইল আপনার জন্য়।

কার্ড (wedding invitation card) চৌকো হলেই দেখতে ভাল লাগে

নানা আকারের আধুনিক কার্ডের প্রচলন দেখা যাচ্ছে। যেমন গোলাকার, ত্রিকোণ ইত্যাদি। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা, আয়তাকার কার্ড তৈরির পরামর্শ দিচ্ছেন। তাঁদের মতে, অন্য আকার নতুন বর-বউয়ের জীবনে জটিলতা আনতে পারে। বিশেষ করে ত্রিকোণাকার কার্ড করতে একেবারেই বারণ করছেন তাঁরা। তবে আয়তকার কার্ডের মধ্য়েও আপনি নানা রকম ডিজাইন পাবেন। সেই ডিজাইন অনুযায়ী কার্ড তৈরি করুন। কার্ড (wedding invitation card) তো চৌকো হলেই দেখতে ভাল লাগে।

পাত্র-পাত্রীর ছবির বদলে কার্টুন ব্যবহার করতে পারেন

অনেকেই কার্ড ছাপাতে দেওয়ার আগে সম্পূর্ণ কার্ডের ডিজাইন ডিজিটাল মাধ্যমে তৈরি করে নেন। সেটা আপনিও করতে পারেন। তবে কার্ডে পাত্র পাত্রীর প্রি ওয়েডিং শুটের ছবি দেওয়া হচ্ছে। এতে বিয়ের কার্ডের আসল সৌন্দর্যও নষ্ট হয়। তার সঙ্গে বিশেষজ্ঞরাও পাত্র পাত্রীর ছবি ব্যবহার করতে বারণ করছেন। এর পরিবর্তে আপনি ক্রিয়েটিভ কার্টুন ব্যবহার করতে পারেন। সেই ভাবেই বিয়ের কার্ড ডিজাইন করুন। দেখতে ভাল লাগবে।

কার্ডের রং

বিয়ের কার্ড লাল ও মেরুন রঙের হলেই দেখতে ভাল লাগে। কোনওরকম ধূসর রং কার্ডে ব্যবহার না কড়াই ভাল। বিশেষ করে কালো ও ছাই রং একেবারেই ব্রাত্য বিয়ের কার্ডে। কারণ এই রং পরবর্তীকালে বৈবাহিক জীবনে সমস্যার সৃষ্টি করবে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। এছাড়াও উজ্জ্বল রং দেখতে ভাল লাগে। তাই উজ্জ্বল রং বেছে নেওয়াই ভাল। বিয়ের কার্ডের ক্ষেত্রে সবচেয়ে ভাল রং হল যে-কোনও উজ্জ্বল ও ঘন রং। লাল, নীল, মেরুন রং বেছে নিতে পারেন। এখন অনেকে সোনালি রঙের কার্ডও করছেন।

বিয়ের কার্ডে (wedding invitation card) দেবতার ছবি?

বিশ্বাস করুন, খুব খারাপ দেখায়। বোঝা যায় না, পুজোর নিমন্ত্রণ পাঠানো হয়েছে না কি বিয়ের নিমন্ত্রণ। তবে অনেকেই চান, তাঁদের ছেলেমেয়ের বিবাহ জীবন শুরু করুক দেবতার আশীর্বাদ নিয়ে। তাই তাঁরা বিয়ের কার্ডে (wedding invitation card) দেবতার ছবি দেন। কিন্তু আপনাকে সাবধান থাকতে হবে এই বিষয়ে যে আপনি কোন দেবতার ছবি দিচ্ছেন এবং তাঁর কীরকম অবস্থার ছবি দিচ্ছেন।

বিয়ের কার্ড ডিসেন্ট হলেই ভাল লাগে

আসলে ছিমছাম ও সুন্দর বিয়ের কার্ডই ভাল লাগে। বিয়ের কার্ড ডিসেন্ট লুক বেশ আকর্ষণীয়। সঙ্গে কোনও বিশেষ কবিতার কয়েক লাইন থাকতে পারে। সম্পূর্ণ ইংরেজি বা বাংলায় বিয়ের কার্ডের লেখা ছাপতে পারেন। কোনও সুন্দর আঁকাও থাকতে পারে বিয়ের কার্ডে। তবে খুব জমকালো না হওয়াই ভাল। বিয়ের কার্ডে আপনি বিয়ের কার্ডে (wedding invitation card) চন্দন, গোলাপ ও জুঁইয়ের সুগন্ধে মাখা কাগজ ব্যবহার করতে পারেন। এই ফুলের গন্ধ সব রকমের অশুভ শক্তির বিনাশ করে বলেও মনে করা হয়।

মূল ছবি – ইনস্টাগ্রাম

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজিহিন্দিমারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

29 Jul 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text