home / মেকআপ ট্রেন্ড ও আইডিয়া
ডলফিন স্কিন কীভাবে পাবেন? জেনে নিন মেকআপ হ্যাকস!

ডলফিন স্কিন কীভাবে পাবেন? জেনে নিন মেকআপ হ্যাকস!

এই দশকে বিউটি ট্রেন্ড কিন্তু বেশ অন্য়রকম। সত্য়ি বলতে আমরা সবাই কম বেশি সেই ট্রেন্ড মেনে চলতে চাই। ট্রেন্ড সম্বন্ধে ওয়াকিবহাল থাকতে চাই। ট্রেন্ডসেটর সবাই হতে পারি না, সে কথা ঠিকই। কিন্তু একটা ট্রেন্ডকে ভালবেসে আপনা করে নিতে সমস্যা কোথায়? কিন্তু সব ট্রেন্ডকে চোখ বন্ধ করে ফলো করতে হবে এমন নয়। কোন কোন ট্রেন্ড আপনার পছন্দ হবে, সেই হিসেব করেও আপনি চলতে পারেন। কোনও ট্রেন্ডকে নিজের মতো করে আপন করে নিতে পারেন। এই মুহূর্তে মেকআপের ক্ষেত্রে পৃথিবী জুড়ে যা ট্রেন্ডিং, তা হল ‘ডলফিন স্কিন’ (dolphin skin)। ইতিমধ্যেই অনেকে ডলফিন স্কিনের বিষয়টি জানেন। যাঁরা মেকআপ করেন বা মেকআপের ট্রেন্ড সম্বন্ধে যথেষ্ট ওয়াকিবহাল তাঁরাও এই ডলফিন স্কিন-এর বিষয়ে জানেন।

ডলফিন স্কিন (dolphin skin) কী?

‘ডলফিন স্কিন’ (dolphin skin)। ট্রেন্ডের অর্থ হল মসৃণ ত্বক অর্থাৎ তেলতেলে আর্দ্র ত্বক। মার্কিন মেকআপ শিল্পী ম্যারি ফিলিপ্স ‘ডলফিন স্কিন’ ট্রেন্ড শুরু করেন। কিম কার্দাশিয়ান, কেনডাল জেনার, বেলা হাদিদের মতো আন্তর্জাতিক শিল্পীর মেকআপ করেন তিনি। ‘ডলফিন স্কিন’-এর আসল কথা হল, সমুদ্র বা সুইমিং পুল থেকে সবেমাত্র ওঠার পর ত্বক যে অবস্থায় থাকে, মেকআপের মাধ্যমে সেই এফেক্ট দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। কীভাবে এই মেকআপ আপনি নিজেই করবেন, সে বিষয়ে সাধারণ কিছু পরামর্শ দেওয়ার চেষ্টা করলাম আমরা।

ডলফিন স্কিন মেকআপ কীভাবে করবেন আপনি?

ক্লিনজিং ও ময়শ্চারাইজ – যে কোনও লুক ট্রাই করার আগে ত্বক ভাল রাখার প্রাথমিক নিয়ম আপনাকে মেনে চলতেই হবে। ক্লিনজার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন। আপনার ত্বকের উপযুক্ত ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। ত্বক চকচকে করে তোলার জন্য যে কোনও ভাল ফেস অয়েলও ব্যবহার করতে পারেন (dolphin skin) ।

লিকুইড ফাউন্ডেশন – মেকআপ করতে গেলে ফাউন্ডেশন তো নিশ্চয়ই ব্যবহার করেন। এর ব্যবহার সম্পর্কেও আপনারা জানেন। ডলফিন স্কিন-এর জন্য লিকুইড ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন। ত্বকের মসৃণ উজ্জ্বলতা চাইলে যে কোনও প্রোডাক্ট সম্ভব হলে লিকুইড ফর্মে ব্যবহার করুন। ভাল ফল পাবেন। ইলুমিনেটিং ক্রিম (dolphin skin) বা স্ট্রবিং ক্রিমও ব্যবহার করতে পারেন।

চিক টিন্ট – ‘ডলফিন স্কিন’ লুকের জন্য হাই শাইন লিকুইড প্রোডাক্ট প্রয়োজন। মেকআপ কেনার সময় সেভাবেই কিনবেন। ফাউন্ডেশন ব্লেন্ড করে দেওয়ার পর লাল ঘেঁষা ব্লাশের শেড গালে অ্যাপ্লাই করুন।

হাইলাইটার– নাকের উপর, দুই ভুরুর মাঝখানে, ভুরুর নীচে আইশ্যাডোর উপর, গাল এবং চিবুকে অল্প পরিমাণে হাইলাইটার ব্যবহার করতে হবে। কিন্তু প্রয়োজনের থেকে বেশি হাইলাইটার আপনার সাজকে বিকৃত করে দিতে পারে। আরও বেশি উজ্জ্বল ত্বকের জন্য মেকআপের একেবারে শেষে আরও একটু হাইলাইটার নিয়ে গালে বুলিয়ে নিন।

মেকআপ সেটিং স্প্রে – ডিউই মেকআপ সেটিং স্প্রে (dolphin skin) ব্যবহার করবেন।

মূল ছবি – ইনস্টাগ্রাম

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজিহিন্দিমারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

03 Aug 2021

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text