home / ওয়েলনেস
দাঁত ও মাড়ির যত্নে ব্রাশের পর করুন মাউথওয়াশ

দাঁত ও মাড়ির যত্নে ব্রাশের পর করুন মাউথওয়াশ

সকালে উঠে আর রাতে শোওয়ার আগে দাঁত মেজে শুতে হয় (why you need to use mouthwash after brushing teeth), ছোটবেলা থেকে এটাই আমাদের সবাইকে শেখানো হয়েছে। আমরা সক্কাল-সক্কাল ঘুম থেকে উঠে তো সকলেই দাঁত মাজি এবং রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগেও দাঁত মাজি। কিন্তু তারপরও অনেক সময়েই অনেকরকম দাঁতের সমস্যা দেখা দেয়। কখনও মাড়ি ফুলে যায়, কারও আবার কখনও হয়ত দাঁতের গোড়া থেকে রক্তপাত হয়, কখনও বা দাঁতে ব্যথা হয়। প্রতিদিন দু’বার করে দাঁত মাজার পরেও এমন সমস্যা কেন হয় বলতে পারেন? কারণ, শুধু দাঁত মাজাই যথেষ্ট নয়, মুখের ভিতরের অংশ সুস্থ রাখার জন্য চাই আরও বেশি কিছু। আর সেই কাজটিই করে মাউথওয়াশ। কীভাবে? জেনে নিন এই প্রতিবেদনে।

মাড়ি সুস্থ রাখতে মাউথওয়াশ কাজে লাগান

দাঁত মাজার পর মাউথওয়াশ দিয়ে কুলকুচি করতে ভুলবেন না

মাউথওয়াশের উপকরণগুলির মধ্যে একটি হল ফ্লুওরাইড যা মাড়ি সুস্থ রাখতে (why you need to use mouthwash after brushing teeth) এবং দাঁতের এনামেলের যত্ন নিতে সক্ষম। অনেকেরই মাড়িতে নানা সমস্যা থাকে যেমন রক্তপাত বা মাড়ি ফুলে যাওয়া ইত্যাদি। ফ্লুওরাইড এই সব সমস্যা সমাধান করতে সাহায্য করে। এছাড়া দাঁতের এনামেল যদি ঠিক না থাকে বা দুর্বল হয়, তা হলে দাঁত পড়ে যাওয়া অথবা ভেঙে যাওয়ার মতো সমস্যাও দেখা যায়। ফ্লুওরাইড দাঁতের এনামেল মজবুত করতে সাহায্য করে। নিয়মিত মাউথওয়াশ দিয়ে যদি আপনি কুলকুচি করেন, তা হলে মুখের ভিতরের অংশ সুস্থ থাকবে এবং তার সঙ্গেই সুস্থ থাকবে আপনার দাঁত ও মাড়িও।

দাঁতের ফাঁকের প্লাক দূর করতে সাহায্য করে মাউথওয়াশ

কখনও খেয়াল করেছেন, দাঁতের ফাঁকে-ফাঁকে একটা লেয়ার বা আস্তরণ পড়ে যায় আমাদের! আমরা যখন খাবার খাই বা কিছু পান করি, তখন যতই জল দিয়ে কুলকুচি করি না কেন, খাবার বা পানীয়ের কিছু অংশ আমাদের দাঁতের গোড়ায় লেগেই থাকে। আর প্রতিদিন সামান্য পরিমাণে হলেও এটি বাড়তে থাকে এবং পরে তা মাড়ি এবং দাঁতের গোড়ায় গিয়ে জমতে-জমতে একটা আস্তরণ তৈরি হয়। একেই প্লাক বলা হয়। দাঁতের বা মাড়ির সব জায়গায় টুথব্রাশ পৌঁছয় না। ফলে এই প্লাকও দূর হয় না যতই আপনি দাঁত মাজুন না কেন! কিন্তু মাউথওয়াশ দিয়ে কুলকুচি করলে এই সমস্যা হয় না। কারণ, এই তরল মুখের ভিতরে সব জায়গায় পৌঁছয় এবং প্লাক জমতে দেয় না।

মুখের প্রতিটি কোনা পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে মাউথওয়াশ

আগেই বলেছি মাউথওয়াশ মুখের ভিতরের প্রতিটি কোণে পৌঁছে মুখ পরিষ্কার করতে সক্ষম। কারণ, এটি জলের মতোই তরল। বিশেষজ্ঞদের মতে, আমাদের মুখের ভিতরে প্রায় ১০ মিলিয়ন জীবাণু থাকে যা খুব দ্রুত বৃদ্ধি পেতে পারে এবং অনায়াসে প্রায় ৫০ মিলিয়নে পৌঁছে যেতে পারে! হ্যাঁ, শুনতে অবাক লাগলেও এই তথ্য কিন্তু সত্যি। মাউথওয়াশ মুখের প্রতিটি কোণ দারুণভাবে পরিষ্কার করে এবং জীবাণুমুক্ত করে, যা ব্রাশ করে করা সম্ভব নয়।

কিন্তু তা বলে দাঁত মাজা বন্ধ করে শুধুই মাউথওয়াশ (why you need to use mouthwash after brushing teeth) ব্যবহার করবেন তা কিন্তু একেবারেই নয়। দাঁত মাজার পর একটা ছোট পাত্রে সামান্য মাউথওয়াশ নিয়ে তার সঙ্গে জল মিশিয়ে কুলকুচি করুন, এতে প্লাক এবং জীবাণু তো দূর হবেই সঙ্গে দাঁতও থাকবে সুস্থ এবং পড়ে যাওয়া বা ভেঙে ক্যাভিটি বা গর্ত তৈরি হওয়ার আশঙ্কাও কমবে।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!

11 May 2022

Read More

read more articles like this
good points logo

good points text