Advertisement

বিনোদন

আসছে ‘ফাটাফাটি’, এক মোটা মেয়ের ফ্যাশন ইনফ্লুয়েন্সার হয়ে ওঠার গল্প

Swaralipi BhattacharyyaSwaralipi Bhattacharyya  |  Sep 17, 2020
আসছে ‘ফাটাফাটি’, এক মোটা মেয়ের ফ্যাশন ইনফ্লুয়েন্সার হয়ে ওঠার গল্প

Advertisement

‘বাবা রে, কী রোগা হয়েছিস! কী করে এমন ফিগার হল, বল না প্লিজ। জিম নাকি ডায়েট?’

‘ওমা দিদি! আপনার মেয়ে তো গায়ে গতরে ভালই হয়েছে। তা পাত্র দেখছেন? মোটা মেয়েদের আবার ছেলে পাওয়া মুশকিল!’

‘জাস্ট এক চামচ। তার বেশি বিরিয়ানি তুমি পাবে না। এখনও স্কুলে পড়ছ, কিন্তু চেহারা দেখে কে বলবে? এত মোটা হলে চলবে?’

চেনা লাগছে কি? আপনি কখনও শুনেছেন এমন ডায়গল? বা আপনি কাউকে শুনিয়েছেন? উত্তরটা কিন্তু পজিটিভ। কারণ চেহারা চর্চা আমাদের দৈনন্দিনের রুটিন। সে রোগা হোক বা মোটা, চেহারা বা ওজন নিয়ে দু-চার কথা বলি আমরা প্রায় সব আড্ডাতেই। কিন্তু সেটাই যে আদতে বডি শেমিং (body shaming), সেটা জানেন কি?

কখনও বা ইচ্ছাকৃত ভাবে, কখনও বা নিজের অজান্তেই আমরা বডি শেমিং করে ফেলি অথবা কখনও নিজেরাই বডি শেমিংয়ের শিকার হয়ে যাই। এই ভাবনা থেকেই উইনডোজ প্রোডাকশন তৈরি করছে তাদের নতুন ছবি। ‘ফাটাফাটি’। মহালয়ায় মুক্তি পেল তার ফার্স্ট লুক। শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় এবং নন্দিতা রায়ের কারখানার প্রোডাক্ট মানেই তা ঘিরে দর্শকের অন্য প্রত্যাশা থাকবেই।

 

এ ছবির গল্প লিখেছেন জিনিয়া সেন। তিনি শেয়ার করলেন, “কলেজে পড়ার সময় থেকেই দেখছি, অনেকদিন পরে দুই বন্ধুর দেখা হলে, ওমা তুই কত রোগা হয়েছিস। অথবা কী মোটা হয়ে গেলি! এটা দিয়েই কথার শুরু হয়। মানে ওজনটাই যেন তার ইমপ্রেশন। আমার মনে হয়েছিল, ওজনটা ইমপ্রেশন হতে পারে না। কত মানুষের ডিপ্রেশনের কারণ এটাই। হয়তো তাঁকে ওজন নিয়ে কেউ কথা শুনিয়েছেন। বাকি জীবনটা তার ঠিক আছে। কিন্তু ওজনের জন্য মন খারাপ। সেটা নিয়েই গল্প। নায়ক, নায়িকা দুজনেই মোটা। মোটাদের পরিবার। আবার যাঁরা খুব রোগা, তাঁদেরকেও কথা শুনতে হয়। ফলে বডি শেমিংয়ের পুরে ব্যাপারটাই রয়েছে। আমি নিজে খুব এন্টারটেনিং ছবি দেখতে ভালবাসি। ছবি দেখে সিনেমা হলে লোকে সিটি দিচ্ছে, সেটা আমার ভাল লাগে। এই ছবিটাও এন্টারটেনিং। তার মধ্যে একটা মেসেজও রয়েছে।” 

‘ফাটাফাটি’ পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন অরিত্র মুখোপাধ্যায়। তিনি বললেন, “এক মধ্যবিত্ত বাড়ির মিষ্টি মোটা মেয়ে। তার ফ্যাশন ইনফ্লুয়েন্সার হয়ে ওঠার গল্প। ছোট থেকে ওজন নিয়ে তাকে অনেক কথা শুনতে হয়। আমরা প্রতিদিনের জীবনেও দেখি, মোটা হলে অটোতে বসতে গেলেও কথা শুনতে হয়, আবার জিন্স কিনতে গেলেও কথা শুনতে হয়। যখন কেউ বলেন, রোগা হব বা জিমে যাব, সেগুলোও তো বডি শেমিং। সে সবই থাকবে ছবিতে। পরিস্থিতি ঠিক থাকলে নভেম্বরের শেষে শুটিং শুরু করব আমরা।”

মোটা মেয়ের গল্পে ডায়লগের দায়িত্ব সামলাবেন সম্রাজ্ঞী বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কথায়, “গল্প জিনিয়াদির। কিন্তু এটা আমারও গল্প। তাই ইনভলভমেন্ট অনেক গভীরে। আমি বিশ্বাস করি, সংলাপ আমাদের চারপাশেই থাকে। আমাদের পাশ দিয়ে যে মেয়েটি হেঁটে যাচ্ছে, তার কষ্টটা তো আমাদেরও হতে পারে। তার ডায়লগও আমাদের। এখন তো রোগা হওয়া বা মোটা হওয়া কুশল বিনিময়ের পার্ট হয়ে গিয়েছে। তবে আমি সব সময়ই একটা অন্য উড়াল রাখার চেষ্টাও করি। যাতে শুধু সমস্যা নয়। কোথাও সমাধানের সূত্রও থাকে।” কারা অভিনয় করবেন, তা এখনই জানাতে নারাজ প্রযোজনা সংস্থা। সব কিছু ঠিক থাকলে ২০২১-এর মার্চে নারী দিবসে মুক্তি পাবে এই ছবি। 

মূল ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!