করোনা নিয়ে 'এপ্রিল ফুল' করবেন না, আর্জি সুদীপ্তা, আবিরের

করোনা নিয়ে 'এপ্রিল ফুল' করবেন না, আর্জি সুদীপ্তা, আবিরের

করোনা (Coronavirus) আতঙ্কে আপাতত সকলেই গৃহবন্দি। লকডাউন চলছে গোটা দেশে। তার মধ্যেই নতুন করে আক্রান্ত বা মৃত্যুর খবর আমাদের উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। দিনভর খবরে চোখ রাখা যেন অভ্যেসে পরিণত হয়েছে। তবে করোনা সংক্রান্ত তথ্য যেমন তাতে রয়েছে, রয়েছে প্রচুর মিমও। আর এর মধ্যেই ভুয়ো তথ্যও ছড়াচ্ছে। এবার সে সব নিয়েই মুখ খুললেন টলি মহলের শিল্পীরা।

আজ পয়লা এপ্রিল। এপ্রিল ফুল'স ডে। অন্যান্য বছর হয়তো এই দিনে অন্য কাউকে বোকা বানিয়ে মজা পাই আমরা। কিন্তু এই বছর পরিস্থিতি একেবারে আলাদা। করোনা তো বটেই, আরও নানা জিনিস নিয়ে আতঙ্কিত মানুষ। এই আবহে এই সংক্রান্ত ভুল তথ্য শেয়ার করে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত না করারা অনুরোধ জানিয়েছেন শিল্পীরা। 

সুদীপ্তা (Sudipta) চক্রবর্তী সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, "আজ পয়লা এপ্রিল। মানুষ এমনিতেই আতঙ্কে আছে । করোনা... লক ডাউন... দোকান বাজার খোলা বন্ধ.. ইত্যাদি নিয়ে বোকা বোকা অমানবিক জোকস্ পাঠাবেন না দয়া করে। শুধু আমাকে নয়, কাউকেই পাঠাবেন না।🙏আবার বললাম, মানুষ এমনিতেই আতঙ্কে আছে, নানা কারণে।"

 

ঠিক একই সুর শোনা গেল আবির (Abir) চট্টোপাধ্যায়ের গলাতেও। তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, "আমি আগাম ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। কিন্তু পয়লা এপ্রিল করোনা নিয়ে কেউ যদি মজা করে কিছু পোস্ট করেন আমার ওয়ালে তাঁকে ব্লক করতে অথবা ফ্রেন্ডলিস্ট থেকে বাদ দিতে বাধ্য হব।"

গুগলও এই বিষয়ে সতর্কতা জারি করেছে। করোনার মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে কেউ এপ্রিল ফুল করতে চাইলে কোনওভাবেই তা বরদাস্ত করা হবে না। এমনকি হোয়াটস্অ্যাপেও কেউ যদি ভুয়ো তথ্য প্রচার করেন, তার বিরুদ্ধেও কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে সতর্ক করেছে রাজ্য পুলিশ।

 

আসলে সতর্ক হতে হবে নিজেদেরই। পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝতে শিখতে হবে। এই পরিস্থিতিতেও এটা যে সাধারণকে বলে বোঝাতে হচ্ছে, বা কড়া কথা বলতে হচ্ছে তা নিয়ে বিস্মিত সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ। 

শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৩৯৭। গোটা দেশে মৃত্যু হয়েছে ৩৫ জনের। তবে আশার খবর এই যে, ইতিমধ্যেই ১২৪ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় দেশের মধ্যে শীর্ষ স্থানে রয়েছে কেরল। সেখানে ইতিমধ্যেই ২৩৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তার পরেই রয়েছে মহারাষ্ট্র। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ২১৬। তার পরে রয়েছে উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি, কর্নাটক, তেলঙ্গানা, তামিলনাড়ু এবং রাজস্থান। উত্তরপ্রদেশে আক্রান্তের সংখ্যা ১০১। দিল্লিতে ৯৭, কর্নাটকে ৮৩, তেলঙ্গানা ৭৯, তামিলনাড়ু এবং রাজস্থানে ৭৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

সুতরাং সুস্থ থাকুন, বাড়িতে থাকুন, ভাল থাকুন। অযথা আতঙ্কিত হবেন না। গুজব ছড়াবেন না।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

২০২০ শুরু করুন আমাদের দারুণ দারুণ প্ল্যানার আর স্টেটমেন্ট সোয়েটশার্ট দিয়ে। এগুলো সবকটাই আপনারই মতো একশ শতাংশ মজার এবং অসাধারণ! ওহ হ্যাঁ, শুধুমাত্র আপনার জন্য রয়েছে ২০ শতাংশ ছাড়ের ব্যবস্থাও। দেরি কিসের আর, এখনই POPxo.com/shop থেকে কেনাকাটা সেরে ফেলুন আর নিজেকে আরেকটু পপ আপ করে ফেলুন!