উচ্চমাধ্যমিকে দারুণ রেজাল্ট, এবার কোন বিষয় নিয়ে পড়বে দিতিপ্রিয়া?

উচ্চমাধ্যমিকে দারুণ রেজাল্ট, এবার কোন বিষয় নিয়ে পড়বে দিতিপ্রিয়া?

দিতিপ্রিয়া (Ditipriya) রায় অর্থাৎ দর্শকের আদরের ছোটট পর্দার রানি রাসমণির জীবনে এখন জোড়া সুখবর। দিন কয়েক আগেই উচ্চমাধ্যমিকের (HS) রেজাল্ট বেরিয়েছে। ৮২ শতাংশ নম্বর পেয়েছেন অভিনেত্রী। আর একদিকে তাঁর অভিনীত করুণাময়ী রানি রাসমণি ১০০০ পর্বে পা রাখতে চলেছে। স্বাভাবিক ভাবেই দিতিপ্রিয়ার পরিবারে আজ খুশির হাওয়া।

একই সঙ্গে পড়াশোনা এবং অভিনয় চালিয়ে যাওয়া খুব একটা সহজ কাজ নয়। যাঁরা দুটো দিক একসঙ্গে সামলান, তাঁরা সকলেই জানেন, তুখোড় ব্যালেন্স ছাড়া দুটো দিকেই সমান মনোযোগ দেওয়া সম্ভব নয়। দিতিপ্রিয়া সেটাই করে দেখিয়েছেন। পাঠভবন থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছিলেন তিনি। ইংরেজিতে লেটার মার্কস সহ সব বিষয়েই ভাল নম্বর পেয়েছেন। পরিবার, স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকারা, বন্ধুরা দিতিপ্রিয়ার এই সাফল্যে অত্যন্ত খুশি। 

"রেজাল্ট নিয়ে একটু টেনশন তো ছিলই। যেদিন রেজাল্ট বের হল সেদিনও আমি শুটিংয়ে গিয়েছিলাম। কিন্তু টেনশন হচ্ছিল খুব। বিকেলে অনলাইনে রেজাল্ট বের হল। ইংরেজি বা সোশিওলজি, কোনও একটা সাবজেক্ট নিয়ে পড়ব এবার। আর রানি রাসমণিকে যেভাবে দর্শক ভালবেসেছেন, আমি সত্যিই কৃতজ্ঞ। ১০০০ পর্বে পৌঁছে গেলাম আমরা। যে কোনও টিমের জন্যই এটা দুর্দান্ত ব্যাপার। দর্শকদের শুধু এটুকু বলব, আপনারা টিভির পর্দায় চোখ রাখুন। আপনাদের জন্য আরও নতুন চমক নিয়ে আসব আমরা" বললেন দিতিপ্রিয়া। 

 

হাত স্যানিটাইজ করে শুটিং শুরু করছেন দিতিপ্রিয়া। ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

ধারাবাহিকের শুটিংয়ে যাঁরা দিতিপ্রিয়াকে দেখেছেন, তাঁরা জানেন, শুটিংয়ের ফাঁকে মেকআপ রুমে বসে পড়াশোনা করতেন তিনি। আবার কাজের প্রতি তাঁর ডেডিকেশনও ছিল দেখার মতো। ফলে তাঁর রেজাল্টে খুশি শুটিং ইউনিটের সকলেও। 

ধারাবাহিকের শুরুতে রানি রাসমণির ছোট বয়সের চরিত্রের জন্যই দিতিপ্রিয়াকে কাস্ট করা হয়েছিল। মাত্র তিনমাসের কাজের কথা বলা হয়েছিল তাঁকে। সেখান থেকে ১০০০ এপিসোডের পথে গোটা টিম। একই সঙ্গে রাসমণির ছোট বয়স এবং পরিণত বয়সের চরিত্রে সমান দক্ষতায় অভিনয় করছেন তিনি। দর্শকদের একটা বড় অংশ পর্দার রাসমণি হিসেবে দিতিপ্রিয়াকেই দেখতে চেয়েছিলেন। ফলে তাঁর পরিবর্তে অন্য কোনও অভিনেত্রীকে কাস্ট করার কথা ভাবেননি নির্মাতারা। একই সঙ্গে চরিত্রের প্রতি সম্পূর্ণ জাস্টিস করেছেন দিতিপ্রিয়াও।

খুব সাধারণ এক গ্রাম্য মহিলা কীভাবে নিজের ব্যক্তিত্বের জোরে এত মানুষের ভালবাসা পেয়েছিলেন, রাসমণির জীবন হিসেবে টেলিভিশনের পর্দায় সেটাই দেখাতে চেয়েছেন নির্মাতারা। রাসমণির জীবনের বৈচিত্রকে ইতিহাসের মিশেলে উপস্থাপনা করা হয়েছে। গানও এই ধারাবাহিকের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ জায়গা। গল্পের প্রয়োজনে বহু চরিত্র এসেছে। রাসমণির জীমাই মথুরবাবুর চরিত্রে গৌরব চট্টোপাধ্যায়, শ্রীরামকৃষ্ণের চরিত্রে সৌরভও জনপ্রিয় হয়েছএন। ১০০০ পর্বে নিশ্চয়ই কিছু চমক থাকবে। দিতিপ্রিয়ার দর্শককে আরও নতুন কী উপহার দেবেন, সেই অপেক্ষাতেই রয়েছেন সকলে। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!