অক্ষয় কুমার বিশ্বের প্রথম চার জন হায়েস্ট পেড অভিনেতার মধ্যে একজন! ভাবা যায়!

অক্ষয় কুমার বিশ্বের প্রথম চার জন হায়েস্ট পেড অভিনেতার মধ্যে একজন! ভাবা যায়!

ভাবতে পারছেন ব্যাপারটা! হলিউডের ডোয়েন রক জনসন, ক্রিস থর হেমসওয়ার্থ, রবার্ট আয়রনম্যান জুনিয়র আর তারপরই বলিউডের অক্ষয় প্যাডম্যান কুমার! সম্প্রতি ফোর্বস জুন ২০১৮ থেকে জুন ২০১৯ পর্যন্ত বিশ্বের হায়েস্ট পেড (highest paid) অভিনেতাদের একটি লিস্ট প্রকাশ করা হয়েছে। সেই তালিকা অনুযায়ী বিশ্বের প্রথম চারজন হায়েস্ট পেড অভিনেতাদের (actor) মধ্যে একজন হলেন বলিউডের অক্ষয় কুমার (Akshay Kumar)! মানে, খানরা নন, রোশন তো ননই, সেই সিধেসাধে অক্ষয়ই বাজি মেরে দিয়ে বেরিয়ে গিয়েছেন! 

এই সময়সীমার মধ্যে এই তারকারা কত রোজগার করেছেন, তার উপরেই ভিত্তি করে মূলত এই তালিকাটি তৈরি করা হয়েছে। ডোয়েন জনসনের বিভিন্ন ছবি এই সময়ে ঘরে তুলেছে ৮৯.৪ মিলিয়ন। ক্রিস হেমসওয়ার্থ এই সময়ে রোজগার করেছেন ৭৬.৪ মিলিয়ন ডলার। আর রবার্ট ডাউনি জুনিয়র পেয়েছেন ৬৬ মিলিয়ন ডলার। সেখানে অক্ষয়ের রোজগার ৬৫ মিলিয়ন ডলার! মনে রাখবেন, এই তিনজন অভিনেতাই কিন্তু হলিউডি এবং তাঁদের মধ্যে দুজন আবার গত বছরের তুমুল হিট ছবি অ্যাভেঞ্জার্স এন্ডগেম-এর অংশ ছিলেন! এঁদের ছবি দেখে সারা বিশ্বের লোক! এদিকে বলিউড যদিও আস্তে-আস্তে ভারতের বাইরে অনেক দেশেই নিজের ফ্যান বেস তৈরি করে নিয়েছে, কিন্তু সারা বিশ্বের সকলে তো আর হামলে পড়ে হিন্দি ছবি দেখেন না! কাজেই এঁদের সঙ্গে অক্ষয় পাল্লা দিতে পেরেছেন মানে, তিনি কতটা ক্ষমতা ধরেন, আশা করি বুঝতে পারছেন!

আসলে গত বছরটা বেশ ভালই কেটেছে অক্ষয়ের। পরপর মুক্তি পেয়েছিল তাঁর 'প্যাডম্যান', 'গোল্ড', '২.০', 'কেশরী' ইত্যাদি ছবিগুলি। প্রথম তিনটি তো ফাটাফাটি ব্যবসা করেছে বটেই, পিছিয়ে ছিল না কেশরীও। ফলে মা লক্ষ্মীর কৃপা ভরপুর ছিল খিলাড়ি কুমারের উপর। তারই প্রমাণ ফোর্বস-এর এই তালিকা। আসুন, দেখে নেওয়া যাক, আর কারা-কারা ঠাঁই পেলেন এই লিস্টে...

১. ডোয়েন জনসন (৮৯.৪ মিলিয়ন) 

২. ক্রিস হেমসওয়ার্থ (৭৬.৮ মিলিয়ন) 

৩. রবার্ট ডাউনি জুনিয়র (৬৬ মিলিয়ন) 

৪. অক্ষয় কুমার (৬৫ মিলিয়ন) 

৫. জ্যাকি চ্যান (৫৮ মিলিয়ন) 

৬. ব্র্যাডলি কুপার (৫৭ মিলিয়ন) 

৭. অ্যাডাম শ্যান্ডলার (৫৭ মিলিয়ন) 

৮. ক্রিস এভান্স (৪৩.৫ মিলিয়ন)

৯. পল রুড (৪১ মিলিয়ন)

১০. উইল স্মিথ (৩৫ মিলিয়ন)

যাঁরা অক্ষয়কে খানদের সমকক্ষ মনে করেননি এত দিন, যাঁরা ভাবতেন যে, তিনি ওই রবিন উত্থাপার মতো, প্রতি ম্যাচেই চল্লিশের উপর করে দেবেন, কিন্তু চোখধাঁধানো সেঞ্চুরি কালেভদ্রে একটা! তাঁরা একবার বড়-বড় চোখ করে তাকিয়ে দেখুন যে, এই লিস্টে একজনও বড় খানের নাম নেই! এর পরও আপনাদের মুখে অক্ষয়ের নিন্দা শুনলে এবার স্বয়ং খানেরাও মাফ করবেন না!

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!