পুরনো প্রেমিকাকে ব্রেসলেট, নতুন প্রেমিকা আলিয়া ভট্টকে নিয়ে ডিনারে রণবীর কপূর

পুরনো প্রেমিকাকে ব্রেসলেট, নতুন প্রেমিকা আলিয়া ভট্টকে নিয়ে ডিনারে রণবীর কপূর

না, তিনি নিজে তাঁর পুরনো প্রেম দীপিকা পাড়ুকোনকে (Deepika Padukone) ব্রেসলেট উপহার দেননি। দিয়েছিলেন তাঁর মা নিতু কপূর। আর সেই হিরে বসানো ইনফিনিটি ব্রেসলেটটি ডিজাইন করে দিয়েছিলেন স্বয়ং তাঁর দিদি ঋধিমা কপূর সাহানি। কিন্তু আপনারাই বলুন, রণবীরের অমতে নিতু বা ঋধিমা, কেউই কী এই কাজটা করতে পারতেন? আর নিতু তো এখন থাকেন নিউ ইয়র্কে, অসুস্থ স্বামী ঋষি কপূরের সেবা করতে! তিনি কি ভ্যানিটি ব্যাগে খানকতক ব্রেসলেট নিয়ে ঘুরছিলেন নাকি, যে বলা যায় না. কখন ছেলের কোন পুরনো প্রেমিকা দেখা করতে আসে, এককালে তাদের সঙ্গে কত্ত গপপো করেছি, ডিনারে গিয়েছি, আর এখন দেখা করতে এলে খালি হাতে ফেরাব...তা-ও আবার যে-সে প্রেমিকা নয়, নিন্দুকে বলত, এককালে নাকি দীপিকাকে মোট্টেও সহ্যি করতে পারতেন না নিতু! সেই তিনিই কিনা...আর ঋধিমারও বলিহারি যাই বাপু! এত রূপ নিয়ে সিনেমায় নামলেন না, ঠিক আছে। জুয়েলারি ডিজাইনার হিসেবে তো মন দিয়ে কাজটা করবেন! তা না. ভাইয়ের প্রাক্তন প্রেমিকাদের জন্য ব্রেসলেট ডিজাইন করছেন, যত্ত সব!  


Alia Bhat enjoys dinner with beau Ranbir Kapoor and family 2


তবে হ্যাঁ, যদি রণবীর কপূরের (Ranbir Kapoor) নির্দেশেই এই সব কাজ হয়ে থাকে, তা হলে বলতে হবে, দুই নৌকায় কী করে পা দিয়ে টিকে থাকতে হয়, তা কেউ শিখুক রণবীর কপূরকে দেখে! দীপিকার বিয়েশাদি হয়ে গিয়েছে, কোথায় তাঁকে এট্টু বরের সঙ্গে শান্তিতে থাকতে দেবেন তা নয়, সেই উপহার-টুপহার দিয়ে এক্কেবারে যা-তা কাণ্ড! তবে ছেলে জানেন, কী করে অতীত এবং বর্তমান, দুইকেই সঙ্গে নিয়ে চলতে হয়! এই তো, যেই না দীপিকা কাণ্ড নিয়ে মিডিয়া জলঘোলা শুরু করেছে, অমনই তিনি বর্তমান চোখের মণি (beau) আলিয়া ভট্টকে (Alia Bhatt) নিয়ে সো-জা ডিনারে চলে গিয়েছেন। আবার কায়দাটা দেখুন, সেই ছবি শেয়ার করেছেন কিনা তাঁর তুতো দিদি করিশমা কপূর (Karishma Kapoor), নিজেক ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডলে!





আদিখ্যেতা এবং চালাকি কাকে বলে দেখুন! ডিনারও হল, সোশ্যাল গ্যাদারিংও হল, আবার তিনি আর আলিয়া যে এখনও ফেভিকল কী মজবুত জোড়ি, তা-ও দেখানো হল!


তবে সত্যি কথা বলছি, এবার তো আমাদেরও সন্দেহ হচ্ছে যে, এই জুটি আসলে লোকদেখানো! ওই ব্রহ্মাস্ত্র না কী ঘোড়ার ডিম সিনেমায় তাঁরা একসঙ্গে কাজ করছেন না, সেটারও প্রিলুড হচ্ছে! আগেও এসব আমরা বিস্তর দেখেছি, হৃতিক রোশন-বারবারা মোরির কথা মনে নেই? সেই কাইটস-এর সময় সেসব নিয়ে কত্ত নিউজপ্রিন্ট খরচ হল। কিন্তু শেষে দেখা গেল, সব ফক্কা! এখন প্রশ্ন হচ্ছে, এই ব্রহ্মাস্ত্র ব্যাপারটির আবার তিন-তিনটি ইনস্টলমেন্ট আছে। প্রথমখানাই এখনও মুক্তির আলো দেখতে পেল না তো বাকিগুলো কবে পাবে, কে জানে! তা হলে কি যদ্দিন না সেই ছবি রিলিজ করবে, ততদিন এই নাটক চলতেই থাকবে? কে জানে বাবা!


রণবীর কপূর না হয় ট্র্যাপিজের খেলা দেখাতে ভালবাসেন, কিন্তু আলিয়া ভট্ট কবে থেকে যে সার্কাস পার্টিতে যোগ দিলেন, কে জানে!


 


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!


 


আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!