আগামীকাল থেকে শুরু হবে দেশব্যাপী করোনা ভাইরাস প্রতিষেধক অভিযান, জেনে নিন সবটা

আগামীকাল থেকে শুরু হবে দেশব্যাপী করোনা ভাইরাস প্রতিষেধক অভিযান, জেনে নিন সবটা in bengali

সারা বিশ্বে এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাস এক অপরিসীম আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে। আর এই প্রকোপ থেকে নিজেকে ও নিজের প্রিয়জনদের রক্ষা করার একমাত্র পথ হল প্রতিষেধক (all you need to know about covid vaccination registration and protocols) ব্যবহার করা, অর্থাৎ ভ্যাক্সিন নেওয়া। আশা করা যাচ্ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা অনেকটাই কমবে যখন দেশের প্রতিটি নাগরিকই এই প্রতিষেধক পাবেন। দেশের প্রতিটি নাগরিকই যাতে এই পরিষেবা পান, সে কাজ বেশ দ্রুত গতিতেই চলছে। ৪৫ বছর ও তার উর্ধে ভারতীয় নাগরিকদের টীকাকরণ আগেই শুরু হয়ে গিয়েছিল। আগামী পয়লা মে, ২০২১ থেকে শুরু হবে ১৮ বছরের উর্ধে যারা তাঁদের টীকাকরণ।

আগামী পয়লা মে ২০২১ থেকে শুরু হচ্ছে দেশব্যাপী করোনা প্রতিষেধক অভিযান

ভ্যাক্সিন বা প্রতিষেধক নেওয়ার আগে ও পরে ঠিক কী কী সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত, সে বিষয়ে কিন্তু না জানলে বিপদ। কারণ, অনেক চিকিৎসকের মতেই, এক এক জনের ইমিউনিটি এক এক রকম, এক এক জনের শরীরে হয়ত রয়েছে কিছু শারীরিক সমস্যাও। কাজেই, সবটা আগে থেকে জেনে বুঝে তার পরেই ভ্যাক্সিন (all you need to know about covid vaccination registration and protocols) নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞের এক দল। তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে চলুন জেনে নেওয়া যাক ঠিক কী কী সাবধানতা আপনি অবলম্বন করবেন করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক নেওয়ার আগে এবং পরে।

Beauty

Manish Malhotra Antimicrobial Sanitizing Hand Rub

INR 349 AT MyGlamm

প্রতিষেধক নেওয়ার আগে রেজিস্ট্রেশন করানো জরুরি

করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক নেওয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন করা বাধ্যতামূলক। ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সের সকল নাগরিককেই রাজ্য সরকারের তরফ থেকে ভ্যাক্সিন দেওয়া হবে। তবে, সরকারী হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্র ছাড়াও কিছু কিছু প্রাইভেট হাসপাতালেও প্রতিষেধক পাওয়া যাবে। তবে এই সুবিধে তাঁরাই পাবেন যারা আরোগ্য সেতু অ্যাপ অথবা কো-উইন পোর্টাল (https://selfregistration.cowin.gov.in/) থেকে রেজিস্ট্রেশন করেছেন। গত ২৮শে এপ্রিল থেকে রেজিস্ট্রেশন শুরু হয়ে গিয়েছে। রেজিস্ট্রেশন করার সময়ে আপনাকে নিজের এলাকার নাম অথবা পিনকোড লিখতে হবে। সেখান থেকেই জানতে পারবেন আপনার এলাকায় কাছাকাছি কোন কোন হাসপাতালে প্রতিষেধকের (all you need to know about covid vaccination registration and protocols) সুবিধে পাওয়া যাবে। আপনি আপনার সুবিধে মত সময়ে এবং হাসপাতালে ভ্যাক্সিনের জন্য অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুক করতে পারবেন। এরপর আপনার রেজিস্টার করা মোবাইল নম্বরে অ্যাপয়েন্টমেন্টের মেসেজ আসবে এবং আপনি নির্ধারিত দিনে গিয়ে আপনার ভ্যাক্সিনের ডোজ নিয়ে আসবেন। যাওয়ার সময়ে অবশ্যই আপনার সরকারী ছবিসহ পরিচয়পত্র নিয়ে যেতে ভুলবেন না। দ্বিতীয় ডোজের জন্য আপনার কাছে আপনাআপনিই আবার মেসেজ আসবে। একটি মোবাইল নম্বর থেকে আপনি পরিবারের সর্বাধিক চার জনের জন্য রেজস্ট্রেশন করাতে পারবেন।

Beauty

WIPEOUT Sanitizing Wipes 25 Wipes Pack

INR 159 AT MyGlamm

ভ্যাক্সিন নেওয়ার আগে কী কী সাবধানতা অবলম্বন করবেন

ক) প্রতিষেধক নেওয়ার নির্ধারিত দিনে সঠিক পরিচয়পত্র নিয়ে নির্ধারিত হাসপাতালে সম্ভব হলে সকাল সকাল পৌঁছে যান। এতে ভিড় যতটা সম্ভব এড়ানো যেতে পারে।

খ) খালি পেটে ভ্যাক্সিন নেওয়া চলবে না। সকালে হালকা কিছু খেয়ে যাবেন।

গ) যদি আপনার সর্দি-কাশি অথবা সাধারণ জ্বর থাকে (করোনা নয়) সেক্ষেত্রে আপনি সেই সময়ে ভ্যাক্সিন (all you need to know about covid vaccination registration and protocols) নিতে পারবেন না। কাজেই, যাতে এসব শারীরিক সমস্যা না হয়, সেদিকে আগে থেকে সচেতন হন।

ঘ) প্রতিষেধক নেওয়ার আগে বা সেই সময়ে যদি আপনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন, সেক্ষেত্রে ভ্যাক্সিন নেবেন না। সেরে ওঠার ছয় সপ্তাহ পরে আপনি আপনার ভ্যাক্সিনের প্রথম ডোজটি নিতে পারবেন।

ঙ) যদি আপনার কোনও রকম শারীরিক সমস্যা যেমন ডায়েবেটিস বা প্রেগন্যান্সি অথবা মিসক্যারেজ হয়ে থাকে, সেক্ষেত্রে আপনার পারিবারিক চিকিৎসকের সঙ্গে অবশ্যই পরামর্শ করে তবে প্রতিষেধক নেবেন।

ভ্যাক্সিন নেওয়ার পরে কী কী সাবধানতা অবলম্বন করবেন

ক) ভ্যাক্সিন নেওয়ার পর (all you need to know about covid vaccination registration and protocols) অন্তত আধ ঘন্টা হাসপাতালেই থাকুন। যদি এই প্রতিষেধক থেকে আপনার শরীরে কোনও অ্যালার্জি বা অন্য কোনও সমস্যা হয়, সেক্ষেত্রে হাসপাতালের চিকিৎসক বা নার্স আপনাকে অ্যাটেন্ড করতে পারবেন।

খ) ভ্যাক্সিন নেওয়ার পর দুই-এক দিন হালকা জ্বর বা গায়ে ব্যথা হতে পারে। এতে চিন্তা করে অযথা প্যানিক করবেন না। অ্যাংজাইটি থেকে যদি শ্বাসকষ্ট শুরু হয়, তখন কিন্তু উলটো বিপদ! প্রয়োজনে পারিবারিক চিকিৎসকের সাহায্য নিতে দ্বিধা করবেন না।

গ) টীকা দেওয়ার জায়গায় হয়ত একটু ফোলা ভাব বা লালচে ভাব দেখা দিতে পারে। এ নিয়ে চিন্তার কোনও কারণ নেই।

ঘ) প্রতিষেধক নেওয়ার পর তিন-চার দিন কোনও রকম ব্যায়াম করবেন না (all you need to know about covid vaccination registration and protocols)। এতে মাংসপেশিতে হঠাত লেগে যেতে পারে এবং টীকার ব্যথা বাড়তে পারে।

ঙ) প্রচুর পরিমানে জল খাবেন কয়েক দিন। এতে শরীরের টক্সিন বেরিয়ে যাবে এবং ইমিউনিটি সিস্টেমও মজবুত হবে।

চ) আপনার যদি ধূমপান বা মদ্যপানের অভ্যাস থাকে, সেক্ষেত্রে ভ্যাক্সিন নেওয়ার পর বেশ কিছুদিন কিন্তু এই দুটি বস্তু থেকে দূরে থাকতে হবে। তা না হলে অন্য রকম শারীরিক সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন।

ছ) করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক পাওয়ার পর আপনাকে একটি সার্টিফিকেট দেওয়া হবে, এটি অত্যন্ত যত্ন করে রাখবেন। ভবিষ্যতে কোথাও যাওয়ার জন্য অথবা ভিসা অ্যাপ্লাই করার ক্ষেত্রে হয়ত এটি প্রয়োজন হবে।

জ) সবচেয়ে বড় বিষয় হল, করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক (all you need to know about covid vaccination registration and protocols) নিলেও কিন্তু আপনাকে সব ধরণের কোভিড সতর্কতা অর্থাৎ নাক-মুখ মাস্কে ঢেকে রাখা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, ভিড় এড়িয়ে চলা, বারে বারে হাত ধোওয়া এবং পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা – ইত্যাদি মেনে চলতেই হবে।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!        

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!