বড় গাড়ি দুর্ঘটনার কবলে অঙ্কুশ, পুলিশের ভূমিকা নিয়েও অসন্তুষ্ট নায়ক মুখ খুললেন

বড় গাড়ি দুর্ঘটনার কবলে অঙ্কুশ, পুলিশের ভূমিকা নিয়েও অসন্তুষ্ট নায়ক মুখ খুললেন

মঙ্গলবার রাতে বড় গাড়ি দুর্ঘটনার (accident) কবলে পরেছিলেন টলিউড অভিনেতা অঙ্কুশ (Ankush)। হাইওয়েতে তাঁর গাড়ি প্রবল ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে অভিনেতা সুস্থ রয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেই এই খবর শেয়ার করেছেন অঙ্কুশ। সঙ্গে গাড়ির ছবিটি দেওয়ায় দুর্ঘটনার ভয়াবহতা সহজেই বোঝা যাচ্ছে।

অঙ্কুশ লিখেছেন, 'গতকাল রাতে হাইওয়ের ওপর আমার বড় একটা দুর্ঘটনা হয়েছে। একজন মদ্যপ লরি ড্রাইভার এটি ঘটিয়েছেন। আমাদের রাজ্যে এখন এটা বড় ইস্যু। ৯০ শতাংশ ট্রাক ড্রাইভার মদ্যপ অবস্থায় দায়িত্বজ্ঞানহীন ভাবে গাড়ি চালান। যখন আমার সিকিউরিটি গার্ড তাঁকে ধরে, তিনি কথা বলার মতো অবস্থাতেও ছিলেন না। এতটাই মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন উনি। পুলিশ এসেছিল। কিন্তু তাঁরাও কোনও ব্যবস্থা নেননি। বোকার মতো দাঁড়িয়ে ছিলেন। পুলিশ (police) ওই ট্রাক ড্রাইভারকে বললেন, এ বাবা! সেলিব্রিটির গাড়িতে মেরে দিলি, এত সাহস তোর? বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এমনটাই হয়। এভাবেই বড় দুর্ঘটনা ঘটে। এখনই ড্রাইভারদের জন্য কড়া নিয়ম চালু করা উচিত। আপনারা সাবধানে থাকবেন। সাবধানে গাড়ি চালাবেন। বিশেষ করে হাইওয়েতে সাবধানে গাড়ি চালাবেন। ঈশ্বর আপনাদের মঙ্গল করুন।'

মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানো দন্ডনীয় অপরাধ। এ কথা সকলেই জানেন। তবুও একই ভুল হয় বার বার। এই ঘটনা তো নতুন নয়। অভিযোগও নতুন নয়। এভাবেই বহু দুর্ঘটনা ঘটে যায়। কার্যত পুলিশের দিকেও অভিযোগের আঙুল তুলেছেন অঙ্কুশ। দুর্ঘটনার পরে পুলিশ তাঁদের ন্যূনতম দায়িত্ব পালন করেনি বলে স্পষ্টত লেখার মাধ্যমেই অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। কিন্তু লিখিত কোনও অভিযোগ করেছেন কিনা, তা স্পষ্ট নয়।

 

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই পোস্ট করার পর তিনি কেমন আছেন, তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বহু অনুরাগী। আপাতত তিনি সুস্থ। তবে অদ্ভুত কিছু কমেন্টও এসেছে অঙ্কুশের ওয়ালে। তাঁর এক অনুরাগী লিখেছেন, মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানো ঠিক নয়। তবে ট্রাক চালকদের অন্য কোনও অপশন নেই। উল্টে, এই অপরাধকে সাপোর্ট করেছেন ওই ব্যক্তি! সেই পোস্ট অঙ্কুশ নিজেও শেয়ার করে বাকিদের সচেতন করতে চেয়েছেন।

 

দুর্ঘটনার খবর শোনার পর উদ্বিগ্ন হয়েছিলেন অঙ্কুশের টলিউডের সহকর্মীরাও। তবে সকলকেই আশ্বস্ত করেছেন অভিনেতা।দর্শকের একটা অংশ বলছেন, অঙ্কুশের লিখিত অভিযোগ জানানো উচিত ছিল। আবার একটা অংশ মনে করছেন, সেলেবরাও যখন পুলিশের কাছে সাহায্য পাচ্ছেন না, তখন সাধারণ মানুষের কী পরিণতি হতে পারে, তা সহজেই অনুমেয়। আর এতে কার্যত আঙুল উঠেছে প্রশাসনের দিকেই। যদিও প্রশানসের তরফে এখনও পর্যন্ত এই বিষয়টি নিয়ে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে কিনা, তা জানা যায়নি।  

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!