'পাসওয়ার্ড'-এর জন্য হুমকি ফোনের ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা শেয়ার করলেন অভিনেত্রী অরুণিমা ঘোষ

'পাসওয়ার্ড'-এর জন্য হুমকি ফোনের ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা শেয়ার করলেন অভিনেত্রী অরুণিমা ঘোষ

নজরবন্দি। হ্যাঁ, আপনি। আপনিই নজরবন্দি। জানেন, সেকথা? আজকের দুনিয়ায় প্রায় সব সময়ই নজরবন্দি আমরা প্রত্যেকে। মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ ব্যবহার করেন তো? হোয়াটস্অ্যাপ, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করেন নিয়মিত? ইন্টারনেট ছাড়া দুনিয়া এখন অচল। আর তার ফাঁদে পড়ে আমরা সকলেই নজরবন্দি। এই প্রবণতা কতটা ভয়ঙ্কর, তার আন্দাজ হয়তো আমাদের অনেকেরই নেই। সাইবার ক্রাইম কীভাবে দৈনন্দিন বেঁচে থাকাকে অতিষ্ট করে তুলতে পারে, তার হদিশ মেলা ভার। কিন্তু সেই হদিশ এবার বড়পর্দায়। সৌজন্যে দেব এন্টারটেনেন্ট ভেঞ্চার্স প্রযোজিত কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়ের নতুন ছবি 'পাসওয়ার্ড' (password)।

পুজোয় মুক্তি পাবে 'পাসওয়ার্ড'। হ্যাকারদের দুনিয়ার হাল, হকিকত প্রকাশ্যে আসবে। দেব, রুক্মিণী মৈত্র, পাওলি দাম, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের অভিনয়ে সমৃদ্ধ হয়েছে এই ছবি। এ  তো গেল সিনে ফ্রেম। বাস্তবে এই অভিজ্ঞতা হয়েছে আপনার? ঠিক এই রকমই বিপদে পড়েছিলেন অভিনেত্রী অরুণিমা ঘোষ। ছোট এবং বড়পর্দার পরিচিত মুখ অরুণিমা (Arunima)সেই অভিজ্ঞতাই শেয়ার করেছেন।

অরুণিমার কথায়, "আমার ক্ষেত্রে একটা খুব অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছিল। একটা ছেলে অন্য নাম নিয়ে আমাকে ইনস্টাগ্রামে লিখতে শুরু করেছিল। কখনও লিখত, আমার সব সিনেমা দেখেছে। আমার টেলিভিশনে করা চরিত্রের ডায়লগ মুখস্থ। আমার সিনেমার গান মুখস্থ...। ভাল কথা লিখছে কখনও। কখনও আবার খারাপ কথা লিখছে। আমি কোথায় ওয়ার্কআউট করতে যাই, কোথায় শপিং করি সব সে জানে। আমাকে বলে, বাড়িতে চলে আসবে। সে আমার বাড়িতে চলেও আসে। আমার বিল্ডিংয়ে ঢুকে পড়েছে। আমার ফ্ল্যাট নম্বর জানে। কোথা থেকে আমার ফোন নম্বর পেয়েছিল। কখনও হাওড়ার একটা নম্বর থেকে ফোন করত। কখনও সোদপুরের নম্বর থেকে ফোন করত। আর ফোন করে বলত, আমাকে বিয়ে না করলে তোমার এই ক্ষতি করে দেব, সেই ক্ষতি করে দেব। আমাকে থ্রেট করত। ইনস্টাগ্রামে তার ২৫ থেকে ৩০টা অ্যাকাউন্ট অলরেডি ব্লক করেছি। ফাইনালি অতিষ্ট হয়ে সাইবার ক্রাইমে কমপ্লেন করেছিলাম। খুব সাহায্য করেছিলেন ওঁরা। ওই ছেলেটিকে খুঁজে বের করে অ্যারেস্ট করা হয়। ১৫ দিন জেল খাটার পর বেরিয়ে সে আবার আমার বাড়িতে চলে আসে। আবার আমি পুুলিশে জানাই। তখন ফের অ্যারেস্ট করা হয়।"

অরুণিমার দাবি, এই সমস্যা হয়তো অনেকেই ফেস করেন। কিন্তু অভিনেতা, অভিনেত্রীদের ক্ষেত্রে হয়তো বেশি হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু লেখার আগে অভিনেতাদেরও পরিবার রয়েছে, তাঁদেরও খারাপ লাগতে পারে, একথা ভেবে দেখার অনুরোধ করেছেন তিনি। 'পাসওয়ার্ড' ঠিক এই উদ্দেশ্য নিয়েই তৈরি। সাইবার ক্রাইম যে কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে, তার ইঙ্গিত দেবে এই ছবি। অভিনেতা তথা প্রযোজক দেব জানালেন, অরুণিমাকে ধন্যবাদ। ওর সঙ্গে যা হয়েছে সেটা আমাদের সঙ্গে শেয়ার করেছে। সচেতন করেছে। সচেতন হতে হবে সকলকে। 'পাসওয়ার্ড'ও সেটাই বলবে। শুধু ভাল সিনেমা তৈরিই নয়। সচেতনতা গড়ে তোলাও আমাদের লক্ষ্য। সতর্ক থাকুন। সুরক্ষিত থাকুন। আপনাদেরও এমন অভিজ্ঞতা থাকলে #Cybertrapped ব্যবহার করে শেয়ার করতে পারেন।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!