কচি সাজার দিন শেষ! এবার ফেস অ্যাপের মাধ্যমে বুড়ো হচ্ছেন বলিউডের তারকারা

কচি সাজার দিন শেষ! এবার ফেস অ্যাপের মাধ্যমে বুড়ো হচ্ছেন বলিউডের তারকারা

উঠল বাই তো ফেস অ্যাপ (face app) চাই! সে আবার কী কথা? আরে ওই যে কিছুদিন আগে বলিউডি তারকারা খুব কচি খোকা খুকু সাজছিলেন না শখ করে। মনে নেই আপনাদের? ওই যে বেবি ফিল্টার না ঘোড়ার ডিম কী যেন একটা! এবার তাঁরা বুড়ো বুড়ি হতে চাইছেন। মানে বাজারে এসেছে আরও একটা বিদঘুটে অ্যাপ। যার মাধ্যমে আপনার মুখে কারিকুরি করে বোঝা যাবে আজ থেকে বিস সাল বাদ… ইয়ে থুড়ি ষাট বছরে গিয়ে আপানকে কেমন চাঁদপানা দেখতে হবে। মানে আপনার মাথার কটা চুল পাকবে, কটা আপনি রঙ করে ঢং করবেন, গাল কতটা ঝুলবে, চোখের তলায় কতটা কালি পড়বে এইসব হাবিজাবি ব্যাপার। গা জ্বলে যায় বাপু! বলি কাজ নেই তো এক ঝুড়ি খই ভাজুন না। বসে বসে বাতাসা দিয়ে খাই! তার জন্য এই সব ঢপের অ্যাপের কী দরকার শুনি? আর বলিউডের (bollywood) তারকারাও (stars) আছেন। যাঁদের হাতে কোনও কাজ নেই তাদের কথা তো ছেড়েই দিলাম। যারা নাকি কাজের চাপে নাওয়া খাওয়া ভুলে গেছেন, যাঁদের নাকি ফোঁস করে টুকুন নিঃশ্বাস ফেলারও সময় নেই তাঁরাও যখনই পারছেন নিজেদের বুড়োপানা (old) রূপ সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝপাঝপ পোস্ট করে যাচ্ছেন। তা ভ্যানতারা তো আমিও অনেকক্ষণ ধরে করেই যাচ্ছি। আসল জিনিসটা দেখাচ্ছি না। মানে বকবক আর না করে কোন তারকাকে বুড়ো সেজে কেমন লাগছে সেটা একবার নিজেরাই দেখে নিন। না ষাট বছর পর তো আর আমি থাকব না। তাই আগেভাগে দেখে রাখা ভাল। কী বলেন আপনারা? 

বলিহারি যাই খোকাদের!

instagram

এই যে বরুণ ধাওয়ান আর অর্জুন কপূরের কথা বলছি। বরুণকে তো এখনও দেখলে মনে হয় তাঁর দুধের দাঁত পড়েনি। এদিকে বুড়ো সাজার শখ দেখুন। আবার লিখেছেন অনিল কপূরকে নাকি ১০০ বছর বয়সে এমন ধারা দেখতে হবে! অনিলের এই বয়সেও যা এনার্জির বহর। সারা দিন উনি অস্ট্রেলিয়ার ক্যাঙ্গারুর মতো এপাং ওপাং ঝপাং করে বেড়ান। তা বাপু তুমি অ্যাপ নিয়ে খেলা করছ করো না, তার মধ্যে আবার অন্য লোককে ধরে টানা কেন? 

Instagram


আর এই আর একজন হলেন অর্জুন কপূর। তাঁর মাথায় নাকি চুল গজাচ্ছে না বলে তিনি নাকি টোপর মাথায় দিয়ে মালাইকাকে বিয়ে করতে পারছেন না। তা বেশ। অভিনয় আর কেরিয়ারও তো তথৈবচ। সেদিকে মন দাও দেখি খোকা। তোমায় বুড়ো হলে কেমন দেখতে হবে তা জেনে আমার কী লাভ?

কর্তা-গিন্নির ছিচরণে শতকোটি পেন্নাম

Instagram

এই দু’জন আছেন বটে! মানে সবেতেই আছেন। ঝালে-ঝোলে-অম্বলে। বউয়ের মুখে যখন একজন ভক্ত বেবি ফিল্টার লাগিয়ে তাঁকে কচি বানিয়ে দিল, সে কী আশনাই কী আশনাই বরের। গুলুগুলু লাগছে, কুচিপুচি লাগছে। মরেই যাচ্ছিলেন আদিখ্যেতার চোটে। বলছি আমাদের দীপিকা পাদুকোন আর রণবীর সিংহর কথা। এখন বিয়ের এত সুন্দর একটা ছবি ছিল, তার ভুস্যিনাশ করে দু’জন দেবাদেবী বুড়ো-বুড়ি সেজে বসে আছেন। 

instagram

সারা আলি খান। ওঁর কাজ হল সাড়া ফেলে দেওয়া। উনি পাকা আমের মতো বুড়ি হয়েছেন। দোসর হয়েছেন আলিয়াও। সঙ্গে হুলো বেড়ালের মতো কোমর বেঁধে আছেন দুই খোকা ভিকি আর রকি। ইয়ে না, না। কার্তিক, কার্তিক আরিয়ান। 

Instagram

বেবি ফিল্টার, বুড়ো ফিল্টার… আর কত দেখব হরি মাধব! তুলেই নাও আবার আমায়! 


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!