বিয়ের কনে পালিয়ে গেল পুরোহিতের সঙ্গে!

বিয়ের কনে পালিয়ে গেল পুরোহিতের সঙ্গে!

বিয়ের মণ্ডপ ছেড়ে কনে তার প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে গেছে অথবা কনেকে (bride) তার প্রাক্তন প্রেমিক বিয়ের আসর থেকে নিয়ে চলে গেছে – এরকম ঘটনা তো আমরা আকছার সিনেমার পর্দায় দেখেছি। তবে এমন ঘটনা যে বাস্তবে ঘটেনি সেরকমও বলা যাবে না। কিন্তু আপনি কোনওদিন শুনেছেন যে, বিয়ের কনে পুরোহিতের সঙ্গে পালিয়ে গেছে? আজ্ঞে হ্যাঁ, চশমা ঠিক করতে হবে না বা চোখ কচলাতে হবে না; একদম ঠিক পড়েছেন, বিয়ের কনে পালিয়ে গেছে এবং সেটাও সেই পুরোহিতের সঙ্গে যিনি মাত্র দু’সপ্তাহ আগে তার বিয়ে দিয়েছেন!



via GIPHY


গত ২৩ মে মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) সিরঞ্জ-এ ঘটনাটি ঘটে! ২৩ মে, ২০১৯ গোটা ভারতবাসীর কাছে এক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দিন ছিল, লোকসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার দিন ছিল ওটি। যখন সবাই মোটামুটি নির্বাচনে কে জিতল আর কে হারল, সেই নিয়ে চর্চা করতে ব্যস্ত, সেই সুযোগে সদ্য বিবাহিতা মেয়েটি টুক করে সবাইকে ফাঁকি দিয়ে উড়ে গেল! কী কাণ্ড বলুন দেখি!


ঘটনাটা একটু খোলসা করে বলি, তা হলে বুঝতে সুবিধে হবে! 


মধ্যপ্রদেশের সিরঞ্জ শহরের একটা ছোট্ট গ্রাম অশঠ। সেখানে ছিলেন এক পুরোহিত (preist), নাম তার বিনোদ মহারাজ। মন্দিরে পুজো-আচ্চা করে আর আশেপাশের বাড়িঘরে বিয়ে-শাদি থাকলে সেখানে পৌরোহিত্য করে তাঁর দিন কাটে। সেরকমই গত ৭ মে ওই গ্রামেরই এক বাড়িতে একজনের বিয়েতে পুরোহিত হিসেবে নিযুক্ত হন তিনি। ভালভাবেই বিয়ে সম্পন্ন হয়ে যায় এবং ওই বাড়ির মেয়ে আনন্দের সঙ্গে নাচতে-নাচতে শ্বশুরবাড়ি চলে যান। বিয়ের তিনদিন পর নববধূ ফিরে আসেন বাপের বাড়িতে, বিয়ের পরবর্তী সব নিয়মকানুন পালনের জন্য। সূত্রের তথ্য অনুযায়ী, তিনি নাকি বাপের বাড়িতে কিছুদিন ছিলেন। তা এর মধ্যে কী হয়েছে, ২৩ মে আবার ওই একই পাড়ায় আর একটি বিয়েতে পুরোহিত হিসেবে নিযুক্ত হন সবেধন নীলমণি পুরোহিত বিনোদ মহারাজ। তা যাঁদের বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠান ছিল, তাঁরা তো সকলে নানা কাজে ব্যস্ত ছিলেন, ইতিমধ্যে দেখা গেল যে পুরোহিত মশাইকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। চারদিকে যখন সবাই পুরোহিতকে খুঁজতে ব্যস্ত, সেসময়ে অন্যদিকে আবার আর এক কাণ্ড! যে মেয়েটি বিয়ের পরবর্তী আচার-অনুষ্ঠান সম্পন্ন করার জন্য বাপের বাড়ি এসেছিল, তাঁকেও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। শুধু কি তাই? মেয়েটির বাড়ি থেকে প্রায় দেড় লক্ষ টাকার গয়না এবং ৩০ হাজার টাকাও উধাও!



via GIPHY


এই ঘটনার পর স্থানীয় থানায় একটা বিনোদ মহারাজ এবং মেয়েটির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। পুলিশি তদন্তে উঠে আসে চমকপ্রদ তথ্য, এই পুরোহিত এবং মেয়েটির মধ্যে প্রায় দু'বছর ধরে প্রেম চলছিল! হ্যাঁ আমরাও এমন একটা কিছুই আশা করেছিলাম। কিন্তু সমস্যাটা কোথায় জানেন, বিনোদের বিবাহিতা স্ত্রী এবং দু'টি সন্তানও রয়েছে! আর তারই মধ্যে আবার প্রেম এবং প্রেমিকার বিয়ে দেওয়া...সব কেমন যেন গুলিয়ে যাচ্ছে! তবে বিনোদ মহারাজের পরিবারকেও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে খবর মিলেছে!


 


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!


আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!