করোনা ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পেতে কী কী করবেন?

করোনা ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পেতে কী কী করবেন?

করোনা ভাইরাস (corona virus)! নামটা শুনেই আজকাল সব্বাই আঁতকে উঠছেন, আর এটাই স্বাভাবিক। গোটা বিশ্ব এই ভাইরাসের আতঙ্কে জর্জরিত এবং ভারতীয়রাও মনে ভয় নিয়েই আজকাল ঘুমোতে যাচ্ছেন। প্রতিদিনই খবরে উঠে আসছে নিত্য নতুন তথ্য যা আমাদের সকলকেই আরও বেশি আতঙ্কিত করে তুলছে। শুরুটা হয়েছিল কেরালায়, কেরালার এক বাসিন্দা, যিনি চিনের ইউহান বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, তাঁকে যখন পরীক্ষা করা হয়েছিল, তখন তার শরীরে পাওয়া গিয়েছিল করোনা ভাইরাসের (corona virus) স্যাম্পেল। এরপরে একে একে দেশের অন্যান্য রাজ্যেও অনেকের মধ্যেই এই মারণ ভাইরসের স্যাম্পেল পাওয়া যায়।

শাটারস্টক

কিন্তু করোনা ভাইরাস (corona virus) কী, কীভাবে ছড়ালো, কী করলে এই ভাইরাসের প্রকোপ কমবে (prevention) অথবা আপনি ঠিক কী কী করলে (tips) আপনিও এই ভাইরাসের দ্বারা আক্রান্ত হতে পারেন – সব কিছু নিয়েই আজ কথা হবে, কিন্তু সবচেয়ে জরুরি কয়েকটি বিষয় তার আগে আপনাদের জানিয়ে রাখা ভাল। এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, চিন থেকে যত জন যাত্রী ভারতে এসেছেন তাঁদের মধ্যে প্রায় ২০০০ যাত্রীর ব্লাড স্যাম্পেলে করোনা জীবাণু (corona virus) পাওয়া গেছে। এঁদের মধ্যে ৭৫ জনকে কেরালার নানা হাসপাতালে আলাদা ভাবে রাখা হয়েছে এবং বাকিদের তাঁদের বাড়িতেই থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রায় এক মাস তাঁদের বাইরে যাওয়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে।

করোনা ভাইরাসের কি কোনও প্রতিষেধক আছে?

ন্যাশনাল সেন্টার ফর ইমিউনিজেশন অ্যান্ড রেস্পিরেটরি ডিজিজ-এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে মারণ ভাইরাস নোবেলা করোনার (corona virus) কোনও অ্যান্টিডোট বা প্রতিষেধক এখনও পর্যন্ত আবিষ্কার করা যায়নি। তবে সাধারণ ভাইরাল ট্রিটমেন্ট (prevention) করিয়ে এই ছোঁয়াচে অসুখ কমানো যাবে না, চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়ার কথাই তাঁরা বলেছেন।

কীভাবে করোনা ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পেতে পারেন

শাটারস্টক

এটাই এই মুহূর্তে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন, যা আমার এবং আপনার – সকলের মনেই বার বার উঠে আসছে। ওয়ার্ল্ড হেলথ অরগানাইজেশন বা হু-এর তরফে জানানো হয়েছে, বেশ কিছু নিয়ম মেনে চললে (tips) এই ভাইরসের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া (prevention) সম্ভব। কী কী করতে হবে?

১। যখনই বাইরে বেরবেন, মেডিকেটেড মাস্ক পরে বেরবেন।

২। হাঁচি বা কাশি হলে রুমালের বদলে টিসু পেপার নাকে-মুখের সামনে চেপে নিন। টিসু পেপারে মুখ ও নাক ঢেকে তবেই কাশি বা হাঁচি দিন; এবং তারপরে টিসু পেপারটি ডাস্টবিনে ফেলে দিন। সাবান দিয়ে হাত ধুতে ভুলবেন না এরপর।

৩। আপনি বাড়িতেই থাকুন বা বাইরে, সুযোগ পেলেই সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নিন। যদি সাবান বা জল না থাকে, সেক্ষেত্রে অ্যালকোহলযুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন জীবাণুমুক্ত হতে। হাত না ধুয়ে চোখে, নাকে, মুখে হাত দেবেন না।

৪। অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল বা ডিজইনফেকটর লিকুইডের সাহায্যে ঘর-বাড়ি পরিষ্কার রাখুন (prevention) (tips)।

৫। আপনি যদি পশু ভালবাসেন, কয়েকটা দিন তাদের খালি হাতে আদর করা থেকে বিরত থাকুন। রাস্তার কুকুর বা বিড়ালের থেকেও কিন্তু করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে। আবার উল্টোটাও হতে পারে। মানুষের থেকেও পোষ্যদের মধ্যে এই মারণ জীবাণু (corona virus) ছড়াতে পারে। কাজেই, যখনই আপনি তাদের খেতে দেবেন, আগে ও পরে ভাল করে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নেবেন।

৬। জ্বর বা সর্দি-কাশি ও নিঃশ্বাসের সমস্যা হলে দেরি না করে সত্ত্বর চিকিৎসকের কাছে যান।

৭। মাছ বা মাংস রান্না করার আগে খুব ভাল করে ধুয়ে নিন এবং সম্ভব হলে কিছুদিন মাছ-মাংস না খেলেই ভাল।

৮। শুনতে খারাপ লাগলেও, যারা এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, সম্ভব হলে তাদের খালি হাতে স্পর্শ করবেন না। আপনি যদি অসুস্থ হন, তাহলে বাইরে বেরবেন না যতদিন না চিকিৎসক আপনাকে বাইরে বেরনোর ছাড়পত্র দিচ্ছেন।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!