দীর্ঘদিন লিভ ইন করার পর অবশেষে বিয়ে করলেন দীপঙ্কর দে এবং দোলন রায়

দীর্ঘদিন লিভ ইন করার পর অবশেষে বিয়ে করলেন দীপঙ্কর দে এবং দোলন রায়

বয়স শুধুমাত্র একটা সংখ্যা। এই কথাটা হয়তো অনেকেই মুখে বলেন। কিন্তু তা যেন হাতে কলমে প্রমাণ করে দেখালেন অভিনেতা দীপঙ্কর (deepankar) দে এবং অভিনেত্রী দোলন (dolon) রায়। দীর্ঘদিন লিভ-ইন রিলেশনশিপে থাকার পর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কলকাতায় সাতপাকে বাঁধা পড়লেন দুজনে। পাত্র ৭৫-এর। আর পাত্রীর বয়স ৪৯।

দীপঙ্কর এবং দোলনের সম্পর্কের কথা টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে কারও অজানা ছিল না। প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হওয়ার পর তাঁরা একসঙ্গে থাকতে শুরু করেন। সূত্রের খবর, দীপঙ্কর তাঁর আগের দাম্পত্য সম্পর্ক ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু আইনি বিচ্ছেদ পাচ্ছিলেন না। সে কারণেই আইনসম্মত ভাবে দোলনকে বিয়ে (marriage) করার সমস্যা ছিল দীপঙ্করের। কিন্তু অলিখিত ভাবে দোলনকে প্রকাশ্যেই তিনি স্ত্রীর মর্যাদা দিতেন। অবশেষে আইনত মর্যাদা পেল তাঁদের সম্পর্ক।

গতকাল সন্ধ্যায় দক্ষিণ কলকাতার এক রেস্তোরাঁয় রেজিস্ট্রির করলেন দীপঙ্কর এবং দোলন। তাঁদের ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা উপস্থিত ছিলেন। ব্রাত্য বসু, সৌমিত্র মিত্র, রঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো শিল্পী বন্ধুদের উপস্থিতিতে নতুন করে জীবন শুরু করলেন এই জুটি। উপস্থিত ছিলেন দোলনের ভাই দুর্গাশিসও। সাদা-ধুতি পাঞ্জাবিতে দীপঙ্কর ৭৫ বছর বয়সেও নতুন বরের মেজাজে। লাল শাড়ি, সোনার গয়না, সিঁথিতে সিঁদুর নিয়ে দোলন যেন নতুন কনে। একেবারে ঘনিষ্ঠজনদের উপস্থিতিতে ডিনার সারেন তাঁরা।

 

দীপঙ্করের সম্পর্কে দোলন বরাবরই শ্রদ্ধা, ভালবাসা, আবেগের কথা বলেছেন। তাঁর জীবন, কেরিয়ার সবই দীপঙ্করকে ঘিরে। অন্যদিকে আগের বিবাহিত সম্পর্ক থেকে দাম্পত্য বিচ্ছেদ না পাওয়ার কারণে কখনও কখনও প্রকাশ্যেই হতাশা, ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন দীপঙ্কর। নানা আইনি জটিলতায় দুজনের আইনত একসঙ্গে থাকার সম্ভবনা যেন শেষ হতে বসেছিল। এমনকি নিজের স্থাবর, অস্থাবর সম্পত্তি কতটা এবং কীভাবে দোলনের নামে করে দেওয়া সম্ভব তা নিয়েও ঘনিষ্ঠ মহলে আলোচনা করতেন বর্ষীয়ান অভিনেতা। সেই পরিস্থিতি থেকে মুক্তি। এখন আইনত তাঁরা স্বামী-স্ত্রী। ফলে সম্পত্তি হস্তান্তরের ক্ষেত্রেও কোনও আইনি বাধা থাকবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। সেই দিক থেকে নিশ্চিন্ত দম্পতি।

দীপঙ্কর-দোলনের বিয়েতে খুশি ইন্ডাস্ট্রির একটা বড় অংশ। তাঁদের সম্পর্কের কথা যাঁরা জানতেন, সকলেই চেয়েছিলেন এই সম্পর্কটা আইনসম্মত ভাবে পরিণতি পাক। তাঁরা নিজেরাও বহু বছর ধরে তাই চাইতেন। অবশেষে মিলল সেই ছাড়পত্র। ইন্ডাস্ট্রির বহু সদস্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এই জুটিকে। বহু অনুরাগীও পাঠিয়েছেন শুভেচ্ছা বার্তা। বন্ধুরা তো ছিলেনই। দোলন এই অনুষ্ঠানে তাঁর পরিবারকেও পাশে পেয়েছেন। বাড়ির মেয়ের বিয়েতে খুশি রায় পরিবারের সদস্যরা। ভালবাসার পরিণতিতে লাজুক দোলন আর স্বভাবসিদ্ধ মেজাজেই বিয়ের আসরে ছিলেন দীপঙ্কর।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!