আইসিইউ থেকে বাড়ি ফিরলেন দীপঙ্কর, কুরুচিকর ট্রোলিংয়ের সমালোচনা বিভিন্ন মহলে

আইসিইউ থেকে বাড়ি ফিরলেন দীপঙ্কর, কুরুচিকর ট্রোলিংয়ের সমালোচনা বিভিন্ন মহলে

ভাল আছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা দীপঙ্কর (Deepankar) দে। শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে গত ১৭ জানুয়ারি হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল তাঁকে। তবে সেই অসুস্থতা কাটিয়ে এখন ভাল আছেন তিনি। সূত্রের খবর, গত সোমবার বাড়ি ফিরেছেন তিনি।

গত ১৬ জানুয়ারি দীর্ঘদিনের সঙ্গী দোলন রায়ের সঙ্গে সাতপাকে বাঁধা পড়েন দীপঙ্কর। দক্ষিণ কলকাতার এক রেস্তোরাঁয় ঘনিষ্ঠ বন্ধু ও আত্মীয়দের উপস্থিতিতে ঘরোয়া এক অনুষ্ঠানে রেজিস্ট্রি করেন ৭৫-এর দীপঙ্কর এবং ৪৯-এর দোলন। তার আগে প্রায় ২৫ বছর ধরে লিভ ইন সম্পর্কে ছিলেন তাঁরা।

শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় দীর্ঘদিন ধরেই ভুগছেন দীপঙ্কর। ইন্ডাস্ট্রি সূত্রে ১৬ জানুয়ারি সকালেও তিনি অসুস্থ বোধ করেছিলেন। দোলন (Dolon) বিকেলে রেজিস্ট্রির অনুষ্ঠান বাতিল করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু দীপঙ্করের আপত্তিতে সে অনুষ্ঠান বাতিল হয়নি। ঠিক তার পরের দিন শ্বাসকষ্ট প্রবল হওয়ায় তড়িঘড়ি হাসপাতালে ভর্তি করতে হয় দীপঙ্করকে।

 

ওই দিন থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলিংয়ের মুখে পড়েন অসুস্থ দীপঙ্কর এবং তাঁর সদ্য বিবাহিতা স্ত্রী দোলন। বয়স তাঁদের কাছে শুধুই একটা সংখ্যা মাত্র। তা তাঁরা নিজেদের কাজে প্রমাণ করেছেন। কিন্তু সেই বয়সের কারণেই ট্রোলড হতে হল দীপঙ্করকে। বয়সে বিয়ে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্যে ভরে গিয়েছিল সোশ্যাল ওয়াল। দুজন মানুষের ব্যক্তিগত সম্পর্ককে সম্মান জানানোর কথা যেন ভুলেই গিয়েছিলেন সোশ্যাল অডিয়েন্সের একটা বড় অংশ। অবশ্য এ নিয়ে সমালোচনায় সরব হন দর্শকদেরই একটা অংশ। 

ঠিক এর উল্টো ছবিই সম্প্রতি দেখা গেল টলিউডে। সদ্য পথ দুর্ঘটনার কবলে পড়েছিলেন শাবানা আজমি। তাঁর অবস্থা এখন স্থিতিশীল। দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার পর শাবানার একটি ছবি ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। তারপরই শাবানার ওই ছবি প্রকাশ না করার পক্ষে মত দেন ইন্ডাস্ট্রির একটা অংশ। শুধু তাই নয়, দর্শকরাও বলেছেন, অসুস্থতার সময় শাবানা ও তাঁর পরিবারকে কোনও রকম ভাবে বিরক্ত করা ঠিক নয়। শুধুমাত্র তাঁর ভাল থাকার খবর পেতেই উৎসাহী ছিলেন দর্শক।

 

দীপঙ্করের সম্পর্কে দোলন বরাবরই শ্রদ্ধা, ভালবাসা, আবেগের কথা বলেছেন। তাঁর জীবন, কেরিয়ার সবই দীপঙ্করকে ঘিরে। আগের বিবাহিত সম্পর্ক থেকে দাম্পত্য বিচ্ছেদ না পাওয়ার কারণে কখনও কখনও প্রকাশ্যেই হতাশা, ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন দীপঙ্কর। নানা আইনি জটিলতায় দুজনের আইনত একসঙ্গে থাকার সম্ভবনা যেন শেষ হতে বসেছিল। দেরিতে হলেও সেই পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পেয়েছেন তাঁরা। আইনত তাঁরা এখন স্বামী-স্ত্রী। ফলে সম্পর্কে আর কোনও জটিলতা রইল না। যাঁরা এই জুটিকে এতদিন কাছ থেকে দেখেছেন, প্রত্যেকেই এই সম্পর্কটা আইনত স্বীকৃতি পাক, তা চাইতেন। সেই বিয়ের পর অসুস্থতাকে ঘিরে এত কদর্য ট্রোলিং কোনও ভাবেই বরদাস্ত করা যায় না বলে মনে করেন ইন্ডাস্ট্রির বেশিরভাগ সদস্য।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!