সৃজিত ফিরছেন ২২শে শ্রাবণ- এর স্পিন অফে পরমব্রত-রাইমাকে নিয়ে, অ্যান্টি হিরোর ভূমিকায় কে?

সৃজিত ফিরছেন ২২শে শ্রাবণ- এর স্পিন অফে পরমব্রত-রাইমাকে নিয়ে, অ্যান্টি হিরোর ভূমিকায় কে?

লাস্ট কয়েক বছর ধরে তাঁর বৃহস্পতি তুঙ্গে। যাতে হাত দিচ্ছেন, তাতেই সোনা। বলে-বলে বল মাঠের বাইরে পাঠিয়ে দিচ্ছেন। অর্থাৎ বক্স অফিসে সাকসেস। আবার কোনও ছবি যদি লক্ষ্মীলাভে একটু পিছিয়ে থাকে, তা হলে আবার সমালোচকদের খাতায় ফুল মার্কস তুলে নিচ্ছে অনায়াসে। কার কথা বলছি বলুন তো? সৃজিত মুখোপাধ্যায় (Srijit Mukherji)। তিনিই নাকি এখন টলি পাড়ার ফার্স্ট বয়। এ হেন ফার্স্ট বয়ের ঝুলিতে আবার নতুন ছবি।

২০১১-এ মুক্তি পেয়েছিল ‘২২শে শ্রাবণ’। এবার তাই স্পিন অফ তৈরি করবেন সৃজিত। ছবির নাম ‘দ্বিতীয় পুরুষ’। ছবির নামের মধ্যেই রহস্যের গন্ধ। আর আপনি যদি আগের ছবিটা দেখেন, তা হলে বুঝতে পারবেন এ ছবিতেও রহস্য থাকাটা স্বাভাবিক। কিন্তু সিকোয়েল জানি, প্রিকোয়েলও জানি, এই স্পিন অফ বস্তুটি ঠিক কী, তা ঠিক 

থ্রিলার ঘরানায় সৃজিতের স্কোর বরাবরই ভাল। ফলে সেই সেফ জোন থেকে বেরিয়ে অন্য কিছু তো ট্রাই করতেই পারতেন। তা না করে আবার থ্রিলার কেন? বাংলা ছবির দর্শক এই মুহূর্তে থ্রিলারে মজে রয়েছেন। সে কারণেই কি থ্রিলারে ফেরা? সৃজিত কিন্তু একটু ঘুরিয়ে উত্তর দিলেন। মজা করে বললেন, ‘’হ্যাঁ, নেক্সট ইয়ার ১০ বছর পূর্ণ হচ্ছে। সে জন্য ভাবলাম পুরনো বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে একটু দেখা সাক্ষাত্ হোক। দেখি অভিজিৎ পাকড়াশী কেমন আছে, অমৃতা মুখার্জি কেমন আছে দেখা যাক।’’ মনে আছে নিশ্চয়ই অভিজিৎ-অমৃতা ‘২২শে শ্রাবণ’-এ পরম-রাইমার চরিত্র? 

ওই ছবিতে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় (Parambrata Chatterjee), রাইমা সেনের (Raima Sen) অভিনয় মনে রেখেছেন দর্শক। চমকে দিয়েছিলেন গৌতম ঘোষ। তবে সব কিছু ছাপিয়ে গিয়েছিল সম্ভবত প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্য়ায়ের পারফরম্যান্সে। অ্যান্টি হিরোর চরিত্রে আলাদা মাত্রা যোগ করেছিলেন তিনি। কিন্তু সে গল্পে চরিত্রটি মারা যায়। তা হলে স্পিন অফে আদৌ কি থাকবেন? নাকি ‘দ্বিতীয় পুরুষ’-এ অ্যান্টি হিরো হিসেবে অন্য কোনও তাস বেছে রেখেছেন পরিচালক? ‘’এখন বলা যাবে না!’’ শুধু এটুকু বলেই থেমে গেলেন সৃজিত।

যেহেতু থ্রিলার, গল্পে সাসপেন্স বজায় রাখাটা জরুরি। তেমনই ডিটেলস ডিসক্লোজ করার ক্ষেত্রেও সাসপেন্স মেনটেন করছে গোটা টিম। টাইট লিপস সৃজিতেরও। তবে গল্পের প্রয়োজনেই যে নতুন চরিত্ররাও আসবে, সে ইঙ্গিত স্পষ্ট। তবে ফিরছেন পরমব্রত-রাইমা। 

আগের বারের মতো এবারও প্রযোজনার দায়িত্বে এসভিএফ। সংস্থার যুগ্ম কর্ণধার মহেন্দ্র সোনি বলেন, ‘বাংলা দর্শকের কাছে থ্রিলার জনারে ২২শে শ্রাবণ একটা ল্যান্ডমার্ক। থ্রিলারে তো সৃজিত মাস্টার প্লেয়ার। আমি নিশ্চিত দ্বিতীয় পুরুষও দর্শকের একইরকম ভাবে ভাল লাগবে।’’ 

এই ছবির ফার্স্ট লুকের ট্যাগ লাইনেও রয়েছে ‘২২শে শ্রাবণের পর’। বৃষ্টির ব্যাকগ্রাউন্ডে দেওয়ালে রক্ত দিয়ে বাংলায় লেখা দুই। নীচে ছবির নাম ‘দ্বিতীয় পুরুষ’। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই লুক শেয়ার করেছেন সৃজিত। সব কিছু ঠিক থাকলে ২০২০-র ২৩ জানুয়ারি মুক্তি পাবে এই ছবি।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!