এষা দেওলের জীবনে ফের নতুন খবর!

এষা দেওলের জীবনে ফের নতুন খবর!

তিনি স্টার কিড। অভিনেত্রী। ইন্ডাস্ট্রিতে কেরিয়ার শুরুর সময়েই সেই ট্র্যাডিশনটা নিয়েই শুরু করেছিলেন। তিনি অর্থাৎ এষা (Esha) দেওল। আফটার অল যাঁর বাবা মা ধর্মেন্দ্র এবং হেমা মালিনী, তাঁর উপর অন্য রকমের প্রেশার থাকবে, সেটাই স্বাভাবিক। কিন্তু সে সব পেরিয়েও বলি মহলে নিজের পায়ের তলার জমি শক্ত করার কাজ করছিলেন এষা। হঠাৎ করেই জীবনে পরিবর্তন। বিয়ে করলেন। মা হলেন। অভিনয় তাঁর রক্তে। ফলে সেই প্যাশন তো থাকবেই। তার পাশাপাশি নতুন একটি বিষয়ে ডেবিউ করলেন এষা।

এষা এবার লেখিকা (author) রূপে আত্মপ্রকাশ করলেন। তাঁর বিষয় পেরেন্টিং। পেঙ্গুইন প্রকাশনা সংস্থা থেকে আগামী মার্চে প্রকাশ পাবে তাঁর প্রথম বই 'আম্মা মিয়া'।

মা হওয়া যে কোনও মেয়ের জীবনেই মনে রাখার মতো মুহূর্ত। কিন্তু আপনি যতই সন্তানের জন্য প্ল্যানিং করুন না কেন, অনেক রকম কনফিউশন প্রেগন্যান্সি পিরিয়ডে মেয়েদের সামলাতে হয়। সেই সঙ্গে সামলাতে হয় আত্মীয়, বন্ধুদের উপদেশ। এষাও ব্যতিক্রম নন। দুই মেয়ে রাধ্যা এবং মিরায়ার মা এষাও সামলেছেন এমন পরিস্থিতি। আপনি এ সব কী করে সামলাবেন, এই বইতে তার টিপস দেবেন এষা। সঙ্গে শেয়ার করবেন নিজের অভিজ্ঞতাও।  

 

 

দুই মেয়ের সঙ্গে এষা এবং ভরত। ছবি ইনস্টাগ্রামের সৌজন্যে।

এই বই এষার ব্যক্তিগত জার্নির ইতিকথা। মেয়ে থেকে মা হওয়ার প্রতি মুহূর্ত যে কতটা আলাদা, তা লিখেছেন এষা। তাঁর কথায়, "এই প্রথমবার লেখার চেষ্টা করলাম। আর বিষয়টা আমার হৃদয়ের খুব কাছের। পেরেন্টিং। সকলে বলেন, মা হওয়াটা এক অসাধারণ অনুভূতি। আমি জীবনে দু'বার সেই অনুভূতির সাক্ষী হতে পেরেছি। রাধ্যা এবং মিরায়াকে বড় করা অ্যাডভেঞ্চারের মতো। সেই আনন্দের মুহূর্তগুলো এই বইয়ের মাধ্যমে আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করতে চাই। প্রথম মা হওয়ার সঙ্গে কত আনন্দ, চোখের জল জড়িয়ে থাকে, সে সব বলতে চাই আপনাদের। নতুন মায়েরা হয়তো অনেক অজানা বিষয় জানতে পারবেন। এই বইটা এক মায়ের সঙ্গে আর এক মায়ের বন্ধুত্ব তৈরি করে দেবে। আমার মনে হয় আপনাদের ভাল লাগবে। আর আমার ভিতরের লেখক সত্ত্বাকে জন্ম দেওয়ার জন্য পেঙ্গুইন পরিবারকে ধন্যবাদ। এই পরিবারের অংশ হতে পেরে ভাল লাগছে। আমার মেয়েদের ধন্যবাদ। ওদের জন্যই এই বইটা লিখতে পারলাম। জানি না, মাতৃত্ব এর পরে আমাকে কোন পথে নিয়ে গিয়ে ফেলবে। জয়া (বচ্চন) আন্টি এই বইয়ের মুখবন্ধ লিখে দিয়েছে। ওঁকে অনেক ধন্যবাদ।"

দীর্ঘদিন বড়পর্দায় দেখা দেননি এষা। সংসার, সন্তান, মাতৃত্ব তাঁর কাছে এখন প্রায়োরিটি। এবার সেই মাতৃত্বের দৈনন্দিনই আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করছেন অভিনেত্রী। চাইলে আপনিও এই  জার্নির শরিক হতে পারেন।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন