ঝগড়া ভুলে কঙ্গনাকে ফিল্ম অফার করতে চান করণ জোহর, উত্তরে রঙ্গোলি কী লিখলেন টুইটারে?

ঝগড়া ভুলে কঙ্গনাকে ফিল্ম অফার করতে চান করণ জোহর, উত্তরে রঙ্গোলি কী লিখলেন টুইটারে?

পদ্মশ্রী আর 'পঙ্গা', এই দুই প-এর গেরোয় পড়ে, বলিউডের যেন কী একটা হয়ে গিয়েছে! নইলে বলা নেই, কওয়া নেই, সকলে লাফিয়ে-ঝাঁপিয়ে কঙ্গনা রানাওয়াতের সঙ্গে আড়ি-আড়ি খেলা ছেড়ে, গায়ে পড়ে ভাব জমাতে যাবেন কেন? কঙ্গনা এবার পদ্মশ্রী পেয়েছেন। তা অবিশ্যি বলিউডের অনেকেই পেয়েছে। তারপরই আলিয়া ভট্ট দুম করে তাঁকে ফুলের তোড়া পাঠিয়ে বসলেন! কই, তিনি তো আদনান সামিকে ফুলের তোড়া পাঠাননি? তাঁকে বলিউডে জন্ম দিলেন যে 'গডফাদার' পিতা করণ জোহর (Karan Johar), তাঁকে তো পাঠাননি? কিংবা ধরুন একতা কপূর, পদ্মশ্রী পেতে ইনিও তো কম মাথার ঘাম পায়ে ফেলেননি, তাঁকেও তো আলিয়া ফুল পাঠাতে পারতেন? কই, পাঠাননি তো? তা হলে কঙ্গনাকেই বেছে-বেছে সুড়সুড়ি দিলেন কেন? আর এবার আবার আসরে নেমেছেন আলিয়ার 'বাবা' করণ নিজেই। তিনি আরও এক কাঠি এগিয়ে বলেছেন, যদি তাঁর কাছে এমন কোনও স্ক্রিপ্ট থাকে, যেখানে লিড রোলে কঙ্গনা রানাওয়াতকেই (Kangana Ranaut) মানাবে, পুরনো স-অ-ব ভুল বোঝাবুঝি ভুলে তিনি সোজা কঙ্গনার নম্বর ডায়াল করে তাঁকে ওই চরিত্রে অভিনয় করার জন্য ঝুলোঝুলি শুরু করবেন!

Instagram

উফ, কী জ্বালা রে বাবা। তাঁর পদ্মশ্রী এবং 'কলঙ্ক' নিয়ে সকলের মন এখনও খারাপ, তার মধ্যে যেদিন আমেরিকান বাস্কেটবল লেজেন্ড কোব ব্রায়ান্ট হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় ১১ বছরের মেয়েকে নিয়ে স্বর্গবাসী হলেন আর তা নিয়ে সারা বলিউড গ্যালন-গ্যালন চোখের জল ফেলে আরব সাগরের জলসীমা বাড়িয়ে দিল, সেদিন করণ তার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে ঝুপুস করে কালো-কালো কার্ড পোস্ট করতে লাগলেন আর লোকে ভাবল, আহা রে, ছেলে তো ডিজাইনার প্রবাল গুরুংয়ের সঙ্গে চা-কফি খেতে (খবরদার বলে দিচ্ছি, এর অন্য রকম মানে বের করবেন না) প্রায়ই নিউ ইয়র্ক যায়, সেখানেই হয়তো ব্রায়ান্ট দাদার সঙ্গে আলাপ হয়েছিল, বড় দুঃখু পেয়েছে গো...পোস্টের কমেন্টে ফ্যানেরা যখন, উঃ, গুরুর অভিব্যক্তি প্রকাশও কত পরিশীলিত বলে কেঁদে ভাসাচ্ছে, ঠিক তখনই দেখা গেল, কোব-টোব কিচ্ছুটি নয়, ওটা আসলে করণের আগামী ছবি ভূত-এর পোস্টার টিজার ছিল! আরে বাবা, ইনি হলেন 'শো মাস্ট গো অন' উডের লোক, কেউ স্বর্গবাসী হলেন তো তাতে শো তো আর বন্ধ থাকতে পারে না...তা ভূত-টুত নিয়ে কারবার করছিলেন করুন না, হঠাৎ করে উনোর মধ্যে ধুনো দিতে কঙ্গনাকে নিয়ে পড়তে গেলেন কেন, কে জানে! জানেন না, কঙ্গনার বোনের নাম রঙ্গোলি চান্দেল, যাঁর নামে বলিউডের তাবড়-তাবড় লোকেরা পর্যন্ত ভয় খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ে?

আরও পড়ুন: গোড়ার দিকে অনেক জঘন্য ছবি করেছি, শুধুমাত্র বোনের জন্য, স্বীকার করলেন কঙ্গনা

সুখের দিনে করণ ও কঙ্গনা (Instagram)

ফল যা হওয়ার, তাই হয়েছে, রঙ্গোলি চান্দেল প্রথমে করণের এই সাক্ষাৎকারটি পড়ে হেসে কুটিপাটি হয়েছেন, তারপর টুইটারে টুইটের বন্যা বইয়ে দিয়েছেন! বক্তব্যের সারমর্ম হল, কেন ফালতু ঝামেলা বাড়াচ্ছেন দাদা, একটু শান্তিতে থাকতে দিন না কঙ্গনাকে। শুধু এটুকু হলে তা-ও একটা কথা ছিল। এককালে করণের কফি শো-এ গিয়ে করণ জোহরই বলিউডে নেপোটিজমের (nepotism) ধ্বজাবাহক বলে কঙ্গনা এইসা বোমা ছুড়েছিলেন যে, তারপর নেপোটিজম শব্দের অর্থ জানতে নাকি ডিকশনারি বিক্রি বেড়ে গিয়েছিল! সেদিন থেকে করণ গোঁসা করে কঙ্গনাকে দেখলেই পাশ কাটিয়ে চলে যান। সেই তিনি যদি আজ আদিখ্যেতা করতে আসনে, গা জ্বলে কিনা? রানাওয়াত-চান্দেলদের বক্তব্য খুব পরিষ্কার, কঙ্গনাকে দাবিয়ে রাখার ঢের চেষ্টা করা হয়েছে, কিন্তু তিনি ভাল ছবি করেই চলেছেন এবং হিট দিয়েই চলেছেন, প্লাস, করণের সঙ্গেই পদ্মশ্রীটাও বাগিয়ে ফেলেছেন। তাই এখন বলিউড কঙ্গনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে রয়েছে। নীচে রঙ্গোলির টুইটগুলো দেখে নিন। ভিতরের খবর জানি না বাপু। কিন্তু কাউকে মুখে এরকম করে ঝামা ঘষতে পারলে সকলেরই ভাল লাগবে... 

আরও পড়ুন: অভিনেত্রী, প্রযোজক এবং পরিচালকের পর কঙ্গনা রানাওয়াত এবার স্টুডিও মালিকও, কাল হল উদ্বোধন

নিন্দুকে বলছে, ফিল্মি পরিবারের বাইরে থেকে আসা, ছোট শহরের বাসিন্দারাও আস্তে-আস্তে বলিউডে নিজেদের জমি তৈরি করে ফেলছে। হিন্দি সিনেমা এখন অনেকটাই সাবালক। ভিন্ন ধারার ছবিতে অভিনেতা-অভিনেত্রীরা চুটিয়ে কাজ করছেন। প্রশংসাও পাচ্ছেন। তাই করণের উদ্দেশ্যে তাঁদের বক্তব্য, এখন এসব ফালতু, ছেঁদো ভাব-ভাব খেলা ছেড়ে বরং ভাল ছবি তৈরিতে মন দিন, তা হলেই আর আপনাকে কারও নম্বর ঘোরাতে হবে না, অন্যরাই আপনার নম্বর ডায়াল করবে!

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!