শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা পরীক্ষা করতে কীভাবে ব্যবহার করবেন পালস অক্সিমিটার

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা পরীক্ষা করতে কীভাবে ব্যবহার করবেন পালস অক্সিমিটার in bengali

এই মুহূর্তে অতিমারির ফলে চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা সাধারণ মানুষকে একটি বিষয় নিয়ে বার বার সচেতন করে চলেছেন। আপনার শরীরে অক্সিজেনের (how to check oxygen level at home with pulse oximeter) মাত্রা কতটা রয়েছে, সেটি প্রতিদিন পরীক্ষা করার পরামর্শ দিচ্ছেন তাঁরা। কারন, কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত হওয়ার একটি মূল কারন হল, শরীরে অক্সিজেনের ঘাটতি। যদি আপনি নিয়মিত খেয়াল না রাখেন যে আপনার শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা ঠিক আছে নাকি কমে যাচ্ছে, সেক্ষেত্রে অনেক সময়েই এমন হতে পারে যে অল্প উপসর্গ থাকলে বা উপসর্গহীন হলেও কোরনা ভাইরাসে অনেকেই আক্রান্ত হচ্ছেন এবং যখন পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে, তখন অনেকের হুঁশ আসছে। কাজেই, এই মুহূর্তে আমাদের মেডিকেল কিটের একটি গুরুত্বপূর্ণ যন্ত্র হয়ে উঠেছে পালস অক্সিমিটার (how to check oxygen level at home with pulse oximeter)। তবে, অনেকেই ঠিক বুঝে উঠতে পারছেন না, সঠিকভাবে কীভাবে এই অক্সিমিটার ব্যবহার করবেন, যাতে সঠিক রেসাল্ট পাওয়া যায়, অর্থাৎ শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা সঠিকভাবে বোঝা যায়।

বাড়িতেই কীভাবে অক্সিমিটার ব্যবহার করবেন

চিকিৎসকদের মতে, যদি আপনি অ্যাসিম্পটমেটিকও হন অর্থাৎ আপনার শরীরে করোনা ভাইরাসের কোনওরকম উপসর্গ যদি নাও থাকে, সেক্ষেত্রেও প্রতিদিন একবার করে অক্সিজেনের মাত্রা পরীক্ষা করতে হবে। কারন, অ্যাসিম্পটমেটিকদের শরীরেও কিন্তু যে-কোনও মুহূর্তে অক্সিজেনের মাত্রা (how to check oxygen level at home with pulse oximeter) ঝট করে নেমে যেতে পারে। পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যাওয়ার আগেই তাই সাবধান হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তাঁরা।

Beauty

Manish Malhotra Antimicrobial Sanitizing Spray

INR 349 AT MyGlamm

১। ভাল কোয়ালিটির একটি অক্সিমিটার প্রয়োজন: বাড়িতে অক্সিজেনের মাত্রা পরীক্ষা করার জন্য আপনাকে সবার আগে একটি ভাল কোয়ালিটির অক্সিমিটার কিনে ফেলতে হবে। কিন্তু কেমিস্টের কাছে অথবা অনলাইনে যে-সবপালস অক্সিমিটার পাওয়া যাচ্ছে, সেখান থেকে কোনটা আপনার জন্য সঠিক তা বুঝবেন কীভাবে! চিকিৎসকদের মতে, যখনই আপনি আপনার নিজস্ব ব্যবহারের জন্য অক্সিমিটার কিনবেন। সবার আগে রিভিউ দেখে নেবেন। এছাড়া ভাল ব্র্যান্ড এবং সারটিফিকেশনও দেখে নেবেন।

ডিসপ্লে প্যানেলে দুটি নম্বর দেখাবে - একটি আপনার শরীরের অক্সিজেনের মাত্রা এবং অন্যটি পালস রেট

২। রিডিং নেবেন কীভাবে: আপনার পালস অক্সিমিটার চালু করার পর দেখে নিন যে পর্যাপ্ত ব্যাটারি রয়েছে কিনা। যদি না থাকে, সেক্ষেত্রে নতুন ব্যাটারি লাগিয়ে তবেই রিডিং নিন। তা না হলে কিন্তু অক্সিজেনের মাত্রা ভুল দেখাতে পারে। যন্ত্রটি একটি ক্লিপের মত দেখতে। এর প্যাডে নিজের তর্জনী রাখুন। খেয়াল রাখবেন, আপনার আঙ্গুলে যেন কোনও নেল পলিশ না লাগানো থাকে। নখের দিকটা উপরের দিকে রাখুন এবং চামড়ার দিকটা প্যাডের উপরে। কয়েক সেকেন্ড অপেক্ষার পরই আপনার শরীরের অক্সিজেনের মাত্রা ফুটে উঠবে অক্সিমিটারের (how to check oxygen level at home with pulse oximeter) ডিসপ্লেতে।

৩। এবারে ব্যাপারটা বুঝুন: সময় হয়ে গেলে অক্সিমিটারের ডিসপ্লে প্যানেলে দুটি নম্বর ফুটে উঠবে এবং সঙ্গে কিছু লেখা। একটি দেখাবে SpO2 – এটি হল আপনার শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কত, আর অন্যটি দেখাবে PR – এটি হল আপনার পালস রেট। SpO2 যদি ৯৪%-এর নিচে দেখায়, সেক্ষেত্রে একবার আপনার পারিবারিক চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলে প্রোনিং করুন। যদি ৯০%-এর কম দেখায়, সেক্ষেত্রে কিন্তু বলতে হবে যে আপনার শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা অত্যন্ত কম (how to check oxygen level at home with pulse oximeter) এবং এমতাবস্থায় সত্ত্বর চিকিৎসকের সাহায্য নেওয়া প্রয়োজন।

পরিশেষে একটাই কথা বলার, সাবধানে থাকুন, সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখুন। মাস্ক অরুন, স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন, বিশেষ দরকার ছাড়া বাইরে বেরবেন না। নিজেও সুস্থ থাকুন, অন্যকেও সুস্থ রাখুন।

POPxo এখন চারটে ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!      

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!