সামনে এল ‘জ্যেষ্ঠ পুত্র’-এর (Jyeshtho putro) অফিসিয়াল টিজার, মুখ্য ভূমিকায় প্রসেনজিৎ

সামনে এল ‘জ্যেষ্ঠ পুত্র’-এর (Jyeshtho putro) অফিসিয়াল টিজার, মুখ্য ভূমিকায় প্রসেনজিৎ

ফিরছেন ঋতুপর্ণ ঘোষ (Rituparno Ghosh)! শুনতে একটু অবাক লাগলেও এটাই সত্যি! তবে এ বার ভাবনায় ফিরছেন তিনি। পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের পরবর্তী ছবি ‘জ্যেষ্ঠ পুত্র’-য় (Jyeshtho putro) থাকছে ঋতুপর্ণ ঘোষের (Rituparno Ghosh) ভাবনা। আগামী ২৬ এপ্রিল ছবিটির (Film) মুক্তি পাওয়ার কথা।


এখানেই শেষ নয়, ছবিতে রয়েছে আরও চমক। কারণ এই ছবিতে ‘জ্যেষ্ঠ পুত্র’-এর ভূমিকায় অর্থাৎ কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে (Prosenjit Chatterjee)। আর শোনা যাচ্ছে, তাঁর ভাইয়ের ভূমিকায় অভিনয় করবেন ঋত্বিক চক্রবর্তী (Ritwick Chakraborty)। আর টলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অত্যন্ত বলিষ্ঠ দুই অভিনেতা এই প্রথম স্ক্রিন শেয়ার করবেন। অর্থাৎ এক দিকে ঋতুপর্ণ ঘোষের (Rituparno Ghosh) ভাবনা, কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের (Kaushik Ganguly) পরিচালনা আর অভিনয়ে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prosenjit Chatterjee) আর ঋত্বিক চক্রবর্তী (Ritwick Chakraborty)। আর কী চাই! ফলে নিঃসন্দেহে বলা যেতে পারে, এই ছবি (Film) বাঙালি দর্শকের মন অনায়াসেই জয় করে নেবে।




 

 

 


View this post on Instagram


 

 

Presenting the much-awaited #TeaserPoster of #Jyeshthoputro.


A post shared by Prosenjit Chatterjee (@prosenstar) on




আগেই প্রকাশিত হয়েছিল এই ছবির টিজার পোস্টার। গত বছর টুইটারে সেই ছবি প্রকাশ করেছিলেন খোদ প্রসেনজিৎই (Prosenjit Chatterjee)। সেখানে অবশ্য বোঝা যায়নি মুখ্য ভূমিকায় কে রয়েছেন। তা নিয়ে জল্পনা হয়তো হয়েওছিল। কিন্তু এই ছবির অফিসিয়াল টিজার সামনে আসার পরে সব জল্পনার অবসান ঘটল। অফিসিয়াল টিজারে দেখা যাচ্ছে, মুখ্য ভূমিকায় অর্থাৎ ‘জ্যেষ্ঠ পুত্র’-এর (Jyeshtho putro) ভূমিকায় আর কেউ নন! স্বয়ং প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prosenjit Chatterjee)! সাদা পর্দার আড়াল থেকে সাদা পোশাকে বেরিয়ে সামনে এলেন তিনি। ছবির সেই টিজার নিজের ইনস্টাগ্রাম অফিসিয়াল হ্যান্ডলে শেয়ারও করেছেন অভিনেতা।


আসলে ঋতুপর্ণ ঘোষের অকালে চলে যাওয়াটা বাংলা ছবির দুনিয়ায় একটা বড় শূন্যতা তৈরি করেছে। বাঙালি সিনেমাপ্রেমীরাও আজও তাঁর অভাববোধ করেন। কারণ বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ছবি পরিচালনার ক্ষেত্রে তিনি যে একটা মাইলস্টোন, সেটা নতুন করে আর বলে দিতে হয় না। তাই এ বার হয়তো সেই অভাব কিছুটা হলেও পূরণ হতে চলেছে। টলি পাড়ায় কান পাতলে শোনা যাচ্ছে, এটা ঋতুপর্ণ ঘোষের বায়োপিক। তবে এটা আদৌ ঋতুপর্ণ ঘোষের বায়োপিক কি না, সেই বিষয়ে পরিচালক অথবা প্রযোজকরা স্পষ্ট ভাবে এখনও কিছুই জানাননি।


prosenjit jyestho putro


তবে এই ছবির পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় (Kaushik Ganguly) আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, এই ছবির মূল ভাবনা ঋতুপর্ণ ঘোষেরই। গত বছর একটি সাংবাদিক বৈঠকে ডেকেছিলেন পরিচালক। সেখানে জানিয়েছিলেন, ‘আর একটি প্রেমের গল্প’ ছবিটি তৈরির সময় তিনি ঋতুপর্ণ ঘোষের বাড়িতে প্রায় প্রতিদিনই যেতেন। শুধু সিনেমার বিষয়েই নয়, আরও অনেক বিষয়েই তাঁদের আলোচনা হতো। সে সময়ই তাঁর সঙ্গে একটি ছবির ভাবনার কথা শেয়ার করেছিলেন পরিচালক ঋতুপর্ণ ঘোষ। তাই তাঁর (ঋতুপর্ণ ঘোষের) সেই ভাবনাকেই নিজের মতো করে সাজিয়ে নিয়ে ‘জ্যেষ্ঠ পুত্র’ (Jyeshtho putro) ছবিটি বানাচ্ছেন পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়। অবশ্য ঋতুপর্ণ ঘোষের ভাই ইন্দ্রনীল ঘোষের কাছ থেকে অনুমতি নিয়েই এই ছবিটি বানানো হয়েছে বলে জানিয়েছিলেন পরিচালক। প্রসেনজিৎও জানিয়েছেন, খুব সচেতন ভাবেই ছবিটি (Film) করা হচ্ছে।





এখনও বাঙালি দর্শকের মজে রয়েছেন কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের (Kaushik Ganguly) ‘নগরকীর্তন’ ছবিতে। দর্শকদের মধ্যে খুবই সাড়া ফেলেছে এই ছবি। তাঁর পরবর্তী ছবিও যে সাড়া ফেলতে তৈরি, তা অনায়াসেই বলে দেওয়া যায়। আপাতত ‘জ্যেষ্ঠ পুত্র’ (Jyeshtho putro) মুক্তির অপেক্ষায় দিন গুনছেন বাঙালি দর্শকেরা!


ছবি সৌজন্যে: ইনস্টাগ্রাম


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি এবং বাংলাতেও!