একটি গোপন অভ্যেসের কথা প্রকাশ্যে শেয়ার করলেন কঙ্গনা রানাওয়াত, সেটা কী জানেন?

একটি গোপন অভ্যেসের কথা প্রকাশ্যে শেয়ার করলেন কঙ্গনা রানাওয়াত, সেটা কী জানেন?

সকালে ঘুম থেকে ওঠা থেকে ঘুমতে যাওয়া পর্যন্ত প্রায় প্রতি মিনিট, সেকেন্ডের আপডেট সোশ্যাল মিডিয়ায় (social media) দেওয়াটাই চলতি ট্রেন্ড।আপনি কী কী খেলেন, কোথায় কোথায় গেলেন, সব জানানো চাই। আর এই হুজুগে পিছিয়ে নেই সেলেবরাও। জেন ওয়াইয়ের কাছে সেলিব্রিটির ডেসক্রিপশন জানেন? শয়নে, স্বপনে, জাগরণে সোশ্যাল মিডিয়াই তো তাঁদের বাঁচিয়ে রেখেছে। সেখানে আপনার পারফরম্যান্সই আসলে আপনার হয়ে কথা কইবে। আপনার কত ফলোয়ার, আপনার ছবিতে কত লাইক পড়ে, সেটাই আসল বিচার্য। সে সব যত বেশির দিকে, আপনি তত বড় স্টার! 

তবে সেলেবদের অনেক ভুয়ো প্রোফাইলও থাকে। আবার থাকে অফিশিয়াল পেজও। এই দুইয়ের ফারাক করতে পারেন না বহু সাধারণ অনুরাগী। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অ্যাক্টিভ থাকার খবর নিজেই দিলেন এক বলি সেলেব। তিনি হলেন কঙ্গনা (kangana) রানাওয়াত।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে কঙ্গনা জানিয়েছেন, শুটিংয়ে ব্যস্ত না থাকলে দিনে প্রায় সাত থেকে আট ঘণ্টা সোশ্যাল মিডিয়াতেই কাটান তিনি। তাঁর নাকি একটা গোপন অ্যাকাউন্ট রয়েছে। যেটা তাঁর নিজের নামে নয়। আর সেখান থেকেই সোশ্যাল মিডিয়াতে অ্যাক্টিভ থাকেন তিনি!

 

তা অতক্ষণ কী করেন নায়িকা? নিজের ছবি আপলোড করতে, বা ইনফরমেশন দিতে তো এত সময় লাগার কথাই নয়! তাহলে? কঙ্গনার এই কনফেশন শুনে অনেকেই বলছেন, নির্ঘাত অন্যদের স্টক করেন কঙ্গনা। কোন সেলেব কোথায় যাচ্ছেন, বা কার সঙ্গে দেখা করছেন, সে সব খবর চাই তাঁর। সেজন্যই অত সময় ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় থেকে সব আপডেট নেওয়ার চেষ্টা করেন। আরে, ইন্ডাস্ট্রির অন্দরের খবর তো তিনি রাখতে ওস্তাদ! গসিপ করতেও নাকি তাঁর জুরি মেলা ভার। এবার নিজে মুখেই স্বীকার করে নিলেন তাঁর সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাডিকশনের কথাও! 

 

প্রয়াত রাজনীতিবিদ জয়ললিতার বায়োপিকে অভিনয় করছেন কঙ্গনা। ছবির নাম 'থালাইভি'। সম্প্রতি কঙ্গনার বোন রঙ্গোলির প্রথম 'থালাইভি'র লুক প্রকাশ করেন। তারপরই কার্যত হাসির রোল উঠেছে সিনে মহলে। কারণ একটা বড় অংশের মতে, কোনও ভাবেই কঙ্গনা জয়ললিতার বায়োপিকের উপযুক্ত নন। ফার্স্ট লুক প্রকাশ্যে আসার পর অন্তত তেমনটাই মনে হচ্ছে। অভিনয় কেমন করেছেন, সে তো ছবি মুক্তি পেলে দর্শক বিচার করবেন। কিন্তু তার আগে মেকআপের এত ত্রুটি ধরা পড়ছে, যে ছবি দেখতে যাওয়ার ইচ্ছেই চলে যাচ্ছে দর্শকের। আর এই সব নিয়ে যা যা লেখা হচ্ছে সোশ্যাল ওয়ালে সবই নাকি নিজেই পড়ছেন কঙ্গনা।

 

Instagram

সূত্রের খবর, কঙ্গনার নিজস্ব একটি সোশ্যাল টিম রয়েছে। তাঁরাই নায়িকার অফিশিয়াল আপডেট দেন সোশ্যাল ওয়ালে। তবে কঙ্গনাও যে নজর রাখেন, সে কথা নিজেই স্বীকার করলেন। বলিউজে বেনামে প্রোফাইল খোলার অভ্যেস নাকি অনেকেরই রয়েছে। আর এই প্রবণতার কথা জানতে পেরে সোশ্যাল অডিয়েন্সের একটা বড় অংশের প্রশ্ন, এত লুকোচুরি কীসের? সৎ সাহস থাকলে সামনে থেকেও তো নজরদারি চালানো যায়! সেটুকু হিম্মত হল না কঙ্গনার? 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়..