এতদিন আড়ালে রাখার পর অন্নপ্রাশনেই মেয়েকে কেন সামনে নিয়ে এলেন কনীনিকা?

এতদিন আড়ালে রাখার পর  অন্নপ্রাশনেই মেয়েকে কেন সামনে নিয়ে এলেন কনীনিকা?

মা হয়েছেন তিনি। সেই অভিজ্ঞতাও ভাগ করে নিয়েছিলেন। কিন্তু মেয়েকে এতদিন সোশ্যাল মিডিয়া থেকে আড়ালেই রেখেছিলেন। তিনি অর্থাৎ অভিনেত্রী কনীনিকা (Koneenica) বন্দ্যোপাধ্যায়। সদ্য মেয়ের (daughter) মুখেভাতের (rice ceremony অনুষ্ঠানে প্রথম প্রকাশ্যে আনলেন ছোট্ট কিয়াকে।

কখনও লাল ঘাগরা, সঙ্গে সোনার গয়নায় সেজেছিল কিয়া। মাথায় ছিল লাল টিপ। কখনও বা ফ্রক এবং হেয়ার ব্যান্ডে মেয়েকে সাজিয়েছিলেন কনীনিকা। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, গৌরব চক্রবর্তী, দেবলীনা কুমার, সুদীপা চট্টোপাধ্যায়, অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায় সহ টলিউডের সেলেবরা হাজির হয়েছিলেন। সকলেই কিয়ার জন্য নিয়ে গিয়েছিলেন উপহার। আশীর্বাদ করেছেন প্রাণ ভরে।

এতদিন পর্যন্ত মেয়ের ছবি সোশ্যাল ওয়ালে শেয়ার করেননি কনীনিকা। কখনও মেয়ের পায়ের ছবি, কখনও বা দুধের বোতলের ছবি দিয়েছিলেন। যতদিন এ সবের থেকে মেয়েকে দূরে রাখা যায়, সে চেষ্টাই করেছিলেন কনীনিকা। তবে অন্নপ্রাশনে সেই চেষ্টায় ইতি টানতেই হল। আসলে আমন্ত্রিত অতিথিরা তো ছোট্ট কিয়ার সঙ্গে ছবি তুলতে চাইবেনই। তাঁদের মাধ্যমে শেয়ার হওয়াও বিচিত্র নয়। তাই মেয়ের ছবি নিজেই শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী।

কনীনিকার মেয়ে হওয়ার পর পরিবারের সকলেই খুব খুশি হয়েছিলেন। তাঁর স্বামী সুরজিতের আগের পক্ষের এক ছেলে রয়েছে। তার নাম দ্রোণ। কনীনিকার সঙ্গে বন্ধুত্বের সম্পর্ক দ্রোণের। তাই পরিবারে পরবর্তী প্রজন্মের ছেলে তো ছিলই। এবার এসেছে মেয়েও।

আরও পড়ুন, মাতৃত্বের বর্ষপূর্তিতে কেমন আছেন সুদীপা চট্টোপাধ্যায়? কাজে ফিরছেন কবে?

‘উইনডোজ’ প্রোডাকশনের ব্যানারে মুক্তি পাওয়া ‘মুখার্জী দার বউ’ কনীনিকার শেষ মুক্তি পাওয়া বড় কাজ। মূল চরিত্রে অনসূয়া মজুমদারের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেছিলেন। শাশুড়ি, বউমার মান-অভিমান, ঝগড়া, আনন্দের মুহূর্ত পৃথা চক্রবর্তীর পরিচালনার মুন্সিয়ানায় প্রাণবন্ত হয়ে উঠেছিল। এক কথায় শাশুড়ি-বউমার অন্য কেমিস্ট্রি, অন্য রকম বন্ধুত্বের গল্প বলেছিল সে ছবি। সন্তানসম্ভবা অবস্থাতেই কনীনিকা শুটিং (shooting) করেছিলেন। ওই প্রোডাকশনের ‘কণ্ঠ’ ছবিতেও একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে কনীনিকার অভিনয় প্রশংসিত হয়েছিল দর্শক মহলে।

শুধু ফিল্মি কেরিয়ার নয়। টেলিভিশনেও কনীনিকার পারফরম্যান্স বরাবরই প্রশংসার দাবি রাখে। টিভিতে (tv) শেষ বার ‘অন্দরমহল’ ধারাবাহিকে তাঁঁকে দেখেছেন দর্শক। মূল চরিত্র পরমেশ্বরীর ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের চিত্রনাট্যে যৌথ পরিবারে এক গৃহবধূর জার্নি উঠে এসেছিল ছোটপর্দায়। কনীনিকা যেন হয়ে উঠেছিলেন ঘরের মেয়ে। সেখানেও শাশুড়ির ভূমিকায় ছিলেন অনসূয়া। তবে সেই কেমিস্ট্রি ছিল অনেকটাই আলাদা।

এখন অবশ্যই সন্তান প্রায়োরিটি। তাকে সময় দেওয়াটা এখন কনীনিকার কাছে ফার্স্ট প্রেফারেন্স। কিন্তু তাঁর মতো অভিনেত্রীকে সত্যিই মিস করছেন দর্শক। তবে ভাল স্ক্রিপ্ট পেলে অবশ্যই শুটিংয়ে ফিরবেন তিনি। বরাবরই ভাল চিত্রনাট্য এবং ভাল চরিত্রকে গুরুত্ব দিয়েছেন কনীনিকা। অভিনেত্রী হিসেবে তাতেই তিনি সমৃদ্ধ হয়েছেন বলে মনে করেন। আপাতত মেয়েকে সময় দিচ্ছেন বটে। তবে কামব্যাক প্রজেক্টেও চিত্রনাট্যই তাঁর কাছে গুরুত্বপূর্ণ বলে জানিয়েছেন। 

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আমাদের এক্কেবারে নতুন POPxo Zodiac Collection মিস করবেন না যেন! এতে আছে নতুন সব নোটবুক, ফোন কভার এবং কফি মাগ, যেগুলো দারুণ ঝকঝকে তো বটেই, আর একেবারে আপনার কথা ভেবেই তৈরি করা হয়েছে। হুমম...আরও একটা এক্সাইটিং ব্যাপার হল, এখন আপনি পাবেন ২০% বাড়তি ছাড়ও। দেরি কীসের, এখনই POPxo.com/shopzodiac-এ যান আর আপনার এই বছরটা POPup করে ফেলুন!