ছবিতে থাকছে গার্হস্থ্য হিংসার কথা? বড়দিনেই মুক্তি পাবে 'চিনি'

ছবিতে থাকছে গার্হস্থ্য হিংসার কথা? বড়দিনেই মুক্তি পাবে 'চিনি'

কয়েকদিন ধরেই এসভিএফের সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখা যাচ্ছিল বিশেষ কিছু পোস্ট। বিষয়বস্তু ‘চিনি’। সেই নিয়ে ধন্ধও তৈরি হয়েছিল বৈকি! অবশেষে সেইসব ধোঁয়াশা কাটিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টার রিলিজ় করল এসভিএফ(SVF)।  মৈনাক ভৌমিকের ছবি চিনি মুক্তি পাচ্ছে (mainak bhaumik's film cheeni)। বড়দিনে মুক্তি পাচ্ছে চিনি (cheeni will release on christmas)। চিনির হাত ধরেই আবার পারিবারিক ছবির গল্পে কামব্যাক করছেন পরিচালক! কামব্যাকই বটে! মা-মেয়ের সম্পর্ক ঘিরে বিভিন্ন পারিবারিক গল্প শোনাবে চিনি, জানিয়েছেন পরিচালক নিজেই।

বিষয়বস্তু কি শুধুই পারিবারিক গল্প?

কিন্তু এই ছবির বিষয়বস্তু কি শুধুই পারিবারিক গল্প? নাকি অন্য কোনও গল্পও রয়েছে? সেই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে বেশ অন্যরকম কথা জানিয়েছেন পরিচালক। মৈনাক জানিয়েছেন, চিনি ছবিতে উঠে এসেছে গার্হস্থ্য হিংসার কথা। মা-মেয়ের সম্পর্ক তো অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু গার্হস্থ্য হিংসাই ছবির মূল বস্তু। এবং তাকে ঘিরেই মা-মেয়ের সম্পর্কের নানা ওঠা-পড়া, টানা-পোড়েন ইত্যাদি ধরা পড়েছে ক্যামেরায়।

এসভিএফের (SVF)সোশ্যাল মিডিয়ায় বুধবার চিনি ছবির পোস্টার পোস্ট করা হয়। অন্তত, এই ছবি দেখে বোঝা যায়, এই ছবি অবশ্যই মা-মেয়ের গল্প বলবে। ছবির পোস্টারের রঙ নীল। এবং পিঠে পিঠ ঠেকিয়ে বসে আছেন অপরাজিতা আঢ্য ও মধুমিতা সরকার। তাঁদের সম্পর্কই কি চিনির মত মিষ্টি? প্রশ্ন থাকছে সেখানেও। মৈনাকের সঙ্গে এসভিএফের চারটি ছবির চুক্তি হয়েছিল, সেই হিসেব মতো এটি মৈনাকের চতুর্থ ছবি। অপরাজিতা নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেল থেকেও এই ছবির পোস্টার পোস্ট করেছেন (cheeni will release on christmas)।

তবে সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘কাকাবাবুর প্রত্যাবর্তন’ বড়িদনেই মুক্তি পাচ্ছে কি না, সেই নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে। তাই সেই শূন্যতা পূরণ করতেই কি চিনি ছবির মুক্তির কথা ভেবেছে এসভিএফ (SVF)। পাওয়া যায়নি সে উত্তরও।

মুখ্য চরিত্রে অপরাজিতা...

হলে মুক্তি পেলেও দর্শক আসবে তো?

আনলক পর্বে সবেই খুলেছে সিনেমা হলগুলি। বড়দিনে মৈনাক ভৌমিকের চিনি হলে মুক্তি পেলেও দর্শক কি হলে যাবেন? কারণ, এই করোনা আবহে ওটিটি প্ল্যাটফর্মের জনপ্রিয়তা কিন্তু তুঙ্গে! সম্প্রতি মৈনাক সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, তাঁর অন্য এক ছবির ক্ষেত্রেও তিনি এরকম পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছিলেন। সেসময় ছবি রিলিজ়ের চারদিনের মধ্যেই হল ছেড়ে দিতে হয়েছিল। সেই ছবির নাম জেনারেশন আমি। অথচ, হইচইতে রিলিজ় করার পর কিন্তু সেই ছবি বিশাল হিট!

জানুয়ারিতেই চিনি ছবির কথা ঘোষণা হয়েছিল। তারপর ফেব্রুয়ারিতেই এই ছবির শুটিং শুরু হয়ে যায়। কিন্তু তার মধ্যেই করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে। ফলে শুটিংয়ে বাধা আসে। এইদিকে ছবির সঙ্গে যুক্ত বেশ কয়েকজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। সংক্রমিত হয়েছিলেন অপরাজিতাও। তবে ছবির প্রায় সব কাজই শেষ। এখন শুধু পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ চলছে। মৈনাকের দর্শক অপেক্ষা করে আছে এই ছবির জন্য, তা এসভিএফের পোস্টটি আসার পরেই বেশ পরিষ্কার। অপরাজিতা ও মধুমিতা ছাড়াও ছবিতে অভিনয় করেছেন সৌরভ দাস। সৌরভ না কি এই ছবির একমাত্র পুরুষ চরিত্র! তাহলে কি মৈনাকের ‘চিনি’ ছবি নারীকেন্দ্রিক? প্রশ্ন সেখানেও। তবে বড়দিনে মুক্তির পর আমরা এইসব প্রশ্নেরই উত্তর পেয়ে যাব, আশা করি!

ছবিতে মুখ্য চরিত্রে মধুমিতাও...

POPxo এখন চারটে  ভাষায়!ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!
বাড়িতে
 থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন
#POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন
 নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!