রাজনীতি সামলে ফের অভিনয়ে ফিরছেন মিমি, সঙ্গী 'ড্রাকুলা স্যার' অনির্বাণ

রাজনীতি সামলে ফের অভিনয়ে ফিরছেন মিমি, সঙ্গী 'ড্রাকুলা স্যার' অনির্বাণ

২০১৯-এ মিমি (mimi) চক্রবর্তীর জীবন বদলে গিয়েছে অনেকটাই। অভিনেত্রীর পরিচয়ের পাশাপাশি সাংসদ হিসেবে নতুন পরিচিতি গড়ে তুলেছেন তিনি। অভিনয়ের পাশাপাশি রাজনীতির কেরিয়ারেও এখন চুটিয়ে ব্যাট করছেন। সে কারণেই অভিনয়ের দিকটা কিছুটা ধরে খেলছেন। অর্থাৎ এখন আর পর পর ছবি নয়। অনেক বেছে ছবির কাজে হাত দিচ্ছেন। কারণ রাজনীতির ময়দানে অনেকটা সময় দিতে হচ্ছে তাঁকে।

এ হেন মিমির কামব্যাক ফিল্ম কী হবে, তা নিয়ে কৌতূহল ছিল ইন্ডাস্ট্রিতে। অবশেষে মিলল সুখবর। দেবালয় ভট্টাচার্যের পরিচালনায় এসভিএফ-এর প্রযোজনায় 'ড্রাকুলা (dracula) স্যার' মিমি সেই অর্থে কামব্যাক ফিল্ম। মিমির সঙ্গে এ ছবিতে স্ক্রিন শেয়ার করবেন অনির্বাণ (Anirban) ভট্টাচার্য।  

ছবিতে অনির্বাণের চরিত্রটি একজন প্রাইমারি স্কুল শিক্ষকের, যার বেশ বড়, বাইরের দিকে ঠেলে বেরিয়ে আসা এক জোড়া দাঁতের জন্য ছাত্রছাত্রীদের কাছে তিনি 'ড্রাকুলা স্যার' হিসেবেই পরিচিত। শুধুই কি মজা করে তাঁকে পড়ুয়ারা ওই নামে ডাকে? না কি ভিতরে লুকিয়ে রয়েছে অন্য কোনও রহস্য?

 

দেবালয়ের কথায়, "এই ছবিটা আসলে বাঙালি ড্রাকুলা খোঁজার গল্প। যার কোনও দুর্গ বা প্রাসাদ নেই। নিজের গল্প যে নিজেই তৈরি করবে। মিমির মধ্যে একটা মেলানকলি একটা দুঃখ রয়েছে, যেটা এর আগে এক্সপ্লোর করা হয়নি। ১৯৭১-এর প্রেক্ষাপট। মিমির চরিত্রের নাম মঞ্জরী। ও যখন 'গানের ওপারে' ধারাবাহিকে পুপের চরিত্রটা করত, তখন থেকেই আমি ওর ফ্যান। এই চরিত্রটার মধ্যেও পুপের চরিত্রের শেড রয়েছে। ও কামব্যাকের কথা ভাবছিল। আমিও তখন মঞ্জরী চরিত্রটা কাস্ট করছিলাম। ফলে মিলে গেল সবটা। আর প্রধান চরিত্রের জন্য প্রথম এবং শেষ পছন্দ অনির্বাণই ছিল। ও যেমন আন্ডারডগ হতে পারবে। আবার লার্জার দ্যান লাইফ চরিত্রও করতে পারবে। যে কোনও ধরনের চরিত্রে ভাল কাজ করবে। ও নিঃসন্দেহে এই সময়ের অত্যন্ত প্রমিসিং অভিনেতা। শুটিং শুরু হওয়ার অপেক্ষা করছি।"

এই ছবির প্রসঙ্গে এসভিএফ-এর অন্যতম কর্ণধার মহেন্দ্র সোনি বলেন, "দেবালয়ের ওপর আমার সম্পূর্ণ আস্থা রয়েছে। ও নিজের কাজ দিয়ে ম্যাজিক করতে পারে। মিমির সঙ্গে কাজ করাটা সব সময়ই আনন্দের। ২০২০-তে মিমি আর অনির্বাণের কেমিস্ট্রি বাংলা সিনেমাতে নতুন ফ্লেভার যোগ করবে বলে আমার বিশ্বাস।"

সব কিছু ঠিক থাকলে ২০২০-র জানুয়ারিতেই এই ছবির শুটিং শুরু হবে। মুক্তি পাবে পরের বছরেই। মিমি-অনির্বাণের জুটি সত্যিই টলিউড ইন্ডাস্ট্রির নতুন প্রাপ্তি। রাজনীতির মাঠ সামলেই ফের চেনা মাঠে ফেরা। ফলে মিমিকে নতুন করে দেখার জন্যও অপেক্ষার পারদ চড়ছে সিনে মহলে।  

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty – POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়