ভাশুর-জায়ের পাড়াতেই মাত্র ২০ মিলিয়ন ডলার খরচ করে নতুন বাড়ি কিনলেন প্রিয়াঙ্কা-নিক জোনাস

ভাশুর-জায়ের পাড়াতেই মাত্র ২০ মিলিয়ন ডলার খরচ করে নতুন বাড়ি কিনলেন প্রিয়াঙ্কা-নিক জোনাস

সত্যি কথা বলছি ভাই, ভায়ে-ভায়ে ভাব দেখা যায়, কিন্তু জায়ে-জায়ে এমন ভাব দেখা যায় না! অনেকদিন ধরেই নিক-প্রিয়াঙ্কা লস অ্যাঞ্জেলসে (Los Angeles) একখানা নতুন বাড়ি খুঁজছিলেন। না, না, বাড়ি তাঁদের আগেও ছিল। শত্তুরের মুখে ছাই দিয়ে বেশ বড়সড় বাড়িই ছিল। কিন্তু সেটা ছিল বিয়ের আগে তাড়াহুড়োতে কেনা। খুব একটা ভাবনাচিন্তা না করেই নাকি সেটা কিনে ফেলেছিলেন তাঁরা! তা বিয়ের একবছর হতে চলল, ওই ভরসাপূর্তি, ইয়ে মানে, বর্ষপূর্তি করতে হবে না? তখন মেলা লোকজন নেমন্তন্ন করতে হবে, দেদার পার্টি দিতে হবে, ঢালাও আয়োজন করতে হবে। আর ওঁরা হলেন গিয়ে সেলেব্রিটি। ওঁরা তো আর আমাদের মতো পাড়ার ক্লাবের লন কিংবা অনুষ্ঠানবাড়ি বুক করে এসব করেন না। এঁদের সবই হয় হাউজ পার্টি। ভারী মোলায়েম একটা ব্যাপার। অনেকটা যেন তুলসী বিরানি স্টাইলে দরজা খুলে সকলকে হাতছানি দিয়ে ডাকা! এখন তুলসী বিরানি কে ছিলেন, তিনি সকলকে কেন ডাকতেন, সেই আলোচনা আমি মোটেও এখানে করব না। শত উসকালেও না! তাতে আপনাদের রাগ হলে হোক।

যাক গে, বলছিলাম জায়ে-জায়ে ভাবের কথা। এমনটা ভাই সিরিয়ালেও দেখা যায় না, বাস্তব তো দূরের কথা। প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জোনাস (Priyanka Chopra) এবং সোফি টার্নার জোনাসের মধ্যে সে যে কী ভাব...নিক-জো-এর মায়ের যিশুপুজোর জোর আছে বলতে হবে। দুই বউমাই এক্কেরে হিরের টুকরো। কী সুন্দর বিয়ের পরেই নিজেদের নামের শেষে জোনাস জুড়ে নিয়েছেন! আর এদিকে আমরা সকলে কেন রে ভাই বিয়ের পরে বরের পদবি জুড়ব বলে ন্যাকামি করি। এই কারণেই আমরা বাড়িভাড়া জোটাতে হিমশিম খাই আর ওঁরা পরের পর বাড়ি কিনে বেড়ান! এই সোফি হলেন প্রিয়াঙ্কার মেজ জা। নিকের মেজদা জো জোনাসের বিবি, কুইন ইন দ্য নর্থ-ও বটে। এঁরা দু'জন একই বছরে বিয়ে করেছিলেন, পরস্পর পরস্পরের বিয়েতে ব্রাইডসমেড ছিলেন। মানে, হেব্বি গলাগলি আর কী। আর জোনাস ভাইদের ভালবাসা তো অ্যাদ্দিনে লেজেন্ডের পর্যায়ে চলে গিয়েছে। তাই এঁরা একই পাড়ায় বাড়ি কিনেছেন শুনে আপনি-আমি খাঁটি মধ্যবিত্ত বাঙালি মানসিকতা নিয়ে চমকে গেলেও, মার্কিনিরা একটুও চমকাননি।

এবার শুনে নিন নিক-প্রিয়াঙ্কার নতুন প্রাসাদের (mansion) কথা। প্রাসাদই বটে, ২০,০০০ স্কোয়্যার ফিটের জায়গায় তো আর বাড়ি হয় না, একটা পাড়া হয়, কিংবা প্রাসাদ হয়! এই বাড়িতে আছে মাত্র সাতটি বেডরুম আর ১১টি বাথরুম। তা ছাড়া, হল, কিচেন, প্যান্ট্রি, ইনফিনিটি পুল, জিম, ডাইনিং রুম, অফিস, হোম থিয়েটার, ওয়াইন সেলার, স্পা ইত্যাদি তো আছেই। এন্ট্রি হলটি ডাবল হাইটেড, ঢুকেই একটা ডুপ্লে ফিলিং আসবে। ফ্লোর টু সিলিং ডার্ক মার্বেল ফায়ারপ্লেস আছে লিভিং হলে। ডাইনিং রুম এবং কিচেন পুরো কাচে মোড়া এবং সামনের পাহাড় সেখান থেকে আপনাকে হাতছানি দেবে। বুঝতে পারছেন, কোন লেভেলের লাক্সারি। পুরো বাড়িটা নাকি নিক (Nick Jonas) আর প্রিয়াঙ্কা নিজে হাতে সাজিয়েছেন। দু'জনেই কাজের জন্য দেশে-বিদেশে ঘোরেন, বাড়িতে ফিরে এট্টু যেন হোমলি ফিলিং আসে, তাই নিজেদের মতো করে সাজিয়েগুছিয়ে নিয়েছেন এই আর কী!

অবিশ্যি সেলেবদের মতিগতি বোঝা দায়। ভরসাপূর্তি উৎসব করতে নিক-প্রিয়াঙ্কা নতুন বাড়ি কিনছেন, আর দীপিকা-রণবীর সারা দেশে বিভিন্ন মন্দিরে মাথা ঠুকে বেড়াচ্ছেন! 

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়..