বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত বদলে দিতে চাইলেন নোবেল! নেটিজেনরা রেগে কাঁই!

বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত বদলে দিতে চাইলেন নোবেল! নেটিজেনরা রেগে কাঁই!

সারেগামাপা-তে আসা ইস্তক বাংলাদেশের মইনুল আহসান নোবেলের (Mainul Ahsan Noble) দিনকাল বেশ ভালই যাচ্ছিল! গান-টান গাইছিলেন, লোকের প্রশংসা কুড়োচ্ছিলেন, মৌলিক গান গাইলেন, এমনকী, খেতাবটাও প্রায় জিতেই গিয়েছিলেন, নেহাত শেষ মুহূর্তে অঙ্কিতা বাজি মেরে বেরিয়ে গেল, তাই...কিন্তু ওই যে, খাচ্ছিল তাঁতি তাঁত বুনে, কাল হল তার গোরু কিনে টাইপের ব্যাপার হয় না নতুন-নতুন সেলেব্রিটি হলে? তখন এই ছানা সেলেবদের মনে ভারী আনন্দ আর প্রাণে গুচ্ছের পুলক জাগে এবং তাঁরা ভাবেন, অ্যাটম বোমা থেকে শুরু করে মঙ্গলযান, লতা মঙ্গেশকর থেকে শুরু করে নাসিকে পেঁয়াজের দাম কেন আট টাকা পর্যন্ত এই দুনিয়ায় যা-যা হচ্ছে, সবকিছু নিয়ে তাঁদের মতামত প্রকাশের অবাধ স্বাধীনতা আছে এবং আমরা, মানে, আম আদমিরা হাতে ফুল-বেলপাতা নিয়ে সেগুলি শুনতে ও গলাধঃকরণ করতে বাধ্য এবং তারপরেও এটাই বলব, 'অহো, কী কইলেন দাদা, দ্যান, ছিচরণদুখানা এট্টু হেইদিকে বাড়ান দিকি, এট্টু ফুটডাস্ট নিয়ে বোতলে পুরি, রোজ সকালে বিভূতির মতো কপালে ঠেকিয়ে তব্বে জল মুকে দেব!' 

এই নোবেলও হচ্ছেন সেরকম ছানা সেলেব। এখনও ছানা তো, ডানায় পুরোপুরি জোর পাননি, তাই ভাল করে উড়তে শেখেননি! ফলে লাফটা উঁচু থেকে মারলেও সেই মাঝ বরাবর ডালপালায় আটকে এইসান গোঁত্তা খেয়েছেন যে এখন ত্রাহি-ত্রাহি রব ছাড়ছেন! ব্যাপারটা ঠিক কী হয়েছে, একটু খোলসা করেই বলি। বাংলাদেশের (Bangladesh) জাতীয় সঙ্গীত কী, তা মনে আছে নিশ্চয়ই? নাঃ, আপনার ট্রিভিয়া দেখছি বড্ড কাঁচা! এই তো কদিন আগে লন্ডনের মাঠে বাজল, শাকিব-লিটন সকলে বুকে হাত দিয়ে গাইলেন আর আমরা, মানে, বাঙালিরা ভারী খুশি হলুম এই ভেবে যে, যাক, ভারত ছাড়া অন্তত আরও একটা দেশের জাতীয় সঙ্গীতের (national anthem) মানেটা তো অন্তত বুঝতে পারলুম...এখনও মনে পড়ছে না? রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের (Rabindranath Tagore) লেখা, আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালবাসি...

এই গানটিই পাল্টে দিতে আবদার করেছেন নোবেল! আবদার মানে, এই গানটির একটি অন্য সংস্করণও আছে, যেটি বাংলাদেশের নব্য কবি প্রিন্স মাহমুদের লেখা। সেটি নোবেল প্রায় সব অনুষ্ঠানে দাঁত চিপে গান (না, না, রেগে নয়, ওটিই তাঁর গান গাওয়ার স্টাইল)! নোবেলের মতে, এই গানটিই নাকি বাংলাদেশের কথা বেশি ভাল করে বুঝিয়ে বলেছে, কবিগুরুর গানটি নয়। একটি টক শো-এ এই বিস্ফোরক, যুগান্তকারী মন্তব্যটি রেখেছেন তিনি! সেখানে তিনি আরও বলেছেন যে, আসলে কবিগুরু যখন সোনার বাংলা গানটি লেখেন, তখনও তো বাংলাদেশের জন্ম হয়নি, তাই ইমোশনটা ঠিক করে নাকি তিনি বুঝিয়ে উঠতে পারেননি! আমাদের কথায় বিশ্বাস করতে হবে না, নীচে দেওয়া ভিডিয়োটি দেখে নিয়ে নিজ চক্ষুকর্ণের বিবাদভঞ্জন করে ফেলুন!

কী, ঠিক কী বলতে ইচ্ছে করছে এঁকে? অনেকে বলছেন, আহা রে, সারেগামাপা জিততে পারেনি বলে বেচারার মাথাটাই...তবে সেরা মন্তব্যটি করেছেন গায়িকা ইমন চক্রবর্তী (Imon Chakraborty)। নিজের ফেসবুক ওয়ালে তিনি  বলেছেন, 'সরি টু সে, এঁকে সামনে পেলে চাবকাতাম!' 

দেখুন, ইমন নিজেও হলেন গিয়ে সেলেব্রিটি। ফলে তাঁরও বিস্ফোরক মন্তব্য করার অধিকার আছে। আমার-আপনার তো নেই! তাই আমরা মুখ ফুটে কিছু বলতে পারছি না, তবে...

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!