আনন্দ আর খুশিতে ভরপুর নুসরত আর নিখিলের নতুন সংসার

আনন্দ আর খুশিতে ভরপুর নুসরত আর নিখিলের নতুন সংসার

একটা শাড়ির বিজ্ঞাপনে কাজ করার সূত্রে দু'জনের আলাপ হয়েছিল। নেহাতই পেশাদারি সম্পর্ক। তবে সেখান থেকে বন্ধুত্ব হতে দেরি হয়নি। আর বন্ধুত্ব যে কখন ভাললাগা আর সেখান থেকেই ভালবাসায় পরিণত হল সেটা নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)... না না এখন উনি মিসেস জৈন মোটেও বুঝতে পারেননি। তবে নিখিল (Nikhil Jain) বুঝতে পেরেছিলেন যে জীবনসঙ্গী হিসেবে তাঁর নুসরতকেই চাই। অবশেষে দেখতে দেখতে চারহাত এক হয়ে গেল দু'জনের। বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে এই প্রথম কেউ ডেসটিনেশান ওয়েডিং করল দেশের বাইরে গিয়ে। অবশ্য নিন্দুকেরা গলা বাড়িয়েই আছেন। তাঁরা বলছেন ওই তো শ্রাবন্তিও তো চণ্ডীগড় গেল ডেসটিনেশান ওয়েডিং করতে! কই তাঁকে নিয়ে তো এত কিছু লেখা হচ্ছে না। আচ্ছা বলুন দেখি চণ্ডীগড় আর বোদরুম এক হল? তাছাড়া শ্রাবন্তির স্বামীর বাড়ি হচ্ছে চণ্ডীগড়। তাই সেখানে না গিয়ে কি তাঁরা সাংহাই যাবেন? 

আসলে নুসরতের বিয়ে আর মিমি চক্রবর্তীর সেখানে যাওয়া নিয়ে ঝড় কম ওঠেনি। কিছুদিন আগেই গায়ে হলুদের একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন নায়িকা। যেখানে দেখা যাচ্ছিল তিনি বাবাকে জড়িয়ে কাঁদছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলেও ছবিটির জন্য যথেষ্ট ট্রোল হতে হয় নায়িকাকে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সেই সময় কলকাতায় ডাক্তাররা হরতাল করছিলেন। অনেকেই প্রশ্ন করেন নায়িকা এই বিষয়ে কোনও কথা না বলে কেন নিজের বিয়ে নিয়ে এত মাতামাতি করছেন?    

instagram

নুসরত ও মিমি দু'জনেই খুব ঠাণ্ডা মাথার মানুষ। তাঁরা জানেন তাঁদের রাজনৈতিক কেরিয়ার সবে শুরু হয়েছে। তাই এখন ট্রোলের পাল্টা জবাব দিতে গেলে সমস্যা বেড়ে যাবে। মিমির সঙ্গে নুসরতের অনেক দিনের বন্ধুত্ব আর সেই খাতিরেই তিনি বান্ধবীর বিয়েতে যাবেন বলে স্থির করেন। অনেকে যেমন মিমিকে এই জন্য প্রশংসা করেছেন কেউ কেউ অনেক কড়া কথাও শুনিয়েছেন। অনেকেই প্রশ্ন করেছেন বান্ধবীর বিয়ে কি সাংসদে গিয়ে শপথ নেওয়ার থেকেও গুরুত্বপূর্ণ? তবে মিমিও এই সব কথার কোনও জবাব দেননি। 

তবে সব ভাল যার শেষ ভাল। সব কিছু পেরিয়েই নুসরত আর নিখিল এখন সুখী দম্পতি। বিয়ের পর ইস্তানবুলে দু'জনেই জমিয়ে ঘোরাঘুরি করেছেন। সঙ্গে ছিলেন বন্ধুরাও

instagram

নুসরত আর নিখিল যে শুধু ঘোরাঘুরি করেছেন তা নয়, বেশ অ্যাডভেঞ্চারও করেছেন। নিখিলকে দেখা গেছে হেলিকপটার চালাতে। কর্তা গিন্নি হেলিকপটারের সামনে পোজও দিয়েছেন।

Instagram

নুসরত বলেছেন এটা যেন একটা ফেয়ারিটেল ওয়েডিং, যা তাঁর স্বপ্নে ছিল। দেখে নিন সেই ফেয়ারিটেল ওয়েডিং-এর এক ঝলক।

টুকটাক ঘোরাঘুরি করে জৈন দম্পতি দেশে ফিরেছেন পরশু রাতে। এখন নুসরতকে তাঁর লোকসভা কেন্দ্রের কাজ বুঝে নিতে হবে। এর পর বর-বধূ ইউরোপ বেড়াতে যাবেন বলেন সুত্রের খবর। তবে তার আগে কলকাতায় রয়েছে নুসরত আর নিখিলের রিসেপশন পার্টি।

instagram

বোঝাই যাচ্ছে #NJAffair বেশ ভালই চলছে আর আগামী দিনেও চলতে থাকবে।

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!