নিখিল জৈনের সঙ্গে মরিশাসের সমুদ্রতীরে নুসরত, হনিমুন? নাকি ছুটি কাটাতে...

নিখিল জৈনের সঙ্গে মরিশাসের সমুদ্রতীরে নুসরত, হনিমুন? নাকি ছুটি কাটাতে...

নায়িকা থেকে সাংসদ, গত কয়েক বছরে এক-একটা করে অনেকগুলো সিঁড়ি পেরিয়েছেন নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। পেজ থ্রিতে প্রতিবারই তিনি বেশ কিছুটা জায়গা জুড়েই ছিলেন। তবে শুধু পেজ থ্রি নয়, ফ্রন্ট পেজেও জায়গা করে নিয়েছেন স্বমহিমায়। দিনকয়েক আগেই জীবনের নতুন একটা ইনিংস শুরু করেছেন নায়িকা। বিয়ে করেছেন নিখিল জৈনকে (Nikhil Jain)। তারপর থেকেই নুসরতের পারিবারিক জীবন নিয়ে তাঁর ভক্তদের কৌতূহল তুঙ্গে! আপনিও যদি সেই লিস্টে থাকেন, তা হলে স্পেশ্যালি আপনার জন্য একটা খবর রয়েছে। আজ্ঞে হ্যাঁ, আপনার জন্যই। আপনার প্রিয় নায়িকা সম্ভবত হনিমুনে (Honeymoon) গিয়েছেন! সংসদের কাজ সামলে, টলি ইন্ডাস্ট্রিকে ওয়েটিং মোডে রেখে আপাতত মরিশাসে নিখিলের সঙ্গে একান্তে সময় কাটাচ্ছেন তিনি। নুসরত যে মরিশাসে গিয়েছেন, এ খবর পাকা। কারণ, সোশ্যাল ওয়ালে মরিশাস ভ্রমণের ছবি নিজেই শেয়ার করেছেন তিনি। তবে উদ্দেশ্য, মধুচন্দ্রিমা কিনা, সে ব্যাপারে মুখ খোলেননি।

তুরস্কের বোদরুমে নুসরত-নিখিলের ডেস্টিনেশন ওয়েডিং দেখেছে টলিউড। সম্ভবত টালিগঞ্জে ডেস্টিনেশন ওয়েডিং শুরু হল নুসরতের হাত ধরেই। বলিউডে এই ট্রেন্ড বহুদিনের। কিন্তু টলি পাড়ায় সেই এক্সপেরিমেন্ট নুসরতের আগে কেউ করেননি। ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবং আত্মীয়দের নিয়ে বোদরুমে রাজকীয় অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলেন নায়িকা। মেহেন্দি, সঙ্গীত, হোয়াইট ওয়েডিং সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান ছিল। কলকাতায় ফেরার পর আত্মীয়, বন্ধু এবং সহকর্মীদের জন্য় গ্র্যান্ড পার্টির ব্যবস্থা করেছিলেন। বিয়ের পরই সংসদে প্রথম বার সাংসদ হিসেবে শপথ নেন নুসরত। ব্যস্ত হয়ে পড়েন রাজনীতির জগতে। প্রায়োরিটি লিস্টে নতুন ফ্ল্যাট সাজানোও ছিল। সে সবের মধ্যে আর হনিমুনে যাওয়ার সময় হয়নি। এত দিনে এল সেই প্রতীক্ষিত সময়। 

ব্যাকগ্রাউন্ডে মরিশাসের সমুদ্র। হোটেলের ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে রয়েছেন নিখিল। এমনই একটি ছবি বৃহস্পতিবার শেয়ার করে নিখিল লিখেছেন, “সূর্য, সমুদ্র এবং আকাশ, সঙ্গে আমার চাঁদ নুসরত...” 

নুসরতও কম যান না। সানগ্লাস, খোলা চুল, টপ, শর্ট প্যান্টে তিনিও মোহময়ী। সঙ্গে অবশ্য়ই তাঁর সিগনেচার স্টাইল স্টেটমেন্ট চূড়া। নুসরত লিখেছেন, তাঁর মনে হচ্ছে, তিনি যেন স্বর্গে রয়েছেন। ইনস্টা স্টোরিতেও বেশ কিছু স্থানীয় খাবারের ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন নায়িকা। সেখানে আবার তাঁর তুতো দিদি পূজা প্রসাদ এবং বেস্ট ফ্রেন্ড মিমি চক্রবর্তীকে ট্যাগ করে লিখেও দিয়েছেন যে এত মিষ্টির ছবি নাকি শুধু তাঁদের জন্যই তুলেছেন!

কিন্তু লোকে যে বলেছিল, তাঁরা নাকি টলিউডের প্রথম ডেস্টিনেশন ওয়েডিংয়ের পর হনিমুনে যাবেন খাঁটি ইউরোপে। সুইটজারল্যান্ডে গিয়ে বরফ-টরফ নিয়ে লোফালুফি করবেন! কই, তার বদলে তো দুজনে সানগ্লাস চোখে সমুদ্দুরের দিকে স্রেফ উদাস নয়নে চেয়ে রয়েছেন! আসলে বোধ হয় মেলা কাজ ছিল তো, তাই ইউরোপের ফ্লাইট বুক করার সময় পাননি! নাকি এটা ছোট টুর, পরে আসলি হনিমুনে ড্যাংড্যাং করে ইউরোপে গিয়ে সকলকে চমকে দেবেন! কে জানে বাপু! 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!