নিন্দুকের মুখে ঝামা ঘষে এবার হলিউডি সুপারহিরো সাজছেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া জোনাস

নিন্দুকের মুখে ঝামা ঘষে এবার হলিউডি সুপারহিরো সাজছেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া জোনাস

যাঁরা-যাঁরা বলেছিলেন যে, হলিউডে নাকি মোটেও পাত্তা পাচ্ছেন না প্রিয়ঙ্কা চোপড়া জোনাস, তাঁরা-তাঁকা একটু হাত তুলুন দেখি! দেখে দু' চোখ সার্থক করি! এবার আপনারা অন্তত একটি মাসের জন্য মৌনব্রত অবলম্বর করুন তো। কারণ, নেটিজেনদের মুখে ঝামা এবং আপনাদের মুখে ছাই ঘষে প্রিয়ঙ্কা চোপড়া জোনাস (Priyanka Chopra Jonas) তাঁর পরবর্তী হলিউডি (Hollywood) প্রোজেক্টের শুটিং শুরুও করে দিয়েছেন। এবং আর পাঁচজন সেলেব্রিটির মতো সেটা ঘটা করে ঘোষণা করার কোনও প্রয়োজনও বোধ করেননি! 

তা-ও আবার যে-সে ছবি কিংবা যে-সে পরিচালক নয়। 'স্পাই কিডস' ফ্র্যানচাইজির পরিচালক রবের্তো রডরিগেজের প্রযোজনা ও পরিচালনায় নেটফিক্স (Netflix) ওয়েব স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মের জন্য 'উই ক্যান বি হিরোজ' বলে ছবিটিতে অন্যতম মুখ্য চরিত্রে দেখা যাবে প্রিয়ঙ্কাকে। এই ছবিটিও সুপারহিরো মুভি। একদল এলিয়েন পৃথিবীর সব সুপারহিরোদের বন্দি বানিয়ে কিডন্যাপ করলে তাঁদের ছেলেমেয়েরা একজোট হয় পৃথিবীকে বাঁচিয়ে তাদের বাবামায়েদের আবার ফিরিয়ে আনতে। এই নিয়েই এগোবে ছবির গল্প। প্রিয়ঙ্কার কাস্টিং চূড়ান্ত, তিনি একটি সুপারহিরোর ভূমিকায় অভিনয় করবেন, একথাও শোনা গিয়েছে। কিন্তু কে সেই সুপারহিরো, তা এখনও জানা যায়নি। নিউ ইয়র্কে ছবির প্রাথমিক লুক টেস্ট নাকি শুরু হয়ে গিয়েছে। প্রিয়ঙ্কাকে দেখাও গিয়েছে স্টুডিয়োর বাইরে। কিন্তু গতকাল রাতেই অফিশিয়াল অ্যানাউন্সমেন্ট করা হয়েছে প্রযোজকদের তরফ থেকে।

ইনস্টাগ্রাম

নিক জোনাসকে গত ডিসেম্বরে বিয়ে করার পর থেকেই প্রিয়ঙ্কা জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, এবার থেকে হলিউডেই বেশি মন দেবেন তিনি। কারণ, সেখানেই তাঁর সংসার ও বর্তমান পরিবার থাকে। স্বামী নিকের কর্মব্যস্ততাও বেড়েছে। জোনাস ব্রাদার্স বহুদিন পরে আবার একসঙ্গে পারফর্ম করতে শুরু করেছে। তাঁদের সিঙ্গলস সাকার্স বিলবোর্ড মিউজিক চার্টে টপার হয়েছে, সব শো-ই প্রায় হাউজফুল! প্রিয়ঙ্কাকেও দেখা গিয়েছে সেই শো এনজয় করতে, বাকি জোনাস সিস্টারদের সঙ্গে। 

ইনস্টাগ্রাম

অবশ্য নিন্দুকের তো মুখ আপনি কিছুতেই বন্ধ করতে পারবেন না! তাঁরা এর মধ্যেও কুটকুট করে নানা কথা বলেই চলেছেন! যেমন, এসব হল ফালতু ছবি, প্রতিবারের মতো এবারও প্রিয়ঙ্কার চরিত্র ওই মিনিটপনেরোর বেশি থাকবে না নিশ্চয়ই, প্রিয়ঙ্কার উচিত এবার কেরিয়ার নিয়ে আর মাথায় না ঘামিয়ে সংসারে মন দেওয়া, জুনিয়র জোনাসকে পৃথিবীর আলোর মুখ দেখানো, তাঁর শেষ হলিউড প্রোজেক্ট ইটস রোম্যান্টিক তো স্রেফ ভারতীয় নেটফ্লিক্স ভার্শনেই দেখানো হয়েছিল ইত্যাদি, ইত্যাদি! তা সে তাঁদের মুখ আছে, তাঁরা বলবেনই! ওসব কথায় কান না দিলেই হল...

তবে একথা ঠিক যে, সেই কোয়ান্টিকোর পরে প্রিয়ঙ্কা আর তেমন কোনও ভাল ছবিতে বা প্রোজেক্টে মুখ দেখাননি। যদিও তাতে তাঁর ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার বাড়তে কিংবা খবরে থাকতে কোনও অসুবিধে হয়নি। তিনি জানেন, কী করে প্রচারের আলো কেড়ে নিতে হয়! আর খবরে বেশিদিন ধরে টিকে থাকতে হলে যে হাতে কাজ চাই, সেই ব্যাপারও জানেন তিনি। তাই তিনি সম্প্রতি হলিউডি এজেন্টও পাল্টেছেন। কারণ, আগের এজেন্টটি তাঁকে আর কোনও লোভনীয় প্রোজেক্ট এনে দিতে পারছিল না। নতুন এজেন্ট অন্তত একটি ছবি এখনই এনে দিয়েছে!

তার মানে, নিজের কেরিয়ার নিয়ে যথেষ্ট সিরিয়াস প্রিয়ঙ্কা। আশা করা যায়, ভবিষ্যতে তাঁকে আরও প্রোজেক্টে দেখতে পাব আমরা!

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!