বড় পর্দায় প্রথমবার শঙ্কু, সন্দীপ রায় নিয়ে আসছেন 'প্রোফেসর শঙ্কু ও এল ডোরাডো'

বড় পর্দায় প্রথমবার শঙ্কু, সন্দীপ রায় নিয়ে আসছেন 'প্রোফেসর শঙ্কু ও এল ডোরাডো'

সায়েন্স ফিকশনে আপনার ইন্টারেস্ট রয়েছে? উত্তরটা যদি পজিটিভ হয়, তাহলে নিশ্চয়ই সত্যজিৎ রায়ের লেখা প্রোফেসর শঙ্কুর গল্প আপনি পড়েছেন? আসলে অনেকেরই ছোটবেলার নস্ট্যালজিয়ায় জড়িয়ে রয়েছে শঙ্কুর নাম। আবার অনেকে হয়তো এখন পড়ছেন। তবে এই প্রথমবার বড় পর্দায় আসছে শঙ্কু। পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন সন্দীপ (Sandip) রায়। ছবির নাম 'প্রোফেসর শঙ্কু (Professor Shonku) ও এল ডোরাডো'। বৃহস্পতিবার মুক্তি পাবে এই ছবির ট্রেলার। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী শীতেই বড়পর্দায় প্রথম দেখা মিলবে শঙ্কুর।

সত্যজিৎ রায়ের লেখা 'নকুড়বাবু ও এল ডোরাডো' অবলম্বনে তৈরি হচ্ছে এই ছবি। মূল চরিত্রে রয়েছেন ধৃতিমান চট্টোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, ছবি তৈরির আগে প্রোফেসর শঙ্কুর সব গল্প তিনি পড়ে ফেলেছিলেন। ফলো করেছেন স্রষ্টার স্কেচ। তাছাড়া পরিচালক যেমন চেয়েছেন, সেটা ফলো করেছেন সম্পূর্ণ ভাবে।

এই ছবির অন্যতম চরিত্র নকুড়বাবু। যিনি ভবিষ্যত দেখতে পান। শুধু তাই নয়, বিশেষ ক্ষমতার কারণে সেটা আবার সামনে দেখাতেও পারেন। এ হেন চরিত্রে সন্দীপ কাস্ট করেছেন শুভাশিস মুখোপাধ্যায়কে। অভিনেতা জানালেন, সাহিত্যের যে কোনও চরিত্রকেই পর্দায় ফুটিয়ে তোলা কঠিন। এটাও ব্যতিক্রম নয়। পরিচালকের নির্দেশ পুরোপুরি ফলো করেছেন তিনিও। সত্যজিতের স্কেচ দেখেই চরিত্র বাছাই করেছেন বলে জানিয়েছেন সন্দীপ। তবে প্রোফেসর শঙ্কুর গল্পে তাঁর চাকর প্রহ্লাদ, বেড়াল নিউটন এবং প্রতিবেশী অবিনাশ বাবুরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। সে সব চরিত্রে কারা অভিনয় করছেন, তা এখনও প্রকাশ্য়ে আনেননি তিনি। তবে নকুড়বাবু সারপ্রাইজ এলিমেন্ট হিসেবে থাকবেন বলে জানা গিয়েছে।

 

Facebook

ছোটদের জন্যই প্রোফেসর ত্রিলোকেশ্বর শঙ্কুর গল্প লিখতে শুরু করেছিলেন সত্যজিত্। কিন্তু তা এক সময় বড়দেরও পছন্দের বিষয় হয়ে ওঠে। "আমার বাবা কখনও লেখক হবেন ভাবেননি। আমার প্রপিতামহ উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরি সন্দেশ পত্রিকা শুরু করেছিলেন। সেখানে প্রথম গল্প 'ব্যোমযাত্রীর ডায়েরি'তে বাবা শঙ্কুকে মঙ্গলে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন। সে গল্প সকলের এত ভাল লেগে যায়, তারপর থেকে অনুরাগীদের আবদারেই আরও ৪০টা অ্যাডভেঞ্চারের গল্প লিখে ফেলেন। যে গল্পটা নিয়ে ছবি করছি সেটা আটের দশকে লিখেছিলেন।"

কলকাতা, বোলপুর, দেওঘর, ব্রাজিলের সাও পাওলো এবং আমাজনের জঙ্গলে এই ছবির শুটিং হয়েছে। বড় বাজেটের ছবি বলাই বাহুল্য। অনেক আগে এই ছবির ঘোষণা হয়ে গেলেও বিভিন্ন কারণে কিছুদিন আটকে থাকার পর অবশেষে মুক্তি পেতে চলেছে। এই ছবিতে অনেক ভিএফএক্সের কাজ রয়েছে। এতদিন বাংলা ইন্ডাস্ট্রির ভিএফএক্স অতটা ভাল ছিল না। সে কারণেই অনেক পরে শঙ্কুকে নিয়ে ছবির প্ল্যান করলেন সন্দীপ। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়..