ট্রোলের মোক্ষম জবাবে এক নম্বরে রানি রাসমণি (Rani Rashmoni is a clear TRP winner on TV)

ট্রোলের মোক্ষম জবাবে এক নম্বরে রানি রাসমণি (Rani Rashmoni is a clear TRP winner on TV)

দিতিপ্রিয়া রায় (Ditipriya Roy) সতেরো বছরের এই অভিনেত্রীকে (actress) নিয়ে ক’দিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড়। কেন? এমনিতেই দিতিপ্রিয়া ‘রানি রাসমণি’ ধারাবাহিকে যেভাবে সংলাপ বলেন, সেই নিয়ে যথেষ্ট হাসাহাসি হয়েছে। তাকে নিয়ে তৈরি হয়েছে মেমে এবং নানা কুরুচিকর ভিডিও।কিছুদিন আগে একটি অনুষ্ঠানে দিতিপ্রিয়াকে দেখা যায় ‘কলঙ্কিনী রাধা’ গানটি লাইভ গাইতে। দিতিপ্রিয়া গায়িকা নন। সুতরাং তার গানের সুর তাল এবং উচ্চারণে অনেক সমস্যা ছিল।ট্রোলের সূত্রপাত হয় তখন থেকেই। দিতিপ্রিয়ার সেই গানের ভিডিও আগুনের মতো ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় এবং তা ভাইরাল হয়। অসংখ্য কমেন্টে নানা কথা বলা হয় অভিনেত্রীকে নিয়ে। অনেকে অবশ্য দিতিপ্রিয়ার সমর্থনেও এগিয়ে আসেন। তারা বলেন দিতিপ্রিয়া অল্প বয়সে জনপ্রিয় হয়েছেন বলেই তাকে ট্রোলের শিকার হতে হচ্ছে। আবার অনেকে এও বলেন দিতিপ্রিয়ার সঙ্গীতে কোনও প্রথাগত তালিম নেই। তিনি একটি অনুষ্ঠানে গান গেয়েছেন মাত্র। এটা কোনও দোষের নয়। কিন্তু সমর্থনকারীর সংখ্যা ছিল হাতে গোনা।


দেখুন দিতিপ্রিয়ার সেই গানের ভিডিও

Subscribe to POPxoTV

 


দিতিপ্রিয়া এই ট্রোলের প্রত্যুত্তরে বলেন তিনি এখন যাই কিছু করছেন সেটা নিয়ে ট্রোল হচ্ছে। তিনি যদি এটা নিয়ে প্রতিবাদ করেন তাহলেও ট্রোল হবে আবার চুপ করে থাকলেও ট্রোল হবে। দেখুন ঠিক কী বলছেন দিতিপ্রিয়া।

Subscribe to POPxoTV

কিন্তু সমস্ত ট্রোলের (troll) মোক্ষম জবাব দিয়ে ‘রানি রাসমণি’ ধারাবাহিকটি এক নম্বর পোজিশানে জাঁকিয়ে বসেছে। শেষ টিআরপি (TRP) অনুযায়ী এক নম্বরে রয়েছে এই ধারাবাহিক। যাকে বলে থোঁতা মুখ ভোঁতা করে দিয়েছে নিন্দুকদের। এই মুহূর্তে দেখানো হচ্ছে রানির জামাতা বা জামাই মথুরবাবুর জীবনে কী ঘটছে। মথুরমোহনের চরিত্রটি করছেন গৌরব চট্টোপাধ্যায়।  


 


‘রানি রাসমণি’ প্রথম হলে দ্বিতীয় স্থানটি দখল করেছে ‘কৃষ্ণকলি’ ধারাবাহিকটি। যদিও জনপ্রিয়তার দিক থেকে বিচার করলে রাসমণি টিম অনেক অনেক এগিয়ে আছে কৃষ্ণকলির থেকে। যদিও এর আগে বেশ কিছুদিন প্রথম স্থান দখল করে ছিল ‘কৃষ্ণকলি’ ধারাবাহিক। ‘কৃষ্ণকলি’র জনপ্রিয়তায় ঈষৎ ভাঁটা পড়ার কারণ হিসেবে কাহিনির একঘেয়েমিকেই দায়ী করছেন অনেকে। শ্যামা ও নিখিলকে (তিয়াশা রায় ও নীল ভট্টাচার্য)ঘিরেই কাহিনি আবর্তিত হচ্ছে। খলনায়িকার চরিত্রে রিমঝিম মিত্র (চরিত্রের নাম দিশা)যথারীতি ছক কষে যাচ্ছে শ্যামা আর নিখিলের বিরুদ্ধে। এর বাইরে কাহিনির নতুন কোনও মোড় আসেনি বলেই ‘কৃষ্ণকলি’ পিছিয়ে পড়ছে বলে অনেকের ধারণা।


 krishnakoli


'কৃষ্ণকলি' ধারাবাহিকে তিয়াশা 


তৃতীয় স্থানে রয়েছে বাংলা সারে গা মা পা। বোঝাই যাচ্ছে এটি একটি রিয়্যালিটি শো। সুতরাং দর্শকদের টেনে রাখার মতো সব রকম উপাদান আছে এখানে। তাছাড়া এটি একটি গানের অনুষ্ঠান। সুতরাং সবারই মনোরঞ্জন করছে এই অনুষ্ঠান।


 


চতুর্থ স্থান আছে ‘জয়ী’। ফুটবল বাঙালিদের বরাবরের প্রিয় বিষয়। আর যেখানে বাড়ির বউ নিজেই একজন প্রতিভাময়ী ফুটবলার সেখানে তো দর্শকদের মন জয় করার সব রকম আকর্ষণই আছে এখানে।


 


পঞ্চম স্থানে আছে রয়েছে দেবী চৌধুরানী। পরের দুটি স্থান দখল করেছে ‘জয় বাবা লোকনাথ’ ও ‘কে আপন কে পর।’         


ছবি সৌজন্যঃ ফেসবুক  


POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!