ভাইরাল হওয়া রানু মণ্ডলের মেকআপের ছবি আসলে ভুয়ো! দাবি মেকআপ আর্টিস্টের

ভাইরাল হওয়া রানু মণ্ডলের মেকআপের ছবি আসলে ভুয়ো! দাবি মেকআপ আর্টিস্টের

মুখে চড়া মেকআপ। আর তা এতটাই চড়া যে মুখ পুরো সাদা হয়ে গিয়েছে। মুখ এবং গলার মেকআপের পার্থক্য স্পষ্ট। গোলাপি লিসপ্টিক। ছোট টিপ। কানে এবং গলায় ভারী গয়না। ঠিক এই লুকেই কয়েক দিন ধরে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ার নয়া সেনসেশন রানু (Ranu) মণ্ডলের একটি ছবি। তা নিয়ে প্রচুর হাসি, ঠাট্টা চলছে সোশ্যাল ওয়ালে। প্রচুর মিম তৈরি হয়েছে। কিন্তু যে ছবিটি নিয়ে এত আলোচনা, তা নাকি আসল নয়। গোটাটাই ফোটোশপের কারসাজি। এমনটাই দাবি করেছেন, রানুর মেকআপের দায়িত্বে থাকা উত্তরপ্রদেশের সন্ধ্যাস্ মেকওভার নামে একটি সংস্থা। ইনস্টাগ্রামে মেকআপের পর রানুর আসল ছবির পাশাপাশি ভাইরাল হয়ে যাওয়া নকল (fake) ছবিও শেয়ার করেছেন তাঁরা।

ওই সংস্থার ইনস্টাগ্রামে রানুর আসল ছবির পাশে ভাইরাল হয়ে যাওয়া ছবিটি শেয়ার করে সেটি নকল বলে দাবি করা হয়েছে। পাশাপাশি ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, আপনারা দেখতেই পাচ্ছেন, আমরা কেমন মেকআপ করেছিলাম। আর নকল ছবির মেকআপ কেমন। নকল ছবিটি এডিট করে তৈরি করা হয়েছে। সমস্থ মিম বা জোক দেখে হয়তো আমরা হেসেছি। মজা করেছি। কিন্তু কোনও ব্যক্তির আবেগকে আঘাত করাটাও বোধহয় ঠিক নয়। আশা করি, আপনারা সকলেই আসল এবং নকলের মধ্যে পার্থক্যটা বুঝতে পারবেন।

রানাঘাট স্টেশন গান গাওয়া রানু মন্ডল বিচিত্র কারণে শিরোনামে এসেছেন গত কয়েক মাস। কখনও তাঁর গান ভাইরাল হয়েছে। হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে প্লে-ব্যাকের সুযোগ পেয়েছেন। কখনও বা উৎসাহিত জনতার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছেন তিনি। রানুর জীবনের অতীত ইতিহাস নিয়েও কম কাটাছেঁড়া হয়নি। রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে যাওয়া রানু নিজে কখনও ক্যামেরার সামনে ধন্যবাদ জানিয়ে গিয়েছেন সকলকে। কখনও বা তাঁর অপছন্দের কোনও ঘটনা ঘটলে ভনিতা না করেই খারাপ ভাবে কথা বলেছেন। কিন্তু মেকওভার এবং তার পরবর্তী মিম নিয়ে নিজে কোনও মন্তব্য করেননি। এবার তাঁর মেকআপ আর্টিস্ট মুখ খোলায় বিষয়টি নিয়ে বিরুদ্ধ মতও শোনা যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। 

 

বিভিন্ন সময়ে ট্রোলিংয়ের শিকার হয়েছেন বহু তারকা। তাঁদের মেকআপ বা কাজ নিয়ে সমালোচিত হয়েছেন বিপুল ভাবে। আর সোশ্যাল অডিয়েন্সের এই চরিত্র নিয়েও বহু আলোচনা হয়েছে। এক ধরনের সোশ্যাল ইউজার যেন ট্রোল করে, বা মিম তৈরি করেই মজা পান। ঠিক যেমন রানুর ক্ষেত্রে ওই সংস্থার দাবি অনুযায়ী, ভুয়ো ছবিকে হাতিয়ার করেই রানুকে নিয়ে হাসির ফোয়ারা ছুটেছে। কিন্তু এ কাজ আদৌ কতটা উচিত, তা নিয়ে কারও ভাবনা নেই। এমনকি ভাইরাল হয়ে যাওয়া ছবি ভুয়ো কিনা, তা যাচাই করে নেওয়ারও চেষ্টা করেন না অনেকে। ফলে এখন রানুর পাশে দাঁড়াচ্ছেন অনেকেই। 

 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

এসে গেল #POPxoEverydayBeauty - POPxo-র স্কিন, বাথ, বডি এবং হেয়ার প্রোডাক্টস নিয়ে, যা ব্যবহার করা ১০০% সহজ, ব্যবহার করতে মজাও লাগবে আবার উপকারও পাবেন! এই নতুন লঞ্চ সেলিব্রেট করতে প্রি অর্ডারের উপর এখন পাবেন ২৫% ছাড়ও। সুতরাং দেরি না করে শিগগিরই ক্লিক করুন POPxo.com/beautyshop-এ এবার আপনার রোজকার বিউটি রুটিন POP আপ করুন এক ধাক্কায়..