"গাঙ্গু চাঁদ ছিল, চাঁদই থাকবে!"...রূপালি পর্দায় আলিয়া তবে বাস্তবের গাঙ্গুবাই কে?

"গাঙ্গু চাঁদ ছিল, চাঁদই থাকবে!"...রূপালি পর্দায় আলিয়া তবে বাস্তবের গাঙ্গুবাই কে?

একেই তো লকডাউনে দীর্ঘদিন শুটিং বন্ধ ছিল, তারপর গত ডিসেম্বরে আইনি জটিলতায় জড়িয়েছিলেন সঞ্জয়লীলা বনশালি। আর পুরোটাই ছিল তাঁর পরবর্তী ছবি 'গাঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ি' নিয়ে। তখন বোঝা যাচ্ছিল না, এইসব আইনি জটিলতা এবং তার সঙ্গে শুটিংয়ে ক্ষতি, এই সব কাটিয়ে উঠে আদৌ কি মুক্তি পাবে তাঁর ছবি গাঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ি! সেই সব প্রশ্নের উত্তর দিয়ে দিলেন সঞ্জয় নিজেই। পরিকল্পনা মাফিক নিজের জন্মদিনেই প্রকাশ করলেন গাঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ির টিজার। জানা গেল, আর বেশি দেরি নেই। এই বছর জুলাই মাসেই মুক্তি পেতে চলেছে গাঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ি। যেখানে গাঙ্গুবাইয়ের চরিত্রে অর্থাৎ মূল চরিত্রে অভিনয় করছেন আলিয়া ভাট। কস্টিউম, মেকআপ ও শরীরি ভাষায় আলিয়াকে অসাধারণ মানিয়েছে সেই চরিত্রে। গাঙ্গুবাইয়ের চরিত্রে আলিয়াকে কেমন লাগছে তা জানতে তো টিজার দেখতেই হবে (gangubai kathiawadi teaser)!

 

ছবি সৌজন্য - গাঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ি

গাঙ্গুবাই ও আইনি বিপত্তি

এই ছবির আলোচনা যে এখনই শুরু হয়েছে তাই নয়। এর আগে যখনই সঞ্জয় গাঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ি ছবির ঘোষণা করেছিলেন, সেই সময়েই আইনি মামলায় জড়িয়ে পড়তে হয় তাঁকে। পদ্মাবতের পর ফের বিতর্কের মুখে পড়েন সঞ্জয়। গত ডিসেম্বরে গাঙ্গুবাইয়ের পরিবারের তরফেই বম্বে সিভিল কোর্টে আলিয়া ভাট ও বনশালির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। একইসঙ্গে 'মাফিয়া কুইনস অফ মুম্বই' বইয়ের লেখক হোসেন জায়দির বিরুদ্ধেও মামলা দায়ের করা হয়। যে বইয়ের উপর ভিত্তি করেই এই ছবি তৈরি করা হচ্ছে। পরিবারের অভিযোগ ছিল, গাঙ্গুবাইয়ের চরিত্রকে ভুল ভাবে উপস্থাপন করেছেন পরিচালক। তাঁর জীবনকাহিনিকে ভ্রান্তভাবে দেখানোর চেষ্টা চলছে।

ছবির শুটিং শুরু হওয়ার পরে ভারতে লকডাউন ঘোষণা হয়। ফলে, বন্ধ হয়ে যায় শুটিং। বনশালির ছবির অন্যতম বিশেষত্ব তাঁর ছবির সুন্দর সেট, সেই কথা সব সিনেমাপ্রেমীরাই জানেন! এই ছবিতেও তার অন্যথা হয়নি। সুতরাং, বন্ধ পড়ে রইল ছবির সেট। অনেকটা সময় শুটিং বন্ধ থাকায় যথেষ্ট ক্ষতিও হল সেটের। শুটিং পুনরায় শুরুর জন্য নতুন করে সেট তৈরির জন্যও ব্যয় করতে হয় বনশালিকে (gangubai kathiawadi teaser)।

 

ছবি - গাঙ্গুবাই

এত কিছুর মধ্যেই এই বিষয়ে নিশ্চিত কোনও বার্তা পাওয়া যায়নি যে আদৌ কি ছবি ২০২১-এ মুক্তি পাবে? রূপোলি পর্দায় কি উঠে আসবে এই মহিলা মাফিয়ার গল্প? নাকি অন্যান্য অনেক চরিত্রর মতোই গাঙ্গুবাইয়ের চরিত্রও হারিয়ে যাবে কোথাও! সেইসব প্রশ্নের জবাব এতদিন দেননি সঞ্জয়, বরং তাঁর নিজের জন্মদিনেই রিলিজ করলেন গাঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ির টিজার (gangubai kathiawadi teaser)। স্পষ্টভাবেই জানিয়ে দিলেন ছবির মুক্তির তারিখ, এ'বছর ৩০শে জুলাই!

"গাঙ্গুবাই চাঁদ, আর চাঁদের মতোই উজ্জ্বল থাকবে"

গাঙ্গুবাইয়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন আলিয়া ভাট। তিনি যে এই ছবিতে কতটা দাপটের সঙ্গে অভিনয় করবেন, এবং তার শরীরি ভাষা ও তাঁর অভিনয়ের দক্ষতা যে তাঁকে আবার সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছে দিতে পারে, সেই বিষয়ে বেশ আশাবাদী আলিয়ার অনুরাগীরা। ছবির শুরুতেই পুরুষকণ্ঠে শোনা যায়, "কামাঠিপুরায় কখনও অমাবস্যা আসে না, কারণ এখানে গাঙ্গু থাকে!" এই ধারাভাষ্যই কিছুটা স্পষ্ট করে দেয়, কী উপহার দিতে চলেছে এই ছবি। ৬০-র দশকের মুম্বই শহরের ছবি প্রতিটি দৃশ্য়ে নিখুঁত ভাবে তৈরি করা হয়েছে।

 

ছবি - গাঙ্গুবাই

যখন এই দৃশ্য দেখা যায়, একজন মহিলা সাদা শাড়ি ও কপালে বড় লাল টিপ পরে রেড লাইট এরিয়ার রাস্তা দিয়ে দাপটের সঙ্গে হেঁটে আসছেন, তখন বোঝা যায় সোনালি ফ্রেমের সানগ্লাস যাঁর চোখে রয়েছে তিনি সাধারণ কেউ নন। বরং, তিনি হলে কামাঠিপুরার রানি! যাঁর জন্য কামাঠিপুরায় কখনও অমাবস্যার অন্ধকার ঘনিয়ে আসে না।

 

"আপনি কি আমায় বিয়ে করবেন?" নেহরুকে প্রশ্ন করেছিলেন

গাঙ্গুবাইয়ের আসল ছবি

মুম্বইয়ের মহিলা মাফিয়াদের নাম নিলে যাঁর নাম প্রথম সারিতেই থাকে তিনি হলেন গাঙ্গুবাই। কিন্তু বয়ঃসন্ধিতে পা রাখার সঙ্গে সঙ্গেই নিশ্চয়ই তিনি সেই দাপুটে মহিলা হয়ে ওঠেননি? তাঁর জীবনে লড়াই ছিল। আসলে এই লড়াইয়ের শুরু হয় অনেক ছোট থেকেই। জীবনের প্রথম প্রেম, আর সেই প্রেমই শেষ পর্যন্ত মুম্বইয়ের পতিতালয়ে নিয়ে এসে মাত্র ৫০০টাকার বিনিময়ে বেচে দেয় তাঁকে! রাতের পর রাত কান্নার সঙ্গে পার করার পরে একদিন এই গাঙ্গুই কামাঠিপুরার সবথেকে দাপুটে যৌনকর্মী হয়ে ওঠেন। যাঁর জন্য তৎকালীন শেঠরা পয়সা উজার করে দিতে দুবার ভাবেননি। শোনা যায়, ব্লাউজে সোনালি বোতাম পরতেন গাঙ্গু। তাঁর মাথার উপর সব সময় হাত ছিল তাঁর রাখি ভাইয়ের। যিনি আর কেউ নন, করিম লালা।

 

আসল গাঙ্গুবাই ও সিনেমার পর্দায় গাঙ্গুবাই

খুব কম সময়েই মুম্বইয়ের বড় বড় ডনদের সঙ্গে ওঠা বসা শুরু করেন গাঙ্গু (gangubai kathiawadi teaser)। যোগাযোগ ছিল পুলিশের সঙ্গেও। একইভাবে সমাজসেবামূলক কাজেও যুক্ত ছিলেন। একবার জওহরলাল নেহরু তাঁর কাজে মুগ্ধ হয়ে তাঁকে প্রশ্ন করেছিলেন, তিনি এই ব্যবসা বন্ধ করে, বিয়ে কেন করেন না? উত্তরে গাঙ্গু বলেছিলেন, "আপনি কি আমায় বিয়ে করবেন?" লজ্জায় সেখান থেকে বেরিয়ে এসেছিলেন নেহরু। গাঙ্গুকে বলতে শোনা গিয়েছিল, বলাই সহজ, কিন্তু করে দেখানো কঠিন!

 

গাঙ্গুবাইয়ের জীবন সম্বন্ধিত তথ্য়ঋণ - বিজনেস ইনসাইডার, মাফিয়া কুইনস অফ মুম্বই

মূল ছবি সৌজন্য - গাঙ্গুবাই কাঠিয়াওয়াড়ি

POPxo এখন চারটে  ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও! 

বাড়িতে থেকেই অনায়াসে নতুন নতুন বিষয় শিখে ফেলুন। শেখার জন্য জয়েন করুন #POPxoLive, যেখানে আপনি সরাসরি আমাদের অনেক ট্যালেন্ডেট হোস্টের থেকে নতুন নতুন বিষয় চট করে শিখে ফেলতে পারবেন। POPxo App আজই ডাউনলোড করুন আর জীবনকে আরও একটু পপ আপ করে ফেলুন!