অ্যাসিড আক্রান্ত বাঙালি কন্যে সঞ্চয়িতা যাদবের বিয়েতে অভিনন্দন জানালেন শাহরুখ!

অ্যাসিড আক্রান্ত বাঙালি কন্যে সঞ্চয়িতা যাদবের বিয়েতে অভিনন্দন জানালেন শাহরুখ!

কয়েক বছর আগেও যেমন ছিলেন, আজ আর তেমন নন তিনি। মুখ বিকৃত। কিন্তু হাসি রয়েছে একই রকম। বাঁদিকে চোখ বাহ্যিক ভাবে আগের মতো নেই। কিন্তু সেখানেও রয়েছে ঘন কাজল। যত্ন করে আঁকা ভুরু। লিপস্টিকে রাঙানো ঠোঁটে লাজুক হাসি। কপালের চন্দন, মাথার মুকুট, গা ভরা গয়না বলে দিচ্ছে এ হল নতুন কনের সাজ। আর এই কনে হলেন সঞ্চয়িতা (sanchayita) যাদব।

আর পাঁচটি বাঙালি কনের থেকে সঞ্চয়িতার বিয়েটা কিছুটা আলাদা। সঞ্চয়িতা অ্যাসিড হামলার (acid attack) শিকার হয়েছিলেন। কিন্তু তাতে বেঁচে থাকা বদলায়নি এতটুকুও। দু'দিন আগে কলকাতায় প্রেমিক শুভ্র দে-র সঙ্গে দাম্পত্য সম্পর্কে বাঁধা পরলেন সঞ্চয়িতা। বিয়ে করলেন তাঁরা। আর সঞ্চয়িতা-শুভ্রর সম্পর্ককে সম্মান জানালেন খোদ শাহরুখ খান (Shah Rukh Khan)। সোশ্যাল মিডিয়ায় নব দম্পতিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি। লিখেছেন,"অভিনন্দন সঞ্চয়িতা । শুভ্র আর তুমি একসঙ্গে একটা নতুন জার্নি শুরু করেছ, তোমাদের অনেক শুভেচ্ছা।"

সঞ্চয়িতার উপরে জোর খাটাতে ব্যর্থ হয়ে ২০১৪ সালে দমদমে সৌমেন সাহা নামে এক যুবক তাঁর মুখে অ্যাসিড মেরেছিল বলে অভিযোগ। চার বছর পরে সৌমেনকে ধরে পুলিশ। সে-দিন থানায় তাকে শনাক্ত করতে গিয়ে অভিযুক্তের গালে সপাটে চড় মারতে কসুর করেননি সঞ্চয়িতা। সেই মামলার বিচার শুরু হতে চলেছে। এর মধ্যেই মীর ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিয়ে করলেন তিনি। সাত বছর আগে এই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার প্রতিষ্ঠা করেছিলেন শাহরুখ। অ্যাসিড আক্রান্তদের পাশে দাঁড়ানোই এই সংস্থার মুখ্য উদ্দেশ্য। সে কারণেই সঞ্চয়িতার বিয়েতে অভিনন্দন পৌঁছল শাহরুখের তরফে। 

 

এক বছর আগে সঞ্চয়িতার মা প্রয়াত হয়েছেন। বিয়েটা তিনি দেখে যেতে পারেননি। বিয়ের দিন সঞ্চয়িতার সবচেয়ে বেশি মনে পড়ছিল মায়ের কথা। বিয়ের পর শুভ্রর মাকেই সেই হারিয়ে যাওয়া জায়গাটা দিতে চান তিনি। নতুন পরিবারের সকলকে আপন করে নিয়ে শুরু করতে চান সংসার। শুভ্রর পরিবারের সদস্যদের কাছেও সঞ্চয়িতা অত্যন্ত আদরের। তাঁদের দাম্পত্যের সূচনায় পাশে ছিলেন বন্ধু ও ঘনিষ্ঠরা।

কিছুদিন আগেই মুক্তি পেয়েছে মেঘনা গুলজার পরিচালিত 'ছপাক'। অ্যাসিড আক্রান্ত লক্ষ্মী আগরওয়ালের জীবনের সত্যি ঘটনার উপর এই ছবির চিত্রনাট্য সাজিয়েছিলেন পরিচালক। মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। সে ছবি ভাল লেগেছে দর্শকের একটা বড় অংশের। যে ছবি রিল লাইফে দেখেছেন আপনি, সঞ্চয়িতার জীবনে সেটাই বাস্তব। যাই হয়ে যাক লড়াইয়ের ময়দান ছেড়ে যেতে রাজি নয় এই মেয়ে। নিজেকে প্রতিষ্ঠা করার লড়াই ছিল এতদিন। এবার নতুন একটা সংসারকে ভালবাসা দিয়ে বেঁধে রাখার লড়াই। শাহরুখ শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। স্বীকৃতি এসেছে সমাজের বিভিন্ন স্তর থেকে। নব দম্পতিকে শুভেচ্ছা জানাতে পারেন আপনিও। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, মারাঠি আর বাংলাতেও!

২০২০ শুরু করুন আমাদের দারুণ দারুণ প্ল্যানার আর স্টেটমেন্ট সোয়েটশার্ট দিয়ে। এগুলো সবকটাই আপনারই মতো একশ শতাংশ মজার এবং অসাধারণ! ওহ হ্যাঁ, শুধুমাত্র আপনার জন্য রয়েছে ২০ শতাংশ ছাড়ের ব্যবস্থাও। দেরি কিসের আর, এখনই POPxo.com/shop থেকে কেনাকাটা সেরে ফেলুন আর নিজেকে আরেকটু পপ আপ করে ফেলুন!