দীপিকা পাড়ুকোনকে স্টাইল নিয়ে কী পরামর্শ দিলেন সোনম কপূর, জানলে অবাক হবেন!

দীপিকা পাড়ুকোনকে স্টাইল নিয়ে কী পরামর্শ দিলেন সোনম কপূর, জানলে অবাক হবেন!

ফ্যাশন আর স্টাইল। শব্দ দুটো চেনা তো? দুটো শব্দের মধ্যে একটা বেসিক পার্থক্য আছে। জানেন? ফ্যাশন ট্রেন্ড তো অনেক কিছুই থাকতে পারে। কিন্তু স্টাইল এক্কেবারে নিজস্ব। সেটাই আপনার স্টেটমেন্ট হয়ে উঠবে। কোনও ফ্যাশন ট্রেন্ড ফলো না করেও স্টাইলিশ থাকাই যায়। আর এই ব্যাপারটা বলি পাড়ার যে কয়েকজন নায়িকা গ্রেসফুলি ফলো করেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন সোনম (sonam) কপূর।

সোনম এক কথায় বলিউডের (bollywood) ফ্যাশন ডিভা। কখনও লং গাউন। কখনও শিফন শাড়ি। কখনও বা ফুলেল প্রিন্টের ড্রেস। নিজের মতো করে ক্যারি করতে পারেন। কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের রেড কার্পেট হোক বা মুম্বইয়ের কোনও ফ্যাশন শো সকলের থেকে নিজেকে আলাদা করে নিতে তাঁর জুড়ি মেলা ভার। শুধু তাই নয়। শুটিংয়ে যাওয়ার পথে সোনম যেভাবে সেজে নেন তার থেকে রাত পার্টির লুক খুব সামান্য পরিবর্তনেই কীভাবে আলাদা করতে হয়, তা তাঁর হাতের মুঠোয়। সেই সোনম এবার স্টাইল নিয়ে পরামর্শ দিলেন। কাকে বলুন তো? আরও এক স্টাইল ডিভা দীপিকা (deepika) পাড়ুকোনকে।

চেহারার দিক থেকে দীপিকাকে হিংসে করেন অনেকেই। এককালে জাতীয় স্তরে ব্যাডমিন্টন খেলেছেন। এখনও সেই ফিটনেস বজায় রেখেছেন সমানতালে। ফলে যে কোনও ধরনের পোশাকেই দীপিকাকে মানায় ভাল। একথা নিজেও জানেন তিনি। তবে সোনম একটু নতুন পরামর্শ দিলেন। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, "আমার মনে হয় দীপিকার চেহারা খুব সুন্দর। ও সেটাকে কাজে লাগাতে পারে। মানে, এমন ড্রেস ওর পরা উচিত যাতে শরীর দেখা দেখা গেলেও কোনও অসুবিধে নেই।"

আসলে শরীর নিয়ে ছুৎমার্গ বহুদিন হল কাটিয়ে উঠেছে বলিউড। কয়েক বছর আগেও যাকে বলা হত সাহসী পোশাক, এখন সেটাই রেগুলার ওয়্যার। নায়িকারা নিজেদের মেনটেনও করেন। ফলে বিভিন্ন রকম শেপের ড্রেস পরতে তাঁদের কোনও অসুবিধে হয় না। সোনম বা দীপিকা দু'জনেই সেই ট্রেন্ড ফলো করছেন গত কয়েক বছর। সিলভার স্ক্রিনে নায়িকারা কী পরছেন, তা দেখে আজও সাধারণ মানুষ ফ্যাশন ট্রেন্ড সেট করেন। কিন্তু সোনম মনে করেন, ফ্যাশন সেন্স তৈরি হওয়া উচিত ছোট থেকেই। ট্রেন্ড দেখে তা সেট করা উচিত নয়।

সোনম প্রকাশ্যেই বলেছেন, "দীপিকা নিজের স্টাইল নিজেই সেট করেন।" শুধু দীপিকাই নন, সকলেরই সেটা করা উচিত বলে মনে করেন নায়িকা। কাউকে অনুসরণ করা ভাল। অনুকরণ নয়। কারণ প্রত্যেক মানুষের চেহারার গঠন আলাদা, আলাদা ত্বকের রঙও। ফলে পর্দার নায়িকাদের যা মানিয়ে যাচ্ছে, তা আপনাকে নাও মানাতে পারে। এমনটাই মনে করেন সোনম। যদিও তাঁর দেওয়া স্টাইল অ্যাডভাইস দীপিকার কতটা কাজে লাগবে তা এখনও জানা যায়নি। কারণ এ নিয়ে এখনও পর্যন্ত প্রকাশ্যে কোনও মন্তব্য করেননি দীপিকা। 

POPxo এখন ৬টা ভাষায়! ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, তেলুগু, মারাঠি আর বাংলাতেও!

আপনি যদি রংচঙে, মিষ্টি জিনিস কিনতে পছন্দ করেন, তা হলে POPxo Shop-এর কালেকশনে ঢুঁ মারুন। এখানে পাবেন মজার-মজার সব কফি মগ, মোবাইল কভার, কুশন, ল্যাপটপ স্লিভ ও আরও অনেক কিছু!